E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

ডিএনসিসির সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের ডেট্রয়েট সিটির সমঝোতা স্মারক সই

২০২৩ জানুয়ারি ২৮ ১৩:০৪:২৭
ডিএনসিসির সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের ডেট্রয়েট সিটির সমঝোতা স্মারক সই

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন ও যুক্তরাষ্ট্রের মিশিগান রাজ্যের ডেট্রয়েট সিটির সঙ্গে সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে। এর ফলে দুই সিটির মধ্যে জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা বিনিময় করা হবে। ডিএনসিসিকে যেকোনো ধরনের সহযোগিতা করতে পারবে ডেট্রয়েট সিটি। অন্যদিকে, বাংলাদেশের ভালো কাজগুলো ডেট্রয়েট সিটির সঙ্গে শেয়ার করতে পারবে ডিএসসিসি।

বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) স্থানীয় সময় দুপুর ১২টায় ডেট্রয়েট সিটি ভবনে ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম ও ডেট্রয়েট সিটির মেয়র মাইকেল ই দুগান নিজ নিজ সিটির পক্ষে সমঝোতা স্মারকে সই করেন।

এসময় ডেট্রয়েট সিটির ডেপুটি মেয়র টোডা এ ব্যাটিসন, ডিএনসিসি সচিব মোহাম্মদ মাসুদ আলম ছিদ্দিক, বাংলাদেশ আমেরিকান পাবলিক অ্যাফেয়ার্স কমিটির চেয়ারম্যান এহসান তাকবীম, সোশ্যাল অ্যাফেয়ার্স কাউসার খান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

চুক্তির আওতায় নগরের পরিচ্ছন্নতা, ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা, ড্রেনেজসহ নগর উন্নয়নের সবগুলো সেক্টরে সহায়তা করবে ডেট্রয়েট। এর মাধ্যমে বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় হবে বলে মনে করেন ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম।

আতিকুল ইসলাম বলেন, এ চুক্তি আধুনিক ঢাকা গড়তে সহায়তা করবে। পাশাপাশি শুধু ডেট্রয়েটই নয় যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সম্পর্কের ক্ষেত্রেও নতুন মাত্রা যোগ করবে। ডেট্রয়েট সিটি ও ডিএনসিসির সঙ্গে ‘সিস্টার সিটি’ সমঝোতা স্মারক সই হলো। এটি একটি যুগান্তকারী দিন। এতে প্রমাণিত হয় দুদেশের মধ্যে অত্যন্ত ভালো সম্পর্ক রয়েছে।

শিগগির ডেট্রয়েটের মেয়র ঢাকা সফরে আসবেন জানিয়ে ডিএসসিসি মেয়র বলেন, ‘ডেট্রয়েট ম্যানুফ্যাকচারিং সিটি। ঢাকাও ম্যানুফ্যাকচারিং সিটি। কাজেই এ চুক্তি আমাদের জন্য মাইলফলক হয়ে থাকবে। ‘সিস্টার সিটি’ চুক্তির অর্থ হলো তাদের ভালো দিকগুলো আমাদের দিতে চায়। আবার আমরা আমাদের ভালো দিকগুলো তাদের দিতে চাই। তারা আমাদের ভালো দিক হিসেবে উল্লেখ করেছেন কীভাবে ঘনবসতিপূর্ণ শহরকে পরিচালিত করছি। কারণ ডেট্রয়েট সিটির জনসংখ্যাও বাড়ছে, যা তাদের চিন্তার কারণ।’

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, ‘ডেট্রয়েট সিটির মেয়র জানিয়েছেন এক সময় তাদেরও ক্যানেলগুলোর খারাপ অবস্থা ছিল। তাদের ট্রাফিক ব্যবস্থাপনায় অনেক পরিবর্তন আনতে সক্ষম হয়েছে। আমরা কীভাবে তাদের ট্রাফিক ব্যবস্থাপনাকে কাজে লাগাতে পারি সে বিষয়ে কথা হয়েছে। ডেট্রয়েট সিটির মেয়র কথা দিয়েছেন তিনি ২০২৪ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে বাংলাদেশ আসবেন। তার আগে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সময় সময় কথা হবে। প্রয়োজনে তাদের বিশেষজ্ঞ দিয়ে আমাদের সহায়তা করবেন।’

(ওএস/এএস/জানুয়ারি ২৮, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

১৪ জুন ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test