E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

গাজীপুর জেলা পরিষদ নির্বাচন

এক পদে লড়ছেন দুই আওয়ামী লীগ নেতা 

২০২২ সেপ্টেম্বর ২৬ ১৮:১৭:০০
এক পদে লড়ছেন দুই আওয়ামী লীগ নেতা 

আশজাদ রসুল সিরাজী, গাজীপুর : আসন্ন জেলা পরিষদ নির্বাচনে গাজীপুরে চেয়ারম্যান পদে এবার আওয়ামীলীগের দুই নেতা প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। তাদের মধ্যে আওয়ামীলীগের দলীয় সমর্থন নিয়ে প্রার্থী হয়েছেন গাজীপুর জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য মো.মোতাহার হোসেন মোল্লা এবং অপরজন গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক এসএম মোকসেদ আলম দলীয় সমর্থনের বাইরে প্রার্থী হয়েছেন। 

গাজীপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও নির্বাচনে সহকারি রিটানিং অফিসার কাজী মো. ইস্তাফিজুল হক আকন্দ জানান, সোমবার প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। মোতাহার হোসেন পেয়েছেন মোটরসাইকেল এবং এসএম মোকছেদ আলম পেয়েছেন আনারস প্রতীক।

এ পদে আরও একজন স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছেন। তিনি হলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. সামসুদ্দিন খন্দকার, চশমা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন। আজ সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) প্রতীক পেয়েই প্রার্থীরা ভোটারদের কাছে ছুটছেন।

চেয়ারম্যান মোতহার হোসেন মোল্লা বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা জীবনের শেষ প্রান্তে আমাকে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী করে এলাকাবাসীর সেবা করার সুযোগ করে দিয়েছেন। আশা করছি ভোটাররা প্রধানমন্ত্রীর এ ইচ্ছা পূরণ করতে তাকে বিজয়ী করবেন।

কেন দলের সমর্থনের বাইরে গিয়ে প্রার্থী হলেন এ বিষয়ে কেন মন্তব্য না করে এসএম মোকসেদ আলম বলেন, দীর্ঘদিন তিনি গাজীপুর জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ছিলেন। বিভিন্ন সময় তিনি ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। এ সুবাদে কাজের অভিজ্ঞতা-দক্ষতা বৃদ্ধি ছাড়াও তৃণমূলের সকল নেতা-কর্মী তথা ভোটারদের সঙ্গে একটি সু-সম্পর্ক সৃষ্টি হয়েছে। তাদের পরামর্শেই আমি এবার আমি চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছি। তাদের ভোটেই বিজয়ী হবো আশা করছি।

মো. মোতাহার হোসেন মোল্লা’র গ্রামের বাড়ি কাপাসিয়া উপজেলা শহরে। তিনি ১৯৭৫সালে জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অর্থনীতিতে মাস্টার্স করেছেন। তিনি একই বিশ্ববিদ্যালয়ে বর্তমানে সিন্ডিকেট মেম্বার। ১৯৯৬ সালে জেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি, ২০০৩ সালে কেন্দ্রীয় কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ২০১২সালে একই সংগঠনের সভাপতি ছিলেন। ২০০৯-২০১৩ সাল পর্যন্ত কাপাসিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান ছিলেন। বর্তমানে জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য।

গাজীপুর জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ছিলেন এসএম মোকসেদ আলম । তিনি এলাকায় আলম হিসেবেই বেশি পরিচিত। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রিধারী আওয়ামীলীগের একজন নিবেদিত প্রাণ নেতা।
মোকসেদ আলম ২০১৭ সাল থেকে ২০২২ সালের এপ্রিল পর্যন্ত পূর্ণ মেয়াদে গাজীপুর জেলা পরিষদে প্যানেল চেয়ারম্যানও নির্বাচিত হয়েছিলেন। বর্তমানে গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক পদে আছেন। তিনি ছাত্রজীবনে আওয়ামী রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। তিনি ১৯৮৪-৯০ সালে সাবেক জয়দেবপুর থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক, ২০০২ সালে সাবেক বাসন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ছিলেন।

মোকসেদ আলম স্বর্ণা পোল্ট্রি ফিড’র সাবেক স্বত্তাধিকারি, শালবন এগ্রো প্রাইভেট লিমিটেড’র সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক, পাওয়ার ফিস এন্ড পোল্ট্রি ফিড লিমিটেড’র চেয়ারম্যান, বস এগ্রো ফার্ম ও কমপ্লেক্সের মালিক, বুলবুল টাওয়ারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, বিলাশী মৎস খামারের স্বাত্তাধিকারী, গাজীপুর মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক এবং গাজীপুর পোল্ট্রি বহুমূখী সামগ্রী বিক্রেতা সমবায় সমিতি লিমিটেডের সাবেক প্রেসিডেন্ট ছিলেন।
গাজীপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও নির্বাচনে সহকারি রিটানিং অফিসার কাজী মো. ইস্তাফিজুল হক আকন্দ জানান, এবার গাজীপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে তিনজন, সাধারণ সদস্য পদে ২০জন এবং সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে নয় জন প্রার্থী

প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। তাদের মধ্যে এক নম্বর ওয়ার্ডে সাধারণ সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী না থাকায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আবু হানিফকে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত করা হয়েছে।

নির্বাচনে সহকারি রিটানিং অফিসার কাজী মো. ইস্তাফিজুল হক আকন্দ জানান, গাজীপুর সদর উপজেলার ওয়ার্ড’র অধিক্ষেত্রগুলো-গাজীপুর সদর উপজেলা পরিষদ, এর অধীনে ভাওয়াল মির্জাপুর, ভাওয়াল গড়, পিরুজালী ও বাড়িয়া ইউনিয়ন এবং গাজীপুর সিটি করপোরেশনের সমগ্র এলাকা।

কালিয়াকৈর উপজেলার ওয়ার্ডের অধিক্ষেত্রগুলো-কালিয়াকৈর উপজেলা পরিষদ, এর অধীনে মৌচাক, মধ্যপাড়া, বোয়ালী, ফুলবাড়িয়া, চাপাইর, শ্রীফলতলী, সূত্রাপুর, আটাবহ, ঢালজোড়া ইউনিয়ন পরিষদ এবং কালিয়াকৈর পৌরসভা।

শ্রীপুর উপজেলার ওয়ার্ডের অধিক্ষেত্রগুলো হলো- শ্রীপুর উপজেলা পরিষদ, এর অধীনে মাওনা, গাজীপুর, তেলিহাটি, কাওরাইদ, বরমী, গোসিংগা, রাজাবাড়ি, প্রহলাদপুর ইউনিয়ন এবং শ্রীপুর পৌরসভা।

কাপাসিয়া উপজেলার ওয়ার্ডের অধিক্ষেত্রগুলো হলো-কাপাসিয়া উপজেলা পরিষদ, এর অধীনে সিংহশ্রী, রায়েদ, টোক, বারিষাব, কড়িহাতা, ঘাঘটিয়া, সনমানিয়া, তরগাঁও, কাপাসিয়া, দূর্গাপুর ও চাঁদপুর ইউনিয়ন সমূহ।

কালীগঞ্জ উপজেলার ওয়ার্ডের অধিক্ষেত্রগুলো হলো- কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ, এর অধীণে নাগরী, তুমুলিয়া, বক্তারপুর, জাঙ্গালিয়া, বাহাদুর সাদী, জামালপুর, মোক্তারপুর ইউনিয়ন সমূহ এবং কালীগঞ্জ পৌরসভা।

গাজীপুর জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা কাজী মো. ইস্তাফিজুল হক আকন্দ জানান, গাজীপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটার ৬৩৬জন। উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান, ইউপি চেয়ারম্যান ও ওয়ার্ড সদস্য, পৌরসভার মেয়র ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর এবং সিটি করপোরেশনের মেয়র ও কাউন্সিলররা হলেন জেলা পরিষদ নির্বাচনের ভোটার।
ভোটারদের মধ্যে গাজীপুর সদরের ১৩২জন, কালিয়াকৈর উপজেলায় ১৩১জন, শ্রীপুরে ১২০জন, কাপাসিয়ায় ১৪৬জন এবং কালীগঞ্জে ১০৭জন ভোটার রয়েছেন। তাদের ভোটে গাজীপুরে একজন চেয়ারম্যান, ৫জন সদস্য ও ২জন সংরক্ষিত মহিলা সদস্য নির্বাচিত হবেন।

গত ৩১ অগাস্ট নির্বাচন কমিশন গাজীপুরসহ ৬১ জেলা পরিষদ ভোটের তফসিল ঘোষণা করেন। তফসিল অনুযায়ী ১৭ অক্টোবর সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ হবে।

(এস/এসপি/সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২২)

পাঠকের মতামত:

০৪ ডিসেম্বর ২০২২

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test