E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

শিরোনাম:

বাগেরহাটে ডাবল সেঞ্চুরি অতিক্রম করার পর বাজারে মিলছেনা পেঁয়াজ

২০২৩ ডিসেম্বর ০৯ ১৯:৩৭:১২
বাগেরহাটে ডাবল সেঞ্চুরি অতিক্রম করার পর বাজারে মিলছেনা পেঁয়াজ

সরদার শুকুর আহমেদ, বাগেরহাট : ভারত রপ্তানি বন্ধের ঘোষণা দেয়ার পর দেশের বাজারে হু হু করে বাড়ছে বাগেরহাটে পেঁয়াজের দাম। একদিনের ব্যবধানে দেশি ও ভারতীয় পেঁয়াজের দাম কেজি প্রতি বেড়েছে ১০০ থেকে ১২০ টাকা পর্যন্ত। শুক্রবার দেশি পেঁয়াজের দাম ছিলো ১২০টাকা, যা পরের দিন শনিবার বিক্রি হচ্ছে ২২০ টাকা কেজি দরে। ভারতীয় পেঁয়াজের দাম ছিলো ১০০ টাকা থেকে ২০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। সব মিলিয়ে পেঁয়াজের দাম কেজি প্রতি ১০০ টাকা বেড়েছে। বাগেরহাটের ডাবল সেঞ্চুরি অতিক্রম করার পরও শনিবার সন্ধ্যায় খুচরা বাজারে দেশি পেঁয়াজ পাওয়াই যাচ্ছে না। আড়তের পাওয়া যাচ্ছেনা দেশি পেঁয়াজ। ফলে নিম্ন ও মধ্যবিত্তের পাশাপশি বিপাকে পরেছেন উচ্চবিত্ত ক্রেতারা।

বাগেরহাট শহরের কাঁচা বাজারের খুচরা বিক্রেতা ছত্তার শেখ বলেন, পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের খবরে গতকাল রাত থেকে পেঁয়াজের দাম আড়ৎদাররা কেজিতে ৮০ থেকে ১০০ টাকা বাড়িয়ে দিয়েছে।

বাজারে পেঁয়াজ কিনতে আশা আমির হোসেন রনি বলেন, গতকালও যে পেঁয়াজ ১০০ টাকা দিয়ে কিনেছি, আজ সেই পেঁয়াজ ২০০ টাকা দাম। সব সিন্ডিকেট করে দাম বাড়িয়ে দিয়েছে। এভাবে চলতে থাকলে আমরা ক্রেতারা কোথায় যাবো। আমাদের সংসার চালাতে হিমশিত খেতে হচ্ছে।

শহরের রিক্সা চালক সরোয়ার শেখ বলেন, সারাদিন রিক্সা চালিয়ে ৫ থেকে ৬০০টাকা আয় করি। সেখানে ২০০ টাকা যদি পেঁয়াজের পিছনে ব্যায় করতে হয়, তাহলে অন্যান্য বাজার সদাই কিনবো কি করে। আমরা বাঁচবো কি করে। ছেলে-মেয়েদের মুখে খাবার তো তুলে দিতে হবে। আমাদের তো বাঁচতে হবে।

বাগেরহাট জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খালিদ হোসেন জানান, ভারত রপ্তানি বন্ধের ঘোষণা দেয়ার পর হট্যাৎ করে সারাদেশের সাথে বাগেরহাটেও পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে। আমরা বাজার মনিটরিং করছি। রবিবার থেকে থেকে বাজারে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে অভিযান চালানো হবে।

(এসএসএ/এএস/ডিসেম্বর ০৯, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test