E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

মামলার রায়ের আগেই হিন্দু ব্যক্তির জমি দখলে নেয়ার অভিযোগ

২০২৩ ফেব্রুয়ারি ০৮ ২২:৫৭:০০
মামলার রায়ের আগেই হিন্দু ব্যক্তির জমি দখলে নেয়ার অভিযোগ

কেন্দুয়া প্রতিনিধি : আদালতে মামলার রায়ের আগেই এক হিন্দু ব্যক্তির জমি জোরামলে দখলে নেয়ার অভিযোগ ওঠেছে। ঘটনাটি ঘটেছে কেন্দুয়া উপজেলার দলপা ইউনিয়নের রঘুনাথপুর গ্রামে। অভিযোগে জানা যায় ওই গ্রামের মৃত রাজেন্দ্র সরকারের ছেলে রমেন্দ্র চন্দ্র সরকার একই গ্রামের মৃত মামুদ হোসেন ছেলে নজরুল ইসলাম গংদের বিরুদ্ধে কেন্দুয়া থানায় বুধবার লিখিত অভিযোগ করেন।

জানা যায়, রমেন্দ্র চন্দ্র সরকারের খরিদ করা সম্পত্তি নিয়ে নেত্রকোণার কেন্দুয়া সহকারি জজ আদালতে মামলা করেন নজরুল ইসলাম। ওই জমি নিয়ে গ্রাম্য শালিশীতে কয়েকবার দেনদরবার হলেও তার মিমাংসা হয়নি। আদালতে মামলা চলমান থাকাবস্থায় কৌশলে জমি দখলে নেয়ার চেষ্টা করেন নজরুল।

রমেন্দ্র চন্দ্র সরকার অভিযোগ করে বলেন, নজরুল গং তার বিরুদ্ধে সহকারি জজ আদালতে একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেছেন। কিন্তু মামলার রায় হবার আগেই সম্পত্তি দখলে নিতে তার খরিদ করা সম্পত্তিতে নজরুল গংরা স্থায়ী ভাবে ঘর উঠানোর চেষ্টা চালায়। পুলিশের কাছে অভিযোগ দিলে বুধবার পুলিশ গিয়ে আদালতে মামলা শেষ না হওয়ার আগ পর্যন্ত উভয় পক্ষকে কোন প্রকার স্থাপনা ওঠানোর জন্য নিষেধ করেন।

এ ব্যাপারে নজরুলের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাকে পাওয়া যায়নি। তবে নজরুলের মা সখিনা আক্তার বলেন, ওই সম্পত্তি তার স্বামী মামুদ হোসেন খরিদ করেছিলেন। কিন্তু রেজিস্ট্রি হয়নি। কিছু সম্পত্তি তাদের দখলে আছে আবার কিছু সম্পত্তি তাদের দখলে নেই বলে তিনি দাবী করেন।

সখিনা বলেন, আমাদের খরিদ করা জায়গাতেই আমরা ঘর উঠাচ্ছি। গ্রামের গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গগণ বলেন, তর্কিত ওই সম্পত্তি রমেন্দ্র চন্দ্র সরকারের খরিদ করা সম্পত্তি। তার পাকাপুক্ত দলিলপত্র আছে। আদালতে মামলা করে নজরুল গংরা জমি দখলে নেয়ার চেষ্টা চালাচ্ছেন বলে তারা অভিযোগ করেন।

কেন্দুয়া থানার ওসি মোঃ আলী হোসেন বলেন, যেহেতু এই সম্পত্তি নিয়ে আদালতে মামলা আছে সেজন্যে মামলা শেষ না হওয়ার আগ পর্যন্ত উভয় পক্ষকে স্থায়ী ভাবে স্থাপনা নির্মান করতে নিষেধ করা হয়েছে।

(এসবি/এসপি/ফেব্রুয়ারি ০৮, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

২২ মে ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test