E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

ফরিদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১৪

১১ জনের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর

২০২৪ এপ্রিল ১৬ ১৫:৩৮:৩৭
১১ জনের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর

ফরিদপুর প্রতিনিধি : ফরিদপুরের শহরতলীতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১৪ জনের মধ্যে ১১ জনের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) দুপুর সোয়া ১টার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের শহরতলীর কানাইপুরের দিপনগর এলাকা থেকে তাদের মরদেহ হস্তান্তর করা হয়। এর আগে সকাল পৌনে ৮টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানিয়েছে, ময়নাতদন্ত ছাড়াই পরিবারের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে। দুপুর সোয়া ১টার দিকে অ্যাম্বুলেন্সে একে একে মরদেহ এসে পৌঁছায়। এরপর স্বজনদের আবেদনের ভিত্তিতে ময়নাতদন্ত ছাড়াই মরদেহ হস্তান্তর করা হয়। তবে এর আগে মরদেহের সুরতহাল প্রতিবেদন করা হয়।

এ দিকে এ দুর্ঘটনায় নিহত একই পরিবারের পাঁচজনের পরিচয় পাওয়া গেছে; তারা হলেন- রাকিব হোসেন, তার স্ত্রী সুমি বেগম (২৩) ও তাদের দুই সন্তান রোহান (৬) ও রায়হান হাবিব (৩) এবং রাকিবের মা হুরি। তাদের বাড়ি ফরিদপুরের বোয়ালমারীর বেজিডাঙ্গা গ্রামে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকালে ঢাকা থেকে যাত্রী নিয়ে উত্তরা ইউনিক পরিবহনের একটি বাস মাগুরা যাচ্ছিলো। পথে ফরিদপুরের কানাইপুরের দিপনগর এলাকায় পৌঁছালে বিপরীতদিক থেকে আসা পিকআপভ্যানের সঙ্গে ওই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে দুমড়ে-মুচড়ে যায় পিকআপভ্যানটি। এতে ঘটনাস্থলে পিকআপভ্যানের চালকসহ ১৩ যাত্রী নিহত হয়েছেন। স্থানীয় হাসপাতালে আরও একজনের মৃত্যু হয়। এ সময় আহত হন একজন। মালামালের জায়গায় যাত্রী বহন করছিলো ওই পিকআপভ্যানটি বলে জানান তারা।

এ তথ্য নিশ্চিত করে হাইওয়ে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহিনুল আলম বলেন, পিকআপভ্যানটি ভাড়া করে আলফাডাঙ্গা থেকে ফরিদপুর শহরে যাচ্ছিলেন যাত্রীরা। পথে মাগুরাগামী বাসের সঙ্গে ওই পিকআপভ্যানের মুখোমুখী সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলে ১৩ জনের মৃত্যু হয়। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থেকে আরও একজনের মৃত্যু হয়।

(ওএস/এসপি/এপ্রিল ১৬, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

২৯ মে ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test