চিয়ার্স : অধরা অধরে নহর শুকায়

কত দিন
শ্রাবণের ভেজা সৈকতে ভিজি না
কিটকট চৌকিতে বসে বসে ইলিশ ভাজা সাথে দুচোয়ানির চিয়ার্স
শুধু একটি চুমোর অভাবে
হলো না

আষাঢ় গেলো,শ্রাবণ যায় যায় করছে
জলধিকে সাক্ষ্য রেখে মুক্ত সৈকতে অধীর আকাঙ্খায়
অধর শুকিয়ে যায়
কেউ নাই কেউ নাই
কেউ কাউকে কি চায়?

কথা ছিল মান কচু পাতার ছাতায় লুকাবে আমায়
খালি পা,ভাট ফুল, ঝাউবিথী, মাসির গরম পিয়াজু,
মাধুরি রাখাইনের দুচোয়ানি
থুড়ি থুড়ি চিয়ার্সির পিয়ারিতে
ঘোলাটে হবো চোখে ও মুখে

অধর শুকিয়ে যায়
আশায় আশায়
হলোনা আমাদের

তাবত দুনিয়া তুড়ি মেরে উড়িয়ে দিব বলে
ভালোবাসার চুমোয় চুমোয় ভরিয়ে দিব বলে
অধরা অধরে নহর শুকিয়ে যায়