E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

টাঙ্গাইলের তিন উপজেলায় মাঠ-ঘাট চষে বেড়াচ্ছেন প্রার্থীরা

২০২৪ মে ১৮ ১৯:৩৪:৪২
টাঙ্গাইলের তিন উপজেলায় মাঠ-ঘাট চষে বেড়াচ্ছেন প্রার্থীরা

স্টাফ রিপোর্টার, টাঙ্গাইল : ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে টাঙ্গাইলের ঘাটাইল, কালিহাতী ও ভূঞাপুর উপজেলায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। জেলার এ তিন উপজেলায় আগামি ২১ মে (মঙ্গলবার) ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনী প্রচারণার শেষ মুহূর্তে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা নানা প্রতিশ্রুতির বন্যায় ভোটারদের মন জয় করার আপ্রাণ চেষ্টা করছেন।

কাকডাকা ভোর থেকে গভীর রাত পর্যন্ত ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ছুটছেন। পোস্টারে পোস্টারে ছেয়ে গেছে উপজেলা শহর, গ্রামের হাট-বাজার, অলিগলিসহ বিভিন্ন এলাকা ও পথ-প্রান্তর। প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ও তাদের কর্মী-সমর্থকরা প্রতিদিনই গণসংযোগের পাশাপাশি উঠান বৈঠক ও পথসভা করছেন। এক কথায় জমজমাট হয়ে উঠেছে উপজেলা পরিষদের নির্বাচনী প্রচারণা।

প্রচারণাকালে তিনটি উপজেলায়ই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা একে-অপরের বিরুদ্ধে বিষোদ্গার করছেন। এক প্রার্থী অপর প্রতিদ্বন্দ্বীর চৌদ্দগোষ্ঠীর আমলনানা তুলে ধরে ভোটারদের কাছে টানার চেষ্টা করছেন। নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘণের দায়ে কয়েক প্রার্থীকে জরিমানাও গুণতে হয়েছে।

১৪টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত ঘাটাইল উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি লোকমান হোসেন (মোটরসাইকেল) ও ছাত্রলীগের সাবেক নেতা মুহাম্মদ আরিফ হোসেন (আনারস) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

লোকমান হোসেনের পক্ষে উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীরা দলবদ্ধ হয়ে প্রচারণায় অংশ নিচ্ছেন। অপরদিকে, আরিফ হোসেনের পক্ষে স্থানীয় সংসদ সদস্যের সমর্থন রয়েছে। ফলে এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে ঘাটাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও সদ্য সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান কাজী আরজু (তালা), আতিকুর রহমান(চশমা), বিএনপি পরিবার থেকে আব্দুস ছালাম খান আওয়াল (টিউবওয়েল) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে সদ্য সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহীনা সুলতানা শিল্পী (সেলাই মেশিন), বিএনপি থেকে বহিষ্কৃত উপজেলা মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক তাসলিমা জেসমিন পাপিয়া (প্রজাপতি) এবং সাবেক ইউপি সদস্য নাজমুন নাহার নাজমা (কলসি) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এ উপজেলায় মোট ভোটার তিন লাখ ৬০ হাজার ৭৮১ জন। এর মধ্যে পুরুষ এক লাখ ৮১ হাজার ২৬৫ জন এবং মহিলা এক লাখ ৭৯ হাজার ৫১৪ জন। ১২০টি কেন্দ্রের ৮৭১টি কক্ষে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

কালিহাতী উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মূলত: আওয়ামীলীগের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে সিদ্দিকী পরিবার আবির্ভুত হয়েছে। জম্পেস লড়াই চলছে প্রচারণার মাঠে। টাঙ্গাইলের রাজনীতিতে আলোচিত সিদ্দিকী পরিবারের ভাইদের ছোটজন করটিয়া সা’দত কলেজের সাবেক ভিপি শামীম আল মনসুর (এসএএম) সিদ্দিকী ওরফে আজাদ সিদ্দিকী (আনারস) এবং আওয়ামী লীগের একক প্রার্থী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন মোল্লার (মোটরসাইকেল) নির্বাচনী লড়াই ভিন্ন মাত্রা পেয়েছে। এ উপজেলায় বাংড়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান হাসমত আলী নেতা (দোয়াত কলম) চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী থাকলেও তেমন প্রভাব দেখা যাচ্ছেনা।

সোহেল হাজারি, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মোজহারুল ইসলাম তালুকদার, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনসার আলী, জেলা আওয়ামী লীগের কৃষিবিষয়ক সম্পাদক আবু নাসেরসহ বিভিন্ন স্তরের নেতা-কর্মীরা আনোয়ার মোল্লাকে বিজয়ী করতে কাজ করছেন।

এ উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে পাঁচজন ও সংরক্ষিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে দুজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হচ্ছেন- উপজেলা পরিষদের বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান মো. আখতারুজ্জামান (টিউবওয়েল), মো. আব্দুল্যাহ সরকার(চশমা), মো. আব্দুল বারেক (উড়োজাহাজ), মো. মাহমুদুল হাসান দীপুল (তালা) ও জমীর উদ্দিন আমেরী (বই)।

সংরক্ষিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা পরিষদের বর্তমান মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রীনা পারভীন(প্রজাপতি) ও উপজেলা আওয়ামীলীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা ফাতেমা খাতুন বৃষ্টি(ফুটবল)।

১৩টি ইউনিয়ন ও দুইটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত কালিহাতী উপজেলায় ২০১৯ সালের গণনা অনুযায়ী মোট ভোটার তিন লাখ ১২ হাজার ১১২ জন। এরমধ্যে পুরুষ এক লাখ ৫৫ হাজার ৪০৫ জন এবং মহিলা এক লাখ ৫৬ হাজার ৭০৭ জন।

ভূঞাপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে পাঁচজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও গত ৮ মে (বুধবার) থেকে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ভূঞাপুর পৌর সভার সাবেক চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম তালুকদার বিদ্যুৎ (মোটরসাইকেল) ও উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক তাহেরুল ইসলাম তোতা (আনারস) নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। অপর তিন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ভোটারদের দ্বারে দ্বারে নানা কৌশলে ভোট প্রার্থণা করছেন।

তারা হচ্ছেন- বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা মহিলা লীগ নেত্রী মোছা. নার্গিস বেগম (দোয়াত কলম), আওয়ামী লীগ নেতা মো. ফিরোজ চৌধুরী (হেলিকপ্টার) ও উপজেলা বিএনপির বহিষ্কৃত সহ-সভাপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমান তালুকদার বাবলু (ঘোড়া)।

উপজেলার ৬টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান, তৃণমূলের আওয়ামী লীগ নেতা, বীর মুক্তিযোদ্ধারা মোছা. নার্গিস বেগমকে সমর্থন দেওয়ায় তিনি প্রায় ফুরফুরে মেজাজে রয়েছেন। তারপরও তাঁর প্রচারণা থেমে নেই। আওয়ামী লীগ নেতা মো. ফিরোজ চৌধুরী হেলিকপ্টার প্রতীক নিয়ে পৌরসভা সহ উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চল চষে বেড়াচ্ছেন।

উপজেলা বিএনপির বহিষ্কৃত সহ-সভাপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমান তালুকদার বাবলু ঘোড়া প্রতীকে প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পাড় করছেন। বিএনপি থেকে বহিষ্কৃত হওয়ায় তার জনপ্রিয়তায় কিছটিা ভাটা পরলেও ভোটারদের কাছে তিনি প্রিয়পাত্র।

ভূঞাপুর উপজেলায় পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান পদে খোরশেদ আলম (টিয়া পাখি), ওয়াজেদ আলী খান(মাইক), আরিফুল হক (টিউবওয়েল) ও মনিরুল ইসলাম (তালা) এবং সংরক্ষিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আলিফ নুর (প্রজাপতি), মঞ্জুয়ারা বেগম (পদ্মফুল), সাদিয়া আফরিন খানম (ফুটবল) ও হোসনে আরা বেবী (কলসী) নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।


৬টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত ভূঞাপুর উপজেলায় মোট ভোটার এক লাখ ৬৬ হাজার ৮৬৯ জন। এরমধ্যে পুরুষ ৮৪ হাজার ৬৯১ জন ও মহিলা ভোটার ৮২ হাজার ১৭৮ জন।

(এসএম/এসপি/মে ১৮, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

১৯ জুন ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test