পাংশা (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি : রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার আসমা সিদ্দিকা মিলি, বিপিএম-সেবা নির্দেশনা ও তত্ত্বাবধানে পাংশা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আহসান উল্লাহ-এর নেতৃত্বে থানা পুলিশ গত বুধবার গভীর রাতে উপজেলার মৌরাট ইউপির বাগদুলী গ্রামে বিশেষ অভিযান চালিয়ে অস্ত্র, মাদক, বিস্ফোরক, ডাকাতি, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে পৃথক ৫টি মামলার আসামী মজনু বিশ্বাস (৩৮) কে দেশীয় তৈরী ১টি একনালা বন্দুক ও ১ রাউন্ড কার্তুজসহ গ্রেফতার করেছে। ধৃত মজনু বিশ্বাস পাংশা উপজেলার মৌরাট ইউপির বাগদুলী চৌড়াপাড়া গ্রামের মৃত জলিল বিশ্বাসের ছেলে।

জানা যায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পাংশা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আহসান উল্লাহ-এর নেতৃত্বে এসআই সেকেন্দার, এসআই নুরুল আমীন, এএসআই মাসুদুল ইসলাম ও এএসআই মো. মুকুল মোল্লাসহ সঙ্গীয় পুলিশ বুধবার গভীর রাতে মজনু বিশ্বাসের শ্বশুর বাগদুলী গ্রামের মৃত বিশু বিশ্বাসের বাড়ীর একটি বসতঘরের ভিতরে পাটকাঠির চাঙের উপর থেকে দেশীয় তৈরী ১টি একনালা বন্দুক ও ১ রাউন্ড কার্তুজসহ তাকে গ্রেফতার করে।

ধৃত মজনু বিশ্বাস সাম্প্রতিক সময়ে শ্বশুর বাড়ীতেই বসবাস করছিল। তার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন এবং যৌতুক নিরোধ আইনে ১টি মামলার ওয়ারেন্ট রয়েছে। এছাড়া তার বিরুদ্ধে অস্ত্র, বিস্ফোরক, ডাকাতি ও মাদকের মামলা রয়েছে বলে জানান পাংশা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আহসান উল্লাহ।

অস্ত্র-গুলিসহ গ্রেফতারের বিষয়ে মজনু বিশ্বাসের বিরুদ্ধে পাংশা মডেল থানায় অস্ত্র আইনে এএসআই মো. মাসুদুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। মামলাটি এসআই সেকেন্দার তদন্ত করছেন।

(এমএইচ/এসপি/জুলাই ১২, ২০১৮)