E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

জাসদে জামায়াতের পূর্ণবাসন!

২০১৯ জানুয়ারি ২০ ১৯:০১:৪৯
জাসদে জামায়াতের পূর্ণবাসন!

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ার মিরপুরে জাসদে যোগদান করে জামায়াত নেতাকর্মী ঐক্যবদ্ধ হয়ে পূর্ণবাসন হওয়ার চেষ্টা চালাচ্ছে। দীর্ঘদিন জামায়াতের সাথে রাজনীতি করে যারা আওয়ামী লীগের সাথে বিভিন্ন সময়ে চক্রান্তে লিপ্ত ছিলো। তারা এখন জাসদের সেল্টারে মাথা উঁচু করতে চাচ্ছে এমনটাই বলছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দরা। 

শনিবার (১৯ জানুয়ারি) বিকেলে কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার কুর্শা ইউনিয়নের মাজিহাট এলাকার প্রায় ৫০জন জামায়াতের নেতাকর্মীরা আনুষ্ঠানিকভাবে জাসদে যোগদান করেন।

জামায়াত নেতা নুর ইসলামের নেতৃত্বে ছের আলী, আবুছদ্দীন, রেজন আলী, রাশিদুল ইসলাম, মোহর আলী, সামছুল আলম, সোলাইমানসহ প্রায় ৫০জন জামায়াতের কর্মী কুর্শা ইউনিয়ন জাসদের সভাপতি জামিরুল ইসলাম ও ওয়ার্ড জাসদের সভাপতি আরব আলীর হাতে হাত দিয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে জাসদে যোগদান করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জাসদ নেতা ইকতার আলী, সাবেক মেম্বর জাহার আলী, সামছুম আলী, তাইজাল আলী শেখ, ইদবার আলী, ওয়ারেশ মল্লীক, যুব জোটের নেতা হুমায়ন কবির।

জামায়াত থেকে সদ্য যোগদানকৃতরা জানায়, আমরা দীর্ঘদিন ধরে জামায়াতের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলাম। এর প্রেক্ষিতে আমরা বিভিন্ন সময়ে গ্রেফতার ও মামলা আতঙ্কে ভুগেছি। আমরা আর নাশকতার মামলায় জড়াতে চাই না। আর জাসদের কর্মকান্ডের কারনে আমরা জাসদে যোগদান করেছি। যাতে ভবিষ্যতে আর নামে মামলা না হয়।

স্থানীয় জাসদ সভাপতি ও ইউপি সদস্য আরব আলী জানান, তারা আগে জামায়াত করতো। এখন তারা জাসদে যোগদান করেছে। জামায়াত বলে আওয়ামী লীগ তাদের সমর্থন না দেওয়ায় আমরা তাদের জাসদে এনেছি।

কুর্শা ইউনিয়ন জাসদের সভাপতি জামিরুল ইসলাম জানান, জাসদের সভাপতি সাবেক তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু মহাদয়ের উন্নয়ন, সন্ত্রাসী দমন, মাদকমুক্ত সমাজ, ঘরে-ঘরে বিদ্যুৎ, কাঁদামুক্ত পাকারাস্তাসহ মিরপুর উপজেলা অভূতপূর্বক উন্নয়ন দেখে জামায়াতের ৫০জন নেতাকর্মী স্ব-উদ্যোগে জাসদে যোগদান করেছে।

কুর্শা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হান্নান জানান, স্থানীয় জাসদের নেতাকর্মীরা তাদের সমর্থন দিন দিন হারিয়ে ফেলে এখন জামায়াতের সাথে যুক্ত হচ্ছে। এরই প্রেক্ষিতে তারা জামায়াতের নেতাকর্মীকে দলে নিচ্ছে। আর যাদের নিয়েছে তারা সকলেই একাধীক নাশকতার মামলার আসামী। এলাকায় সরকার বিরোধী কথা বার্তা ও কর্মকান্ড করে বেড়ায়। দীর্ঘদিন জামায়াতের সাথে রাজনীতি করে যারা আওয়ামী লীগের সাথে বিভিন্ন সময়ে চক্রান্তে লিপ্ত ছিলো। তারা এখন জাসদের সেল্টারে মাথা উঁচু করতে চাচ্ছে। আর জাসদের নেতাকর্মীরা তাদের পূর্ণবাসন করছে।

এদিকে জামায়াত নেতাকর্মীদের জাসদে যোগদানের বিষয়টি জানেন না বলে জানান মিরপুর উপজেলা জাসদের সাধারন সম্পাদক আহাম্মদ আলী।

জেলা জাসদের সভাপতি গোলাম মহসীন জানান, জাসদ স্বাধীনতার বিপক্ষের শক্তি, জামায়াত, যুদ্ধাপরাধীদের দলে নিবে না। যদি আত্মীয়তার খাতিরে জামায়াতদের দলে নিয়ে থাকে তাহলে আমরা তার অনুমোদন দেবো না।

মিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট আব্দুল হালিম জানান, স্বাধীনতা বিরোধী, যুদ্ধাপরাধী জামায়াত। এরা চাই বিভিন্ন সময়ে তাদের মুখোষ পাল্টিয়ে জনসাধারনের ক্ষতি করতে। এরা এখন জাসদের সাথে যোগ দিয়ে মাথা তুলতে চাই। ভবিষ্যতে আবারো দেশের ক্ষতি করতে চাই। আমরা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দরা জামায়াতকে দলে নেওয়া থেকে সবসময় বিরত থাকি। জাসদ কেনো তাদের নিচ্ছে সেটা তারাই বলতে পারে।

(কেকে/এসপি/জানুয়ারি ২০, ২০১৯)

পাঠকের মতামত:

১০ মে ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test