E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

সুবর্ণচরে নারীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ

২০২১ এপ্রিল ১২ ২১:৫৪:১৬
সুবর্ণচরে নারীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ

নোয়াখালী প্রতিনিধি : নোয়াখালী সুবর্ণচরে অসহায় এক নারীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় ঐ নারী বাদী হয়ে নোয়াখালী জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। 

অভিযোগ ঐ নারী উল্লেখ করেন, গত ১০ এপ্রিল শনিবার রাত ২ টার সময় সুবর্ণচর উপজেলার চর আমান উল্যাহ ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের সাতাশদ্রোন গ্রামের মৃত ছিদ্দিক উল্যাহর স্ত্রী (৫৫) প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে ঘর থেকে বের হলে একই এলাকার নুর ইসলামের পুত্র আব্দুর রশিদ (৪৭) তাকে জোর পূর্বক উঠিয়ে নিয়ে পাশের একটি চাষের জমিতে নিয়ে ধর্ষণ চেষ্টা করে এতে আব্দুর রশিদের সহযোগী হিসেবে ঘটনাস্থলে ছিলেন চর কাজী মোখলেস গ্রামের ছায়েদল হকের পুত্র বর্তমান ৬নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী আব্দুর রহিম(৩৫), সফি উল্যাহর পুত্র মাঈন উদ্দিন(৩৩)। এসময় আব্দুর রহিম তার যৌনাঙ্গে ও শরীরে ব্যপক নির্যাতন করে। পরে তার শৌরচিৎকারে তার পুত্র নিজাম, জাকার প্রতিবেশী আমিনুল হক, খোকন, কুলসুমা আলেয়া বেগমসহ গ্রামবাসীরা দৌঁড়ে আসলে আব্দুর রশিদকে হাতে নাতে ধরে পেলে এবং সহযোগী রহিম এবং মাঈন উদ্দিন দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। পরে আব্দুর রশিদ ভুক্তভোগি নারীকে লাঠি দিয়ে আঘাত করে দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। ঘটনার পরদিন ঐ নারী বাদী হয়ে নোয়াখালী জেলা পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। পরে মামলাটি চরজব্বার থানায় তদন্তের জন্য প্রেরণ করা হলে চরজব্বার থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

নির্যাতিতা নারী আরো বলেন, এর আগেও একাধিকবার আব্দুর রশিদ তাকে জোর পূর্বক তুলে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে এবং শারীরিক নির্যাতন করে। আব্দুর রশিদের বড় ভাই মোঃ সিরাজ ৬ নং ওয়ার্ডের মেম্বার হওয়ায় সে কোথাও বিচার পাচ্ছেনা, চেয়ারম্যানের কাছে একাধিক বার মৌখিক অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার না পেয়ে তিনি উপযুক্ত বিচারের জন্য পুলিশ সুপারের স্বরনাপন্ন হন।

এ বিষয়ে জানতে সরজমিনে অভিযুক্ত আব্দুর রশিদের বাড়ীতে গিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি।

তবে তার ছোটভাই চর আমান উল্যাহ ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা জামাল উদ্দিনের সাথে আলাপকালে তিনি ঘটনার বিষয়ে অস্বিকার করে বলেন, এসব মিথ্যা কথা কথা, জায়গাজমি সংক্রান্ত বিষয়কে কেন্দ্র করে তারা আমার ভাইয়ের নামে মিথ্যা অপবাদ দিচ্ছেন।

এ বিষয়ে আব্দুর রশিদের বড় ভাই সিরাজ মেম্বার বলেন, আমি ঘটনাটি শুনেছি, এই মহিলা একেকবার একেক অভিযোগ করে তবে ঐ নারী কখনো ইউনিয়ন পরিষদে আসেনি।

চরজব্বার থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জিয়াউল হক তরিক খন্দকার বলেন, ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে তদন্ত শেষে জানা যাবে।

(এস/এসপি/এপ্রিল ১২, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

১৯ মে ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test