E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

যৌতুকের জন্য স্ত্রী খুন, স্বামী পলাতক

২০২৩ ফেব্রুয়ারি ০৮ ২২:৫১:০১
যৌতুকের জন্য স্ত্রী খুন, স্বামী পলাতক

কেন্দুয়া প্রতিনিধি : ঋণগ্রস্ত যুবক সাদ্দাম হোসেন ঋণের টাকা পরিশোধ করতে স্ত্রীর কাছে যৌতুকের টাকা দাবি করে না পেয়ে অবশেষে স্ত্রী পপি আক্তারকে (২৪) খুন করে পালিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে ৭ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার রাতে কেন্দুয়া উপজেলার বলাইশিমুল ইউনিয়নের সরাপাড়া গ্রামে সাদ্দামের নিজ বসত ঘরে। খবর পেয়ে পুলিশ বুধবার সকালে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নেত্রকোণা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। 

জানা যায়, আটপাড়া উপজেলার পুখলগাও গ্রামের ইয়াদ আলীর ছেলে সাদ্দাম হোসেন গত অনুমান ২ বছর আগে রেজিস্ট্রী কাবিনমূলে কেন্দুয়া উপজেলার বলাইশিমুল ইউনিয়নের সরাপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল কাদিরের কন্যা পপি আক্তারের সাথে বিয়ের পিড়িতে বসেন। বিয়ের পর তাদের দাম্পত্য জীবনের ফসল হিসেবে এক ছেলে সন্তান জন্ম নিলেও ভূমিষ্ট হওয়ার সাথে সাথেই সে মারা যায়।

পপি আক্তারের মা পারভিন আক্তার অভিযোগ করে বলেন, তার মেয়ে পপিকে পরিকল্পিত ভাবে সাদ্দাম খুন করে ঘরে তালা লাগিয়ে পালিয়ে গেছে। তিনি বলেন, তার মেয়ের জামাই সাদ্দাম হোসেন তার মেয়ের ঠিকমতো ভরন পোষন করতনা। প্রায় দিনই ঋণের টাকা পরিশোধের জন্য টাকা এনে দিতে চাপ দিত। সাদ্দামের অনেক ঋণ ছিল বলে তার মেয়ে পপি তাকে জানিয়েছিল। কিন্তু টাকা দিতে না পারায় সে পরিকল্পিত ভাবে তার মেয়েকে খুন করে পালিয়ে গেছে। এ ঘটনার তিনি দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী করেন।

কেন্দুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলী হোসেন পিপিএম বলেন, বুধবার সকালে সাদ্দামের বসত ঘর থেকে পপি আক্তারের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নেত্রকোণা মর্গে পাঠানো হয়েছিল। ময়না তদন্ত শেষে তার লাশ আটপাড়া উপজেলার পুখলগাও গ্রামের বাবার বাড়িতে পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরীর সময় পপির গলায় আঙ্গুলের কালো ছাপের দাগ দেখা গেছে। ধারনা করা হচ্ছে পরিকল্পিত ভাবে তাকে শ্বাসরুদ্ধ করে খুন করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখনও মামলা হয়নি। তবে পপির স্বামী সাদ্দাম পলাতক রয়েছে।

(এসবি/এসপি/ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

২২ মে ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test