E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

পাংশা পৌর এলাকায় জলাবদ্ধতা, স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে শত শত পরিবার 

২০২১ সেপ্টেম্বর ১৮ ১৮:১১:৪৮
পাংশা পৌর এলাকায় জলাবদ্ধতা, স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে শত শত পরিবার 

এ কে আজাদ, রাজবাড়ী : নামে রয়েছে প্রথম শ্রেণীর পৌরসভা তবুও বছরের পর বছর জলাবদ্ধতা আর সীমাহীন  ভোগান্তিতে পরে আছে শত শত পরিবার। এটি রাজবাড়ীর পাংশা পৌরসভাধীন ৬ নং ওয়ার্ডের অবস্থা। 

এই ওয়ার্ডের বাংলাপাড়া, বৈরাগীপাড়া ও ওয়ালটন মোড় এলাকার মানুষ বর্ষা মৌসুম আসলেই চরম কষ্টে জীবন যাপন করে। এই অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে দীর্ঘ দিন যাবত পৌর মেয়র ও কাউন্সিলদের দাঁড়ে দাঁড়ে ঘুরছে অত্র এলাকা বাসী।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, এই এলাকার রাস্তাঘাট এর উন্নয়ন হলেও জলাবদ্ধতা থেকে মুক্তি মিলছে না বসবাস কারি দের। বাড়িঘর গুলো হয়ে পড়েছে বসবাসের অনুপযোগী। ঘরে ও বাথরুমে প্রবেশ করেছে পানি৷ স্বাস্থ ঝুঁকিতে রয়েছে পরিবার গুলো। এলাকাবাসীর চলাচলের একমাত্র সড়ক টিও পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় পরিবার গুলো পড়েছে চরম বিপাকে। গবাদিপশু নিয়েও পড়তে হয়েছে দূর ভোগে।

এলাকাবাসীর সাথে কথা হলে তারা বলেন, জলাবদ্ধতার কারণে আমরা গুরু, ছাগল, হাঁস, মুরগি নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছি। এ ছাড়া রান্নাবান্নার জন্য বিশুদ্ধ খাবার পানিসহ বিভিন্ন জটিলতায় ভুগছি, চারদিকে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা ময়লা আবর্জনায় শিশুসহ আমাদের কোনো না কোনো রোগে পড়তেই হয়। পৌরসভার কথা উল্লেখ করে তাঁরা বলেন, এই নামমাত্র পৌরসভার চেয়ে গ্রামের মানুষ অনেক শান্তিতে থাকে।

পৌরসভাধীন ৬ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ বাদশা মন্ডল বলেন, এই এলাকায় বড় বড় বিল্ডিং তৈরি হওয়ার কারণে ড্রেনেজ ব্যবস্থার অবনতি হয়েছে। যার কারণে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হচ্ছে তবে স্থানীয়রা যদি ড্রেনেজ ব্যবস্থা স্বাভাবিক করার জন্য জাইগা ছেড়ে দেয় তবে পৌর কতৃপক্ষ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবে।

পাংশা পৌর মেয়র ওয়াজেদ আলী মণ্ডল বলেন, অনেকবার জলাবদ্ধতা নিরসনের উদ্যোগ নিয়েছি। কাজ করতে গেলে কেউ জায়গা দিতে চায় না। সবাই ড্রেনেজ ব্যবস্থার জন্য জায়গা ছেড়ে দিলে আমরা ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

(একে/এসপি/সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

১৭ অক্টোবর ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test