E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

শরীয়তপুরে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাস বিরোধী শান্তি সমাবেশ রূপ নিল জনসমুদ্রে

২০২৩ ফেব্রুয়ারি ১২ ১৬:০৫:৪১
শরীয়তপুরে আওয়ামী লীগের সন্ত্রাস বিরোধী শান্তি সমাবেশ রূপ নিল জনসমুদ্রে

কাজী নজরুল ইসলাম, শরীয়তপুর : বিএনপি, জামায়াতের সন্ত্রাসী ও জঙ্গিবাদ কর্মকান্ডের প্রতিবাদে শান্তি সমাবেশ করেছে শরীয়তপুর জেলা আওয়ামীলীগ। শনিবার (১১ ফেব্রুয়ারী) বিকালে শরীয়তপুর শিল্পকলা একাডেমি মাঠে অনুষ্ঠিত সমাবেশটি রূপ নেয় জনসমুদ্রে। 

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছাবেদুর রহমান খোকা সিকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত শান্তি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন শরীয়তপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ইকবাল হোসেন অপু। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, শরীয়তপুর-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মাষ্টার মুজিবুর রহমান, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অনল কুমার দে, জাজিরা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোবারক আলী শিকদার, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল হাসেম তপাদার, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ইদ্রিস ফরাজী, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসেন, শরীয়তপুর পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি এম এম জাহাঙ্গীর, জাজিরা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি জি,এম নুরুল হক, শরীয়তপুর পৌরসভার মেয়র এডভোকেট পারভেজ রহমান জন, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, শরীয়তপুর পৌরসভা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন খান, জাজিরা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু তালেব চৌকিদার ও জাজিরা পৌরসভার মেয়র ইদ্রিস মাদবর, জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নুহুন মাদবর, জেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক মোহসীন মাদবর, যুগ্ম আহবায়ক রাশেদুজ্জামান প্রমূখ। এছারাও জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ, যুব মহিলা লীগ, কৃষকলীগ, শ্রমিক লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, মৎসজীবী লীগ ও অন্যান্য সহযোগি সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্তিত ছিলেন। সমাবেশে সঞ্চালনা করেন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও শরীয়তপুর পৌরসভা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি কাজী নজরুল ইসলাম।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইকবাল হোসেন অপু বলেন, এদশে বিএনপি-জামাত জোট সৃষ্টি হয়েছে সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ সৃষ্টি করতে। ওরা ৭১‘র পরাজিত শত্রুদের প্রেতাত্মা। এদেশে ওরা কোনদিন শান্তি আর উন্নয়ন চায়নি। বাংলাদেশ যখন জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের মহা সড়কে দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলেছে তখন বিএনপি-জামাত জোট দেশে আগুন সন্ত্রাস সৃষ্টি করে পিছিয়ে দিতে চাইছে দেশের উন্নয়ন ধারাকে। অপু বলেন, বাংলার মানুষ ২০০৪ সালে ওই সন্ত্রাসীদের গ্রেনেড হামলার কথা ভুলেনি। ২০০৫ সালের সিরিজ বোমা হামলা, ২০১৩ সালের আগুন সন্ত্রাসের কথাও ভুলে যায়নি। ওরা আবার দেশটাকে সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদের আখড়ায় রূপান্তরিত করতে চায়। তিনি শান্তি সমাবেশে উপস্থিত জনতাকে লক্ষ্য করে বলেন, আপনরা প্রতিটি এলাকায় সজাগ থাকবেন, যাতে পরাজিত শত্রুরা আর কোন দিন মাথা উঁচু করে দাড়াতে না পারে। শেখ হাসিনা ঘোষিত ২০৪১ সালের উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মানে সহায়তা করার জন্য আসন্ন দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগকে পূনরায় ক্ষমতায় আনার আহবান জানান ইকবাল হোসেন অপু।

উল্লেখ্য, আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে দলের কেন্দ্রীয় সদস্য সাংসদ ইকবাল হোসেন অপুর নেতৃত্বে ইউনিয়ন পর্যায়ে শান্তি সমাবেশের নির্দেশনা মতে গতকালের সমাবেশটি অনুষ্ঠিত হয়। তবে, একই দিন বিএনপি‘র পদযাত্রার ঘোষণা দেয়া হলেও তাদের কোন কর্মসূচি পালনের খবর পাওয়া যায়নি।

বিকেল তিনটা থেকে শরীয়তপুর সদর উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ড এবং জাজিরা উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন ও জাজিরা পৌরসভা থেকে হাজার হাজার নেতা-কর্মীরা মিছিল সহকারে সমাবেশ স্থলে আসতে থাকেন। জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ ও যুব মহিলা লীগ আলাদা আলাদাভাবে নারীদের কয়েকটি মিছিল নিয়েও সমাবেশে যোগ দেন। দুইটি উপজেলা থেকে হাজারো মানুষের যখন ঢল নামে তখন শরীয়তপুর শিল্পকলা একাডেমির বিশাল প্রাঙ্গন ছাপিয়ে মানুষ ছড়িয়ে পরেন শরীয়তপুর জেলা শহরের পুলিশ বক্স এলাকা থেকে উত্তর বাজার পর্যন্ত। সন্ধ্যা নামার আগেই শরীয়পুর জেলা শহর রূপান্তরিত হয় জনসমুদ্রে। বিকেল ৪টায় শুরু হয়ে রাত ৯টায় শেষ হয় সমাবেশটি।

(কেএন/এসপি/ফেব্রুয়ারি ১২, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

২৫ জুলাই ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test