E Paper Of Daily Bangla 71
Rabbani_Goalanda
Transcom Foods Limited
Mobile Version

শিরোনাম:

একই পরিবারের চারজনকে কুপিয়ে হত্যা : আরো তিনজন গ্রেপ্তার 

২০২০ অক্টোবর ২০ ২৩:১৭:২৪
একই পরিবারের চারজনকে কুপিয়ে হত্যা : আরো তিনজন গ্রেপ্তার 

রঘুনাথ খাঁ, সাতক্ষীরা : সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার  খলিসা গ্রামের দু’ শিশু সন্তানসহ তাদের বাবা ও মাকে কুপিয়ে ও জবাই করে হত্যার ঘটনায় আরো তিনজনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে মঙ্গলবার বিকেলে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। বুধবার তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ দিন করে রিমাণ্ড আবেদন করা হবে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, কলারোয়া উপজেলার খলিসা গ্রামের আব্দুস সামাদের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক, একই গ্রামের কাশেম ঢালীর ছেলে পুলিশের সোর্স আব্দুল মালেক ও ধানঘরা গ্রামের সামছুদ্দিনের ছেলে আসাদুল ইসলাম।

খলিষা গ্রামের আব্দুস সামাদ জানান, ১৫ অক্টোবর বৃহষ্পতিবার ভোর রাতে সাতক্ষীরার কলারোয়ার খলসি গ্রামে মাছ ব্যবসায়ী শাহিনুল ইসলামসহ পরিবারের ৪ সদস্যকে গলা কেটে হত্যা করা হয়। রাতে শাহিনুরের শাশুড়ি ময়না খাতুন বাদি হয়ে কারো নাম উল্লেখ না করে কলারোয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয় সি আইডি’র পুলিশ পরিদর্শক শফিকুল ইসলামকে।

হত্যার দিনই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয় নিহতের ছোটভাই রায়হানুল, আব্দুস সামাদের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক, সামছুদ্দিন সরদারের ছেলে আসাদুলকে। পরের দিন রায়হানুলকে হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়। ছেড়ে দেওয়া হয় রাজ্জাক ও আসাদুলকে। সোমবার রায়হানুলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সিআইডি অফিসে তিন দিনের রিমাণ্ডে নিয়ে আসা হয়।

তিনি আরো জানান, রোববার দুপুরে মোবাইল ফোনে সিআইডি ডেকে নিয়ে যায় রাজ্জাক ও আসাদুলকে। সোমবার আনিছুর ও মালেককে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায় সিআইডি। সোমবার ঢাকা রেঞ্জের সিআইডি’র অতিরিক্ত উপমহাপুলিশ পরিদর্শক ওমর ফারুক ঘটনাস্থল পরিদর্শণ শেষে স্থানীয় ও নিহতদের স্বজনদের সাথে কলা বলেন।

মঙ্গলবারও তিনি ঘটনাস্থলে আসেন। মঙ্গলবার বিকেলে তিনি জানতে পারেন যে রাজ্জাক, আসাদুল ও আব্দুল মালেককে শাহীনুরসহ চারজনকে কুপিয়ে হত্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

কলারোয়া আদালতের পুলিশ উপপরিদর্শক কায়েস মাহমুদ জানান, আসামীদের আদালতে পাঠানোর প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে যে, রিমাণ্ডে নেওয়া রায়হানুল হকের জবানবন্দি অনুযায়ি ওই তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বুধবার আদালতে রিমাণ্ড আবেদন জানানো হবে বলে ঊল্লেখ করা হয়েছে।

সিআইডি’র সাতক্ষীরার বিশেষ পুলিশ সুপার আনিচুর রহমান মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এ প্রতিবেদককে বলেন, গ্রেপ্তারকৃতদের বুধবার ১০ দিন করে রিমাণ্ড আবেদন জানানো হবে। তবে সোমবার আটককৃত হায়দার আলীর ছেলে আনিছুর রহমানকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে কিনা তা জানতে চাইলে তিনি ব্যস্ত আছেন বলে মোবাঈল সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।

(আরকে/এসপি/অক্টোবর ২০, ২০২০)

পাঠকের মতামত:

০৫ ডিসেম্বর ২০২০

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test