E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

মানহানীকর ও ভিত্তিহীন অপপ্রচারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

২০২৩ মার্চ ২৪ ১৬:০০:১১
মানহানীকর ও ভিত্তিহীন অপপ্রচারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

বিশেষ প্রতিনিধি : একটি সংগবদ্ধ চক্র দীর্ঘদিন ধরে সমাজের সম্মানিত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে সম্মানহানী ও মানহানীকর পরিকল্পিত অপতৎপরতার মাধ্যমে বিশেষ সুবিধা আদায় করে সুশৃঙ্খল সামাজিক পরিবেশের ভারসাম্য বিনষ্ট করে আসছে। এই দুষ্টচক্রের ধারাবাহিক ভিন্ন অপতৎপরতা রোধে ও তাদের দৌরাত্ব কৌশলী চাঁদাবাজী বন্ধ সহ হয়রানির প্রতিবাদে মানহানীকর অভিযোগ ও ভিত্তিহীন অপপ্রচারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

নেত্রকোণা পৌরসভার নিউটাউন বিলপাড়ের বাসিন্দা মোঃ মাহবুবুল ইসলাম পরশ ও তার স্ত্রী অধ্যক্ষ মুসলিহা আক্তার এবং নন্দিপুর কারিগরি ও বানিজ্যিক কলেজের অধ্যক্ষ মাসুদুর রহমান বৃহস্পতিবার সকালে নেত্রকোণা নাগরার আয়শা কমিউনিটি সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। সংবাদ সম্মেলনে তারা অদৃশ্য ও ভিন্ন অপশক্তির মদদপুষ্ট তথাকতিত প্রতিধিদের বিরুদ্ধে সুষ্ঠু তদন্ত ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।

অধ্যক্ষ মুসলিহা তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, আমি নেত্রকোণাস্থ কেন্দুয়া উপজেলার রামপুর এলাকায় অবস্থিত “ক্রাইম ডিজিটাল ইনস্টিটিউট” এর অধ্যক্ষ ওই প্রতিষ্ঠানের প্রতিষ্ঠাতা আমার বড় ভাই অধ্যক্ষ মাসুদুর রহমান। আমরা দুই ভাই পাঁচ বোন এবং দুই ভাবী সহ পৈত্রিক একই বাড়িতে ৯ জন শিক্ষকতা পেশায় জড়িত আছি।

তিনি বলেন, আমি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দায়িত্ব পালন শেষে আমার স্বামী মোঃ মাহাবুবুল ইসলাম পরশ সহ প্রতিদিন বিকাল ৫ ঘটিকা থেকে রাত ১০ ঘটিকা পর্যন্ত স্বামীর গ্রামের বাড়িতে ‘মারাদিঘি’ প্রতিষ্ঠিত পল্ট্রি ও গবাদি পশুর খামার ও কৃষি কার্যক্রম পরিচালনা সহ তদারকি করি। পল্ট্রি ও গবাদি পশুর খামারে ৬ জন কর্মচারীর কাজের ক্ষেত্র তৈরি করেছি। শিক্ষা কৃষি পল্ট্রি, গবাদি পশু ও মৎস্য খামার প্রতিষ্ঠা এবং পরিচালনার মাধ্যমে মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টি তথা দৃষ্টান্ত স্থাপনকারী সফল নারী উদ্যোক্তা হিসেবে জাতীয় ভাবে বর্তমান সরকারের রূপকল্প- ৪১ বাস্তবায়নের গর্বিত সৈনিক হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হতে দিন রাত পরিশ্রম করে যাচ্ছি। আমার ও আমার স্বামীর পৈত্রিক নিজস্ব অর্জিত সম্পদ ও আয়ের উপর পৃথক ভাবে সরকারী বিধি মোতাবেক আয়কর, খাজনা, পৌরকর, পানি, বিদ্যুৎ, গ্যাস সহ যাবতীয় ফি যথাযথ ভাবে নিয়মিত পরিশোধ করে যাচ্ছি। তথাপি অশুভ শক্তির অপতৎপরতা ও মানহানিকর প্রচেষ্ঠায় আমার ও আমার স্বামীর গৃহিত উন্নয়নমূলক কার্যক্রমকে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্ঠা করছে। তারা সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের বিরোধীতা করে উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন বাস্তবায়নে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে। সংবাদ সম্মেলনে অধ্যক্ষ মাসুদুর রহমান বলেন, বিরোধীতার স্বার্থে বিরোধীতা না করে ভালো কাজের প্রসংশা করা দরকার।

তিনি বলেন, ওই অশুভ চক্রটি অবৈধ মুনাফা আদায়ের লক্ষে শান্তিপ্রিয় মানুষকে অযথা চাপে ফেলে হয়রানি করতে চায়। তাদের বিরুদ্ধে সুষ্ঠু তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানান মাসুদুর রহমান।

অপরদিকে মুসলিহার স্বামী মোঃ মাহাবুবুল ইসলাম পরশ বলেন, সরকারকে রাজস্ব দিয়ে বৈধ ভাবে ব্যবসা করে অর্থ উপার্যন করি, আমাদের উপার্জিত অর্থে কোন গলদ নেই। দাবি করে তিনি বলেন, যারা আমাদের বিরুদ্ধে মানহানিকর অপপ্রাচারে লিপ্ত রয়েছেন, তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে প্রশাসন যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে এটাই আশা করি। অধ্যক্ষ মুসলিহা সংবাদ সম্মেলনে আসা সকল গণমাধ্যম কর্মীদের যথাসময়ে উপস্থিত হওয়ার জন্য ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান। সেই সাথে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনেরও অনুরোধ করেন।

(এসবি/এসপি/মার্চ ২৪, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

১৮ মে ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test