E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

শিরোনাম:

‘পাঁচভাগ মানুষ দুর্নীতি করে আর ৯৫ ভাগ দুর্নীতির শিকার হন’

২০২৩ ডিসেম্বর ০৯ ১৭:২৪:৫৮
‘পাঁচভাগ মানুষ দুর্নীতি করে আর ৯৫ ভাগ দুর্নীতির শিকার হন’

রাজন্য রুহানি, জামালপুর : জামালপুরের জেলা প্রশাসক (ডিসি) মো. শফিউর রহমান বলেছেন, 'দেশের পাঁচ ভাগ মানুষ দুর্নীতি করে থাকে। আর ৯৫ ভাগ মানুষ দুর্নীতির শিকার হন। বেশিরভাগ দামি পোশাকধারী মানুষ বুকে হাত দিয়ে বলতে পারবে না সে দুর্নীতি করে না।'

তিনি আরো বলেন, 'এ দেশ আরো আগেই উন্নত হতো যদি দুর্নীতি না থাকতো। শুধু ঘুষ, অর্থ আত্মসাতই দুর্নীতি না, কথার বরখেলাপ করা, সময় মতো অফিস না করা, মানুষকে হয়রানি করা, কাজে ফাঁকি দেয়াটাও দুর্নীতি।'

ডিসি বলেন, 'প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী হিসেবে আমরা যে ধরনের সুযোগ-সুবিধা ভোগ করি সে তুলনায় মানুষের জন্য কাজ কতটুকু করি তা আজ ভাবতে হবে। দুর্নীতিবিরোধী সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার মধ্যদিয়ে বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ে তোলার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহ্বান জানান।'

শনিবার (৯ ডিসেম্বর) সকালে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী দিবসের এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

উন্নয়ন, শান্তি ও নিরাপত্তার লক্ষে দুর্নীতির বিরুদ্ধে আমরা ঐক্যবদ্ধ' স্লোগানে জেলা প্রশাসন, দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) সমন্বিত জেলা কার্যালয় ও জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির (দুপ্রক) যৌথ আয়োজনে দিবসটি পালিত হয়।

দিবসটি পালন উপলক্ষে দিনের শুরুতেই জেলা দুদক কার্যালয় প্রাঙ্গনে জাতীয় সংগীত পরিবেশনা এবং বেলুন উড়িয়ে দিবসের উদ্বোধন করা হয়। সকাল ৯টায় শহরের বকুলতলা চত্বরে অনুষ্ঠিত হয় বিশাল মানববন্ধন। জেলার সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, সুশীল সমাজ, সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ অংশ নেন। পরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. মোক্তার হোসেন।

দুদকের কার্যক্রম এবং দুর্নীতিবিরোধী সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানিয়ে বক্তব্য রাখেন দুদক সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপপরিচালক মলয় কুমার সাহা।

সভায় আলোচনায় অংশ নেন জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মাসুম আলম খান, সিভিল সার্জন ডা. প্রণয় কান্তি দাস, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আনোয়ার, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মুনমুন লিজা, জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সাযযাদ আনসারী, সাংবাদিক আনোয়ার হোসেন মিন্টু, সংস্কৃতিকর্মী তারিকুল ফেরদৌস প্রমুখ।

মানববন্ধন সঞ্চালনাসহ অনুষ্ঠানের সার্বিক দায়িত্ব পালন করেন জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর সেলিম।

জামালপুর শহরের বিভিন্ন জনগুরুত্বপূর্ণ স্থানে দিনব্যপী দুর্নীতিবিরোধী ভ্রাম্যমাণ বাউল সংগীত পরিবেশিত হয়। এছাড়া শহর জুড়ে পোস্টার ও মোড়ে মোড়ে পোস্টার ও ব্যনার প্রদর্শন করা হয়।

(আরআর/এসপি/ডিসেম্বর ০৯, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test