E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

শিরোনাম:

হেফাজতে ইসলামের শাস্তির দাবিতে নীলফামারীর ১২০০ আলেম-ওলামার বিবৃতি

২০২১ মে ০৬ ১৫:২১:০৯
হেফাজতে ইসলামের শাস্তির দাবিতে নীলফামারীর ১২০০ আলেম-ওলামার বিবৃতি

ওয়াজেদুর রহমান কনক, নীলফামারী : হেফাজতে ইসলামের তান্ডবলীলার প্রতিবাদ এবং এর সাথে জড়িতদের শাস্তির দাবি জানিয়ে নীলফামারীর ছয় উপজেলার ১২০০ আলেম-ওলামা বিবৃতি দিয়েছে ।

বৃহস্পতিবার(৬ মে)গণমাধ্যমে পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানানো হয়, পবিত্র ধর্মের নামে হেফাজতে ইসলাম কিভাবে ধ্বংসযজ্ঞ চালালো । পবিত্র ইসলামের দোহাই দিয়ে মামুনুল হক কিভাবে রিসোর্টে গিয়ে নারী নিয়ে বেহায়াপূর্ণ কাজে লিপ্ত ছিল । শুধু তাই নয়, ইসলামকে ব্যবহার করে সেটিকে ‘মানবিক বিয়ে’ বলে জায়েজ করার কি অপতৎপরতা চালালো হেফাজতে ইসলাম । পরবর্তীতে আমরা গভীর ভাবে অবলোকন করলাম বিভিন্ন রকম ফতোয়া দিয়ে সেই বেহায়াপূর্ণ কাজকে কিভাবে হেফাজতের নেতারা সমর্থন জোগালো । মিথ্যাচার করে গেল । এবং বিভিন্ন অপপ্রচার চালিয়ে মাদ্রাসার কোমলমতি শিক্ষার্থীদের উস্কানী দিয়ে তান্ডবলীলায় জড়িয়ে দিয়ে নিজেরাও তান্ডবলীলা চালালো । ইসলামে ‘মানবিক বিয়ে’ বলে কোন আইন নাই । যা সম্পূর্ণ রুপে হেফাজতে ইসলামের মনগড়া মিথ্যা ফতোয়া ।

বিবৃতিতে নীলফামারী আলেম-ওলামারা হেফাজতকে উগ্র জঙ্গি সংগঠন আখ্যায়িত করে বলেন, জ্বালাও-পোড়াও ও তান্ডবলীলার মাধ্যমে যে অরাজক পরিস্থিতি তৈরি করে সংগঠনটি তা সম্পূর্ণ ইসলামবিরোধী কর্মকান্ড ।

বিবৃতিতে আলেম-ওলামারা স্মরণ করে দিয়ে বলেন, ২০১৩ সালেও হেফাজতে ইসলাম মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের সামনে দেশ জাতি সম্পর্কে নানাবিধ ভুল তথ্য উপস্থাপন করে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি তৈরি করে সাম্প্রদায়িক শক্তির সাথে নিয়ে অপতৎপরতা চালিয়েছে বলে প্রমাণ হয়েছে ।

বিবৃতিতে আরও অভিযোগ করা হয়, সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্র, নারী কেলেঙ্কারী, মসজিদ মাদ্রাসার নামে মিথ্যা তথ্য দিয়ে বিদেশ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ এনে নিজেরা ভোগ করা সহ নানা রকম অপকর্মের দলিল গ্রেফতার হওযা হেফাজত নেতাদের স্বীকারোক্তি থেকে আমরা জানতে পারছি । পাকিস্থানী জঙ্গী গাষ্ঠীর সাথে তাদের সম্পর্ক আছে বলেও পুলিশের জিজ্ঞাসায় উঠে এসেছে । যা আমাদের লজ্জিত করেছে । ইসলাম ও আলেম-ওলামা সমাজকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে । এই কাজটি হেফাজেতে ইসলাম ও সাম্প্রদায়িক অপশক্তি জামায়াত-শিবির মিলে ধর্মকে ব্যবহার করে অত্যন্ত সুপরিকল্পিত ভাবে করছে । দোষীদের শাস্তির দাবি জানিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়, সাম্প্রদায়িক শক্তি ধর্মের নামে অপকর্ম করে দেশ, সমাজ ও ইসলামের যে ভাবমূর্তী ক্ষতিগ্রস্থ করেছে তার তীব্র নিন্দা ও ঘৃণা জ্ঞাপন করছি ।

সভাপতি মউশিক শিক্ষক কল্যাণ পরিষদ, ইসলামী ফাউন্ডেশন মাওলানা আব্দুল জব্বার ও সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা আবু বক্কর সিদ্দিক স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে নীলফামারীর ছয় উপজেলার ১২’শ আলেম-ওলামা স্বাক্ষর করেছেন ।

(কে/এসপি/মে ০৬, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

১৫ জুন ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test