E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

কবি শ্বেতা শতাব্দী এষ বাঁচতে চায়

২০১৭ মে ৩১ ১৪:৪১:১২
কবি শ্বেতা শতাব্দী এষ বাঁচতে চায়

নিউজ ডেস্ক :


‘আমি দিন দিন ছোট হয়ে বেঁচে থাকি


আর আমার ভেতর এক বৃক্ষ বড় হতে থাকে।’
কিংবা
‘বরফযুগ থেকে আমার রক্তে
হিমোগ্লোবিন কম।
রক্তের ভেতরে ঘুমিয়ে আছে আটটা আগ্নেয়গিরি।
আর শীতল একটা টানেলের ভেতর
ক্রমশ ঝরে যাচ্ছি মুহূর্তবাগানে।’
কবিতার পঙক্তিগুলো কবি শ্বেতা শতাব্দী এষের। শ্বেতা ইতোমধ্যে তরুণদের মাঝে সুনাম অর্জন করে নিয়েছেন। ২০১৬ সালের বইমেলায় প্রকাশিত তার লেখা ‘বিপরীত দূরবীনে’ বইটি ‘আয়েশা ফয়েজ সাহিত্য পুরস্কার ২০১৭’ লাভ করে।

অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে বলতে হচ্ছে- এমন মেধাবী কবি শ্বেতা শতাব্দী এষ থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত। সেইসঙ্গে অপর্যাপ্ত চিকিৎসার জন্য বহু জটিলতায় আক্রান্ত। তিনি এখন প্রায় হাঁটতেই পারছেন না। তার যকৃত মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায়। তাকে বাঁচাতে ভারতের ভেলোরে চিকিৎসা খরচবাবদ ৩০ লাখ টাকা প্রয়োজন বলে তার বড়বোন কবি মন্দিরা এষ জানিয়েছেন।

বাবা জ্যোতিষ চন্দ্র এষ এবং মা ছবি এষের স্থায়ী নিবাস জামালপুর সদরের বসাক পাড়া। শ্বেতা শতাব্দী এষের বয়স ২৫ বছর। জন্মের পর ছয় মাস বয়স থেকেই দুরারোগ্যব্যাধি থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত। ২০০৯ সালে অতিরিক্ত আয়রনের কারণে অপারশেন করে প্লীহা অপসারণ করার পর নানারকম জটিলতায় বিপর্যস্ত হন শ্বেতা। সাথে মাত্রাতিরিক্ত আয়রনের কারণে তার যকৃত মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় পর্যুদস্ত। তার হাড়ের ক্যালসিয়াম বিপজ্জনক পর্যায়ে কমে গেছে। তার হরমোনাল ইমব্যালেন্সের কারণে দেখা দিয়েছে নানারকম শারীরিক সমস্যা।

শ্বেতা শৈশব থেকেই অত্যন্ত মেধাবী। শারীরিক এতোসব জটিলতা নিয়েও তিনি পড়াশোনা ও লেখালেখি চালিয়ে গেছেন নিয়মিত। বরাবর শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভালো ফলাফল করে সবার কাছে হয়েছেন অনন্য দৃষ্টান্ত। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাংলায় মাস্টার্স শেষ করে একটি বহুজাতিক প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানের কাজে যোগদানের কিছুদিন পরই সে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ে। এখন সে পঙ্গুপ্রায় অবস্থায় শয্যাশায়ী। তার জন্য প্রয়োজন দীর্ঘমেয়াদি বিশেষ চিকিৎসার।

ভারতের ভেলোরের খ্রিষ্টান মিশনারি হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য জরুরি ভিত্তিতে প্রয়োজন প্রচুর অর্থের। প্রতিমাসে এখন তার চিকিৎসা খরচ প্রায় ৩০ হাজার টাকা। তার চিকিৎসার জন্য ৩০ লাখ টাকা প্রয়োজন। যা তার বাবা ও পরিবারের পক্ষে সংস্থান করা অসম্ভব। তাই দেশে-বিদেশে বন্ধু-শুভানুধ্যায়ী-মানবিক মানুষেরা এগিয়ে আসতে পারেন।

শতাব্দী এষ, হিসাব নম্বর ৩৪১২৬৬৩৬, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস কর্পোরেট শাখা, জনতা ব্যাংক লিমিটেড। বিকাশ নম্বর : ০১৯১৪-৮৬৭৬৮৭ (শতাব্দীর ব্যক্তিগত নম্বর)।

(ওএস/এসপি/মে ৩১, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test