E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা

গোপালগঞ্জে পরাজিত প্রার্থীর কর্মী নিহতের ঘটনায় মামলা 

২০২৪ মে ১৭ ১৮:৫৯:৪৫
গোপালগঞ্জে পরাজিত প্রার্থীর কর্মী নিহতের ঘটনায় মামলা 

তুষার বিশ্বাস, গোপালগঞ্জ : গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় পরাজিত প্রার্থীর কর্মী নিহতের ঘটনায় গোপালগঞ্জ সদর থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

ঘটনার ৪৮ ঘণ্টা পর বৃহস্পতিবার (১৬ মে) রাতে নিহত ওসিকুর ভূইঁয়ার বোন পারুল বেগম বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেছেন।

গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে বিজয়ী চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান ভূঁইয়া লুটুলকে প্রধান আসামী ও তার ছোট ভাইয়ের শশুর (তালুই) কালু ভূঁইয়া, কালু ভূঁইয়ার ছেলে চয়ন ভূঁইয়া, সমর্থক হিদু ভূঁইয়া, ইউপি সদস্য হান্নান, মিনহাজ ভূঁইয়াসহ ২৩ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। মামলায় আরো ৪০ থেকে ৫০ জনকে অজ্ঞাত আসামী করা হয়েছে।

গোপালগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আনিচুর রহমান মামলা দায়েরের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে নিহত ওসিকুর ভূইঁয়ার বোন বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। ঘটনার পর থেকে আসামীরা পলাতক থাকার কারণে এ ঘটনায় জড়িত কাউকে এখন পর্যন্ত গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি। জড়িতদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

ওই কর্মকর্তা আরো বলেন, এ মামলার তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার গোপীনাথপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক আশরাফ হোসেনকে।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টায় গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার চন্দ্রদিঘলিয়া বাজারে গুলিতে ওসিকুরসহ ৬জন আহত হন। পরে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ওসিকুরকে মৃত ঘোষণা করে। নিহত ওসিকুর ভূঁইয়া (২৭) গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা চন্দ্রদিঘলিয়া গ্রামের জলিল ভূঁইয়ার ছেলে। তিনি পেশায় চা-বিক্রেতা ছিলেন। ওসিকুর সদ্য সমাপ্ত গোপালগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী বি এম লিয়াকত আলীর সমর্থক ছিলেন। আর হামলাকারীরা বিজয়ী প্রার্থী কামরুজ্জামান ভূঁইয়া লুটুলের সমর্থক ছিলেন।

হত্যার প্রতিবাদে ঘটনার পরের দিন বুধবার (১৫ মে) দুপুরে নিহত যুবকের লাশ নিয়ে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কে গোপালগঞ্জের চেচানিয়াকান্দি এলাকায় গাছের গুঁড়ি ফেলে টায়ার জ্বালিয়ে ঘন্টাব্যাপী মহাসড়ক অবরোধ করে লিয়াকত আলীর সমর্থক ও আওয়ালী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। আন্দোলনের দ্বিতীয় দিনে বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১ টায় গোপালগঞ্জের চন্দ্রদিঘলিয়া বাসস্ট্যান্ডে টায়ার জ্বালিয়ে ও গাছের গুড়ি ফেলে মহাসড়ক অবরোধ করে। দেড় ঘণ্টা পরে দুপুর ১ টায় গোপালগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিমের নির্দেশে আন্দোলনকারীরা অবরোধ তুলে নেয়। শনিবারের মধ্যে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও হত্যাকান্ডের সাথে জড়িতদের গ্রেপ্তার করা না হলে রবিবার (১৯ মে) বেলা ১১ টায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ঘেরাও কর্মসূচি পালন করবেন বলে জানান পরাজিত প্রার্থী বিএম লিয়াকত আলী।

(টিবি/এসপি/মে ১৭, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

১৯ জুন ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test