মাদারীপুর প্রতিনিধি : নৌপরিবহণমন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, বিএনপি এখন পরগাছা রাজনৈতিক দলে পরিণত হয়েছে। তাদের আন্দোলন করার কোন সামর্থ্য নেই। দেশে বিভিন্ন সময় অন্যদের আন্দোলনে প্রবেশ করে তারা শুধু উস্কানি দেয়। আর লন্ডনে বসে ষড়যন্ত্র করে তারেক রহমান। বিএনপি নেতা আমির খসরু মোবাইল ফোনে ছাত্রদের নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনে যে ষড়যন্ত্র করেছে, তা আজ প্রমাণিত হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার সকালে মাদারীপুর জেলা পরিষদ হল রুমে জেলা পরিষদের উদ্যোগে ২২৮ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে ৫ লাখ ৭ হাজার টাকা বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

শাজাহান খান আরো বলেন, হেফাজতের আন্দোলন থেকে শুরু করে, কোটা আন্দোলন এমনকি বাস চাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহতের ঘটনা নিয়ে শেখ হাসিনা সরকার পতনের চেষ্টা চালাচ্ছিল বিএনপি। যা এদেশে কখনই বাস্তবায়ন হবেনা।

বিএনপি বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে মিথ্যাচার করছে দাবী করে মন্ত্রী বলেন, হেফাজতের আন্দোলনে বিএনপি বলেছিল শেখ হাসিনা সরকার ২ হাজার মানুষকে মেরে ফেলেছে। যা শুধুই মিথ্যাচার ছিল।
তিনি আরো বলেন, ঢাকায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনায় দেশে যে নৈরাজ্যের আন্দোলন সৃষ্টি হয়েছিল, লন্ডনে বসে তার সকল ষড়যন্ত্র করেছিল বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান। এমনকি আন্দোলনের নামে দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টি করতে অর্থেরও জোগান দিয়েছেন তিনি। দেশে সব আন্দোলনের ঘটনায় লন্ডনে বসে তারেক রহমান ষড়যন্ত্রের নেতৃত্ব দিচ্ছেন।

নৌপরিবহণমন্ত্রী বিএনপির বিগত দিনে সকল আন্দোলনে ব্যর্থ হয়েছে উল্লেখ করে বলেন, ‘এবার ঢাকাতে গাড়ির নিচে পড়ে যে দুইজন কোমলমতি শিক্ষার্থী নিহত হলো। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে যে পরিস্থিতি সৃষ্টি হলো, তখন দেখলাম এই আন্দোলনেও বিএনপি নার্সিং করার চেষ্টা করছে। বিএনপি এখন আর রাজনৈতিক দল নেই, এটি এখন একটি পরনির্ভর দলে পরিণত হয়েছে। তারা নিজেরা কোন আন্দোলন করতে পারে না। দেশে কোন একটি ঘটনা ঘটলেই সেটিকে উস্কে দিতে চেষ্টা করে।’

বাংলাদেশে স্বাধীনতা বিরোধীরা কেউ যেন আর না দাঁড়াতে পারে এ বিষয়ে সবাইকে সর্তক থাকার পাশাপাশি শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার আহবানও জানান মন্ত্রী।

মাদারীপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা মো. মিয়াজ উদ্দিন খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার সুব্রত কুমার হালাদার, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার শাহজাহান হাওলাদার প্রমুখ।

(এএসএ/এসপি/আগস্ট ০৯, ২০১৮)