E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

বোয়ালমারীতে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় বাড়িঘর ভাঙচুর-লুটপাট 

২০২৪ জুন ০৭ ১৯:০০:০১
বোয়ালমারীতে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় বাড়িঘর ভাঙচুর-লুটপাট 

কাজী হাসান ফিরোজ, বোয়ালমারী : ফরিদপুরের বোয়ালমারীতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় বীর মুক্তিযোদ্ধার বাড়িসহ কমপক্ষে ৮টি ঘর-বাড়ি ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার চতুল ইউনিয়নের বাইখির গ্রামের পূর্বপাড়ায় বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে আটটার দিকে এই ঘটনা ঘটে। 

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ সভাপতি এম এম মোশাররফ হোসেন মুশা মিয়ার সমর্থকদের ওপর পরাজিত প্রার্থী শরীফ সেলিমুজ্জামান লিটুর কর্মী-সমর্থকরা এ হামলা চালায় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনায় বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. নুরুল হক মিয়ার স্ত্রী কুলসুম বেগম ও মো. নুর ইসলাম শেখ বাদি হয়ে যথাক্রমে ৪৬ জন ও ৪১ জনের নাম উল্লেখপূর্বক শুক্রবার দুপুরে বোয়ালমারী থানায় পৃথক দুটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ৫ জুন অনুষ্ঠিত সাধারণ নির্বাচনে ঘোড়া প্রতীকের প্রার্থী শরীফ সেলিমুজ্জামান লিটুর সমর্থকগণ পরাজিত হয়ে বিজয়ী চেয়ারম্যান দোয়াত কলম প্রতীকের প্রার্থী এম এম মোশাররফ হোসেন মুশা মিয়ার সমর্থক মৃত বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. নুরুল হক মিয়ার স্ত্রী কুলসুম বেগম, নুরুল ইসলাম, রফিক শেখ, আলমগীর শেখের বাড়িসহ কমপক্ষে ৮টি বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় হামলাকারীরা বেশ কয়েকটি বাড়িতে লুটপাট চালিয়েছে বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। এতে প্রায় ত্রিশ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

হামলায় ক্ষতিগ্রস্থ নুর ইসলাম শেখর স্ত্রী ফজিলাতুন্নেছা বেগম বলেন, ঘোড়া প্রতীকের সমর্থক বাইখির গ্রামের আব্দুস সত্তার শেখের ছেলে আব্দুল্লাহ শেখ, একই গ্রামের মৃত হাকিম শেখের ছেলে লিয়াকত শেখ, ওমর শেখের ছেলে মনির শেখের নেতৃত্বে প্রায় শতাধিক দুর্বৃত্ত দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে রাতের আঁধারে হামলা চালায়। তারা দেশীয় অস্ত্র রামদা, রড, চাইনিজ কুড়াল, লাঠিসোঁটা নিয়ে বিভিন্ন ঘরবাড়ি পিটিয়ে ও কুপিয়ে ক্ষতিগ্রস্ত করে। এ সময় একটি পরিত্যক্ত ঘর সম্পন্ন ভেঙে ফেলে তারা। এসময় হামলাকারীদের ভয়ে পুরুষেরা বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে বেশ কয়েকটি বাড়িতে লুটপাট চালায় দুর্বৃত্তরা।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে থানা পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। রাতেই ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বোয়ালমারী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম। বর্তমানে গ্রামটিতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কেউ গ্রেফতার হয়নি।
এছাড়া উপজেলার সাতৈর ইউনিয়নের বেড়াদী গ্রামে পরাজিত প্রার্থী শরীফ সেলিমুজ্জামানের কয়েকজন সমর্থকের উপর হামলার ঘটনা ঘটেছে, এতে গ্রামটির আতিয়ার শেখের ছেলে আব্দুল্লাহ (৩৫) অদুত মোল্যার ছেলে সবুজ মোল্যা (৩০) ও হাসেম মোল্যার ছেলে ফারুক মোল্যা (৩৪) আহত হয়। তারা সকলেই বোয়ালমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নেয়। তবে দ্বিতীয় ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো অভিযোগ করেনি ভুক্তভোগীরা।

বোয়ালমারী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম বলেন - বর্তমান পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত পূর্বক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

(কেএফ/এসপি/জুন ০৭, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

২০ জুলাই ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test