E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

শিরোনাম:

সাতক্ষীরায় ১০ জয়িতাকে সম্মাননা প্রদান

২০২৩ ডিসেম্বর ০৯ ১৭:০৭:৫৯
সাতক্ষীরায় ১০ জয়িতাকে সম্মাননা প্রদান

রঘুনাথ খাঁ, সাতক্ষীরা : আর্ন্তজাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ ও বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা শেষে ১০ জন জয়িতাকে সম্মাননা প্রদান করা হয়েছে। জেলা প্রশাসন ও বাংলাদেশ মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের আয়োজনে শনিবার সকাল ১০টায় সাতক্ষীরা জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সাতক্ষীরা জেলা মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের উপপরিচালক একে শফিউল আযমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) সারোয়ার হোসেন। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কোহিনুর ইসলাম, সুশীলনের কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান, শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক মিল্টন, সদর উপজেলার “সফল নারী জননী” হিসেবে নির্বাচিত সদর উপজেলার শ্রেষ্ঠ জয়িতা আনোয়ারা হক, বিপাশা বিশ্বাস, শাম্মী আক্তার রিতা প্রমুখ।

প্রধান অতিথি বলেন, নারী সমাজের উন্নয়নে বেগম রোকেয়ার অবদান অপরিসীম। তিনি নারীদের আধিকার আন্দোলন ও শিক্ষার ক্ষেত্রে আজীবন আন্দোলন করে গেছেন। নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ও নারীদের অধিকার প্রতিষ্ঠিত করতে যেয়ে তাকেও মানসিক ভাবে নির্যাতিত হতে হয়েছে। তারই সুফল ভোগ করছেন আজকের নারীরা। তারা বেগম রোকেয়ার কর্মজীবনকে জীবনের পাথেয় ধরে নিয়ে সাতক্ষীরা সদর উপজেলা ও জেলার ১০জন নারী নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠিত করতে পেরেছেন। বেগম রোকেয়ার আদর্শ তাদের সার্বক্ষণিক অনুপ্রেরণা যুগিয়েছে। এরপরও নারীরা আজো নির্যাতিত, নিপিড়িত ও বঞ্চিত। আমাদের পুরুষ শাসিত সমাজে নারীদের অধিকার প্রতিষ্ঠা করা এক সময় কঠিন হলেও আজ তা অনেকখানি সহজ হয়েছে। আর্ন্তজাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ পক্ষ উপলক্ষে আমাদের সকলকে নারীদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় কাজ করে যেতে হবে।

তবে সদর উপজেলার “সফল নারী জননী” হিসেবে নির্বাচিত সদর উপজেলার শ্রেষ্ঠ জয়িতা আনোয়ারা হক বলেন, একজন সফল মা হতে গেলে জীবনে অনেক বেশি ত্যাগ স্বীকার করতে হয়। এই ত্যাগই সন্তানদের আদর্শ হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভা শেষে সদর উপজেলা ও জেলা পর্যায়ের ১০ জন জয়িতাকে ক্রেস্ট ও সনদ প্রদান করা হয়।

(আরকে/এএস/ডিসেম্বর ০৯, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test