E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

কাইকারটেক হাটে পরিত‍্যক্ত ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে কাজ করছেন শ্রমিকরা, দুর্ঘটনার আশঙ্কা

২০২৪ এপ্রিল ২১ ১৬:৩৯:০৩
কাইকারটেক হাটে পরিত‍্যক্ত ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে কাজ করছেন শ্রমিকরা, দুর্ঘটনার আশঙ্কা

মোঃ শান্ত, নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁ উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নে অবস্থিত কাইকারটেক হাটে প্রায় চল্লিশ বছর আগে তৈরি করা ঝুঁকিপূর্ণ সরকারি একটি গোডাউনে চলছে অবৈধ প্লাস্টিকের দানা তৈরির কারখানা। আর এতে পরিবেশ বিঘ্নিত হচ্ছে, জানমালের ক্ষতির সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

জানা যায়, এই ভবনটি সরকারি ভাবে পরিত‍্যক্ত ঘোষণা করা হয়েছে অনেক আগেই। তারপরও সেখানে সরকারি নির্দেশ অমান্য করে এক প্রকার প্রভাব দেখিয়ে অবৈধ ভাবে প্লাস্টিকের দানা তৈরি করে পরিবেশ নষ্ট করছে ইমরান খান নামের এক ব্যক্তি। আর ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ হওয়ায় যে কোন সময় ধ্বসে পরে জানমালের মারাত্মক ক্ষয়ক্ষতি হতে পারে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, পরিত‍্যাক্ত ও ঝুকিপূর্ন ভবনটির কঙ্কালসার দেহ,জায়গায় জায়গায় পলেস্তারা খুলে পড়েছে। তা দেখার পরও বেঁচে থাকার তাগিদে জীবনের ঝুঁকি নিয়েই কাজ করছে হতদরিদ্র কিছু মানুষ।

কারখানার মালিক ইমরান খান দাম্ভিকতার সহিত বলেন, আমি দশ বছরের জন্য উপজেলা প্রশাসন থেকে লিজ নিয়েছি। কাগজপত্র দেখাতে বললে টালবাহানা শুরু করেন,বলেন আসেন চা খান,একটু বসে কথা বলি! এলাকা বাসির দাবী অচিরেই ঝুঁকিপূর্ণ এই ভবনটিকে সীলগালা করতে হবে। অন্যথায় এর দায় ভার স্থানীয় প্রশাসনকেই নিতে হবে।

কারণ অবৈধ কারখানার মালিকের দাবী সে ভাড়ায় কাজ করছে। এই ভবনটির মালিক যেহেতু উপজেলা প্রশাসন, ঝুঁকিপূর্ণ ভবন কি ভাবে ঐ ব্যক্তির নিকট ভাড়া দিলো এই বিষয়টি স্পষ্ট করা। এই ভবন ও পরিবেশ দূষিত কারখানায় বিষয়ে ইউএনও সোনারগাঁকে প্রথমে মৌখিক ভাবে জানানো হয়। পরে ইউএনও বরাবর লিখিত ভাবে দরখাস্ত করেন পরিবেশ উন্নয়ন সোসাইটি। কিন্তু এখন পর্যন্ত অজানা কারনে তারা বদির হয়ে বসে আছেন, কোনো সাড়াশব্দ নাই। আর যাচাই না করেই কি ভাবে বিদ্যুৎ সংযোগ দিলো পল্লী বিদ্যুৎ তাও বোধগম্য নয়।

(এস/এসপি/এপ্রিল ২১, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

২৩ মে ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test