E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

‘বিএনপি আমলে আমরা অন্ধকার যুগে ছিলাম’

২০২২ ডিসেম্বর ০২ ১৭:৫৪:৪৩
‘বিএনপি আমলে আমরা অন্ধকার যুগে ছিলাম’

এসএ সাদিক, মেহেরপুর : "কুষ্টিয়া (ত্রিমোহনী) -মেহেরপুর-চুয়াডাঙ্গা-ঝিনাইদহ (আর -৭৪৫) আঞ্চলিক মহাসড়কটি কুষ্টিয়া হতে মেহেরপুর পর্যন্ত যথাযথ মান ও প্রশস্ততায় উন্নতিকরণ"  শীর্ষক প্রকল্পের নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করা হয়। আজ শুক্রবার সকালে মেহেরপুর কলেজ মোড়ে এই নির্মাণ কাজের করা হয়।

কুষ্টিয়া সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মোঃ আবু হেনা মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে নির্বাহী প্রকৌশলী মঞ্জুরুল করিমের সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এমপি।

বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মেহেরপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ শাহিদুজ্জামান, খুলনা সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তরের অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী সৈয়দ আসলাম আলী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মেহেরপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক এম এ খালেক, স্থানীয় সরকার মৃধা মোহাম্মদ মোজাহিদুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামিরুল ইসলাম, মেহেরপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আব্দুস সালাম অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মেহেরপুর পৌর মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটন, গাংনী পৌরসভার মেয়র আহমেদ আলী, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইয়ারুল ইসলাম সহ বিভিন্ন উপজেলার চেয়ারম্যান এবং নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

কুষ্টিয়া সড়ক ও জনপদ অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মোঃ আবু হেনা মোস্তফা কামাল বলেন, মেহেরপুর থেকে কুষ্টিয়া প্রকল্পভুক্ত সড়কের মোট দৈর্ঘ্য ৫৩.১৪ কিলোমিটার রাস্তার যথাযথ মান ও প্রশস্ততায় উন্নতিকরণ করা হবে, এরমধ্যে ৪-লেনের সড়ক হবে ৮.৫৪ কিলোমিটার, মেহেরপুরের অংশে ৬.৩৮৫ কিলোমিটার এবং কুষ্টিয়া অংশে ২.১৫ কিলোমিটার এবং এই প্রকল্পে ব্যয় ৬ শত ৪৩ কোটি টাকা।

এ সময় জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, এই রাস্তাটি হয়ে গেলে আমরা মেহেরপুর থেকে কুষ্টিয়ায় যেতে পারবো ৩০ থেকে ৩৫ মিনিটের মধ্যে যার ফলে আমরা অল্প সময়ের মধ্যে গন্তব্যে পৌঁছাতে পারবো।

তিনি আরও বলেন, আমরা ২০০১ থেকে ২০০৬ যে অন্ধকার যুগে ছিলাম জামাত-বিএনপি জোট সরকারের সময়ে মানুষ সন্ধ্যার পর বাহিরে বের হতে পারত না মানুষ আতঙ্কে থাকতো, মানুষ গ্রামে থাকতে চায় তো না কিন্তু বর্তমানে এখন মানুষ গ্রামে গিয়ে বাড়ি তৈরি করতে চাইছে কারণ গ্রাম আর গ্রাম নেই গ্রাম এখন শহরে পরিণত হয়েছে।

(এস/এসপি/ডিসেম্বর ০২, ২০২২)

পাঠকের মতামত:

২৩ মে ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test