E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

পাংশা মন্দিরের কালী প্রতিমা ভাংচুর

২০২২ জুন ২৭ ২০:৫৩:৫০
পাংশা মন্দিরের কালী প্রতিমা ভাংচুর

একে আজাদ ও  মিঠুন গোস্বামী, রাজবাড়ী : হিন্দু সম্প্রদায়ের উপাসনালয় মন্দিরের প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনা বর্তমান সময়ের স্বাভাবিক নিয়ম হয়ে দাড়িয়েছে। এবার রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার মৌরাট ইউনিয়নের মহাশ্মশানে প্রথমে নির্মাণ কাজের ইট চুরি করা হয় গেট ভেঙে পরে মন্দিরের কালী প্রতিমা ভেঙে ফেলা হয়েছে।ধারণা করা হচ্ছে গত রোববার দিবাগত রাতের কোনো এক সময় দুর্বৃত্তরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

সোমবার (২৭ জুন) স্থানীয় পূজা কমিটির নেতৃবৃন্দ ও প্রশাসনের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তাদের পরামর্শে ভেঙে ফেলা প্রতিমা বিসর্জন দেয়া হয়।

মন্দির সংলগ্ন হিন্দু সম্প্রদায়ের বাসিন্দা অখিল মৌলিক জানান, মন্দিরটির সামনে তালা দেয়া থাকে। তালা ভেঙে কালী প্রতিমার দুটি হাত, জিহ্বা ভেঙে ফেলেছে। কপালে স্বর্ণের টিপ ছিল। সেগুলোও নিয়ে গেছে। সকালে মন্দিরে পূজা করতে গিয়ে এ দৃশ্য দেখে প্রশাসনকে জানানো হয়। পুলিশ ও পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ এসে প্রতিমা বিসর্জন দিয়ে দিতে বলেন। যে কারণে প্রতিমা বিসর্জন দেয়া হয়েছে।

তিনি আরও জানান, প্রতি বছর বৈশাখ মাসে এ মন্দিরে পূজা হয়। প্রতি পূজার আগে প্রতিমা বিসর্জন দিয়ে নতুন প্রতিমা দিয়ে পূজা করা হয়।

মৌরাট মহাশ্মশান কমিটির সভাপতি উদয় শংকর চক্রবর্তী জানান, মন্দির সম্প্রসারণের জন্য কয়েকদিন আগে কিছু ইট এনেছিলেন। শনিবার মহাশ্মশানের গেট ভেঙে সেখান থেকে অনেকগুলো ইট চুরি করে নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। পরদিন ঘটলো প্রতিমা ভাঙচুরের ঘটনা। কারা কেন এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা বোধগম্য নয়।

পাংশা থানার ওসি (তদন্ত) উত্তম কুমার ঘোষ জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ব্যাপারে মন্দির কর্তৃপক্ষ একটা অভিযোগ দিয়েছে। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের খুঁজে বের করার চেষ্টা চলছে।

(একেএমজি/এএস/জুন ২৭, ২০২২)

পাঠকের মতামত:

১৮ আগস্ট ২০২২

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test