E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

শম্ভুপুরা ইউনিয়ন নির্বাচনে ব্যাপক আলোচনায় ছাত্রলীগ নেতা বিদ্যুৎ

২০২১ অক্টোবর ২৩ ১৪:১১:২৭
শম্ভুপুরা ইউনিয়ন নির্বাচনে ব্যাপক আলোচনায় ছাত্রলীগ নেতা বিদ্যুৎ

এমডি অভি, নারায়ণগঞ্জ : ইতিমধ্যে দেশের তৃতীয় ধাপে ইউপি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন। তফসিল অনুযায়ী আগামী ২৮ নভেম্বর নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার শম্ভুপুরা ইউনিয়ন পরিষদ সহ আরো ৭টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তাই দিন যতই ঘনিয়ে আসছে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের উত্তাপ ততই বাড়ছে। শম্ভুপুরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় নৌকা প্রতীক প্রত্যাশী চারজন, শেখ এনামূল হক বিদ্যুৎ, নাসিরউদ্দিন, মোতালেব হাজী ও আব্দুল কাদের জয়।

তারা প্রত্যেকেই প্রতিনিয়ত গণসংযোগ করছেন। তবে আসন্ন ইউপি নির্বাচনকে ঘিরে ইতোমধ্যে প্রচার প্রচারণায় ও জনমত জরিপে জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছেন নৌকার মনোনয়ন প্রত্যাশী সোনারগাঁ উপজেলা একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি ও বিশিষ্ট সাংবাদিক সোনারগাঁ জার্নালিষ্ট ক্লাবের সভাপতি তরুণ উদ্দোক্তা মানবিক মানুষ শেখ এনামূল হক বিদ্যুৎ। তিনি ইতিমধ্যে গণসংযোগ শুরু করেছেন। সাড়াও পাচ্ছেন বেশ, সেই সাথে পোষ্টার লিফলেট সাটিয়ে দোয়াও চেয়েছেন তিনি।

পারিবারিক ভাবেই রাজনীতিতে আসা তার। ছাত্র জীবনে তিনি ১৯৮৭ সাল থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত শম্ভুপুরা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি, ১৯৮৮ থেকে ১৯৯২ সাল পর্যন্ত সোনারগাঁ ডিগ্রী কলেজ ছাত্রলীগের ১নং কার্যকরী সদস্য, ১৯৯৩ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত সোনারগাঁ উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

২০১২ সাল থেকে সোনারগাঁ উপজেলা বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সহ-সভাপতি ও ২০১৪ সাল থেকে সোনারগাঁ উপজেলা একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন। এছাড়াও সোনারগাঁ জার্নালিষ্ট ক্লাবের সভাপতির দায়িত্বেও আছেন শেখ এনামূল হক বিদ্যুৎ।

স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা জানান, জনমত জরিপে অন্য তিন সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থীদের চেয়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছেন, বঙ্গবন্ধু মুজিব আদর্শের এ সৈনিক।

উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও নৌকা প্রতীক প্রত্যাশী শম্ভুপুরা ইউনিয়নের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী শেখ এনামূল হক বিদ্যুৎ বলেন, এতদিন দলের জন্য শ্রম দিয়েছি যা এখনো চলমান। বাবাও আমৃত্যু আওয়ামী লীগের সেবা করেছেন। মুক্তি যোদ্ধা সংগঠক ছিলেন।চাওয়া পাওয়ার উর্ধে থেকেই কাজ করেছেন। সেই শিক্ষায় ব্রত হয়েই আমার সামনের দিকে পথ চলা। ইউনিয়নের সামাজিক কাজে অংশ নেয়া সহ করোনাকালে স্বেচ্ছাসেবক টিম গঠন করে করোনা আক্রান্ত ২১টি মৃতদেহ দাফন করেছি। সাধারণ মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছি। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকীতে গণভোজ সহ আওয়ামী লীগের দলীয় সকল কর্মসূচিতে অংশ গ্রহণ করে থাকি।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলার লক্ষ্যে জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্নপূরণে মাদক, দূর্ণীতি, জুয়া, দারিদ্র্য মুক্ত, শিক্ষিত মডেল ইউনিয়ন উপহার দেওয়ার প্রত্যয়ে জনগণের কাছে ছুটে চলছি। নৌকা, দেশ ও মানুষের মঙ্গলের প্রতীক। বঙ্গবন্ধুর প্রতীক নৌকার ওপর আস্থাই পারে গড়ে তুলতে একমাত্র স্বনির্ভর বাংলাদেশ আর এই বিশ্বাস রাখার কারণেই বাংলাদেশে একেএকে অর্জিত হয়েছে সব অর্জন আর তা এসেছে আওয়ামী লীগের হাত ধরে। তাই আসন্ন শম্ভুপুরা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে নৌকার মনোনয়ন দিলে আমি নৌকার সুনিশ্চিত বিজয় তাঁর হাতে তুলে দিতে পারবো ইনশাল্লাহ।

(এমও/এসপি/অক্টোবর ২৩, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

২৯ নভেম্বর ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test