E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা, গ্রেপ্তারকৃত আজিবরের ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন

২০২১ মে ১২ ১৮:০৯:৫৪
গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা, গ্রেপ্তারকৃত আজিবরের ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন

রঘুনাথ খাঁ, সাতক্ষীরা : সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার বসন্তপুর গ্রামের গৃহবধূ তাসলিমা খাতুনকে হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। নিহতের ভাই দেবহাটা উপজেলার বেজোরাটি গ্রামের জমাত আলী গ্জাীর ছেলে ইদ্রিস আলী বাদি হয়ে মঙ্গলবার রাতে দুলা ভাই আজিবরের নাম উল্লেখ করে থানায় এ মামলা দায়ের করেন।

এদিকে পুলিশ নিহতের স্বামী আজিবর রহমানকে গ্রেপ্তার করে বুধবার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে পাঁচ দিনের রিমাণ্ড আবেদন জানিয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃত আজিবর রহমান দেবহাটা উপজেলার বসন্তপুর গ্রামের জিহাত আলী।

মামলার বিবরণে জানা যায় ১৭ বছর আগে বেজোরাটি গ্রামের ইদ্রিস আলীর বোন তাসলিমার সঙ্গে একই উপজেলার বসন্তপুর গ্রামের আজিবর রহমানের সঙ্গে বিয়ে হয়। তাদের দু’টি সন্তান রয়েছে। সম্প্রতি মাঠে কাজ করার জন্য আজিবর তার স্ত্রীকে চাপ সৃষ্টি করতো। বাধ্য হয়ে তাসলিমা অন্যের জমিতে কাজ করতে যেতো। এরপরও তাকে বাপের বাড়ি থেকে টাকা আনতে বলতো আজিবর। নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে তাসলিমা এক সপ্তাহ আগে বাপের বাড়িতে চলে আসে। সোমবার সকালে শ্বশুর বাড়িতে এসে আজিবর ঈদের কেনা কাটা করার জন্য স্ত্রীকে বুঝিয়ে বাড়িতে নিয়ে যায়। সন্ধ্যায় কেনাকাটা করতে নিয়ে যাওয়ার নাম করে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যেয়ে সুশীলগাতি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে আব্দুল গণির মালিকানাধীন আমবাগানে পরিকল্পিতভাবে নির্যাতন চালিয়ে হত্যা করে লাশ ফেলে পালিয়ে যায়। পরদিন সন্ধ্যায় বাড়ির মুরগির ঘরের মধ্যে থেকে আজিবরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

দেবহাটা থানার উপপরিদর্শক হাসিনা খাতুন জানান, তাসলিমা খাতুনকে হত্যার অভিযোগে তার ভাই ইদ্রিস আলী বাদি হয়ে মঙ্গলবার রাতে নিহতের স্বামী আজিবরের নাম উল্লেখ করে পরিকল্পিত হত্যা ও লাশ গুম করার চেষ্টার অভিযোগ এনে থানায় একটি মামলা (জিআর-৪৬/২১ দেবহাটা)দায়ের করেছেন। গ্রেপ্তারকৃত আজিবরকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে পাঁচ দিনের রিমাণ্ড আবেদন জানানো হয়েছে। সাতক্ষীরার জ্যেষ্ট বিচারিক হাকিম তৃতীয় আদালতের বিচারক বিলাস মণ্ডল আগামি ১৬ মে রোববার দিন ধার্য করেছেন।

(আরকে/এসপি/মে ১২, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

১৬ জুন ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test