E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

অপহরণ করে চাঁদা দাবি প্রতিবেশীর, দিতে না পারায় শারীরিক নির্যাতন!

২০২১ ডিসেম্বর ০৪ ১৯:০৪:৪৫
অপহরণ করে চাঁদা দাবি প্রতিবেশীর, দিতে না পারায় শারীরিক নির্যাতন!

এ কে আজাদ, রাজবাড়ী : রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার বাবুপাড়া ইউনিয়নের ভট্টাচার্যপাড়ার বাসিন্দা মৃত হাশেম সরকারের স্ত্রী মোছাঃ বেলী খাতুন (৪৬) কে অপহরণ করে দশ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করেছে প্রতিবেশী। 

মোছাঃ বেলী খাতুন দীর্ঘদিন বিদেশ থেকে এসেছে। গত এক থেকে দেড় বছর আগে দেশে এসে সে ছেলে মেয়ে নিয়ে সংসার করছে।

মোছাঃ বেলী খাতুনের ছেলে জসিম উদ্দিন বলেন, আমার মার দীর্ঘ ১০ বছর বিদেশ ছিলো। যার কারণে পাশের বাড়ির ঝর্না বেগম সময়ে অসময়ে টাকার দাবী করতে থাকে কিন্ত আমার মা দিতে না চাইলে বিভিন্ন ভাবে হুমকি দিতে থাকে।

ঘটনার দিন আমার মা (মোছাঃ বেলী খাতুন) পাশের বাড়ি থেকে তরকারির কোটা কাটা (ছাগলের খাদ্য) আনতে গেলে পাশের বাড়ির মোঃ নাজিম দেওয়ান এর স্ত্রী মোছাঃ ঝর্ণা বেগম (৪০), ঝর্ণার ভাই জিন্না (৪৫) ও মেয়ে মোছাঃ বিথী সরদার (২২) গেট থেকে বেড় হতে না হতেই গেট আটকে মাকে আসামিগণ মুখ চেপে ধরে। পরে তাকে তাদের ঘরে আটকে রাখে এমনকি ১০ লক্ষ টাকা দাবী করে। আমার মা দিতে অপারকতা শিকার করলে তাকে শারিরীক নির্যাতন করতে থাকে।

পরে পাশের বাড়ির লোকজন জানতে পারলে তারা গ্রিলে তালা লাগিয়ে দেয়। যার ফলে কেউ তার কাছে যেতে পারে না। এক পর্যায়ে গ্রাম বাসী যেনে যায় এবং থানায় জানালে পাংশা মডেল থানার এস আই নবীন এসে আমার মা কে উদ্ধার করে। পরে তাকে পাংশা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

হসপিটালের কাগজ সহ থানায় গেলেও আমাদের মামলা নেয় নি থানা। তবে আমার মা সুস্থ হলে কোটে মামলা দায়ের করবে।

তথ্য সংগ্রহ কালে জানা যায় আসামী মোছাঃ ঝর্না বেগম বিভিন্ন অনৈতিক কাজের সাথে জড়িত। তার নামে একজন স্বামী থাকলেও তাকে এলাকার কেউ দেখে নাই।

(একে/এসপি/ডিসেম্বর ০৪, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

১৬ জানুয়ারি ২০২২

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test