E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

মসজিদে মাইকিং করে সংঘর্ষ, এক নারী নিহত

২০২৪ জুন ১২ ২০:০৯:৪৮
মসজিদে মাইকিং করে সংঘর্ষ, এক নারী নিহত

স্টাফ রিপোর্টার, টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলার স্থলবল্লা গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে বুধবার (১২ জুন) সকাল ১০টার দিকে মসজিদে মাইকিং করে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষে মনোয়ারা বেগম (৫০) নামে এক নারী নিহত এবং দুপক্ষের অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশ দুইজনকে আটক করেছে।

নিহত মনোয়ারা বেগম স্থলবল্লা উত্তরপাড়ার শওকত মিয়ার স্ত্রী। এ ঘটনার পর থেকে ওই এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। নিরাপত্তার স্বার্থে অতিরিক্ত পুলিশ ও ডিবি পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

আহতদের মধ্যে উত্তরপাড়ার ১০ জন ও দক্ষিণপাড়ার ৫ জনকে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে উত্তরপাড়ার মিনহাজ উদ্দিন (৩৭) ও বিল্লাল (৫৫) নামে দুইজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

স্থানীয়রা জানায়, বাসাইল উপজেলার কাশিল ইউনিয়নের স্থলবল্লা গ্রামের উত্তর পাড়া এবং দক্ষিণপাড়ার বাসিন্দাদের মধ্যে ওই সংঘর্ষ হয়। উত্তরপাড়ার শুকুর, জালাল, কালাম ও বিল্লালদের সঙ্গে একই গ্রামের দক্ষিণপাড়ার আনু, সেলিম, শফি, এনামুল হক ও রাসেলদের মধ্যে জমি নিয়ে প্রায় ২০ বছর ধরে বিরোধ চলছে।

ওই বিরোধের জের ধরে মঙ্গলবার(১১ জুন) বিকালে গরুর হাট থেকে ফেরার সময় উত্তরপাড়ার জহিরুল, আয়নাল, আলাল, মজিবর ও ঠান্ডুর পথরোধ করে দক্ষিণপাড়ার এনামুল হক, আনু, রাসেল, বাদল, সেলিম সানাউল্যা ও সানুসহ কয়েকজন। এসময় এনামুল হকসহ কয়েকজন মিলে উত্তরপাড়ার জহিরুলকে মারধর করে। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

ওই ঘটনার সূত্র ধরে বুধবার (১২ জুন) সকালে স্থানীয় মসজিদে মাইকিং করে দা, ফালা, টেটাসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে দক্ষিণপাড়ার লোকজন উত্তরপাড়ার আনোয়ারের বাড়িতে হামলা চালায়। এসময় উত্তরপাড়ার লোকজন প্রতিহত করতে গেলে দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে মাথায় দেশীয় অস্ত্রের আঘাতে মনোয়ারা বেগম নামে ওই নারীর মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় দুই পক্ষের অন্তত ২০ জন আহত হন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

নিহতের ছোট ভাই হেলাল উদ্দিন জানান, মঙ্গলবার বিকালে উত্তরপাড়ার জহিরুল, আয়নাল, আলাল, মজিবর ও ঠান্ডু গরুর হাট থেকে ফেলার পথে দক্ষিণপাড়ার এনামুল হক, আনু, রাসেল, বাদল, সেলিম, সানাউল্যা ও সানুসহ কয়েকজন মিলে তাদের পথরোধ করে।

এসময় তারা কয়েকজনকে মারধর করে। পরে বুধবার সকালে আবার দক্ষিণপাড়ার লোকজনই মসজিদে মাইকিং করে উত্তরপাড়ায় হামলা চালায়। তার বোন ওই ঝগড়া থামাতে গিয়ে মাথায় ফালার আঘাত পান। গুরুতর আহতাবস্থায় মনোয়ারাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। তিনিও মাথায় আঘাত পেয়েছেন।

বাসাইল থানার অফিসার ইসচার্জ(ওসি) মাজহারুল আমীন জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে একই গ্রামের দুই পাড়ার মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। নিহতের মরদেহ টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় দুপক্ষের কমপক্ষে ১৫ জন আহত হয়েছেন। এখনও কোন পক্ষই মামলা দায়ের করেনি। ওই ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুইজনকে আটক করা হয়েছে।

টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল পুলিশ বক্সের ইনচার্জ আতিকুর রহমান জানান, হাসপাতালে একজনের মরদেহ রয়েছে। আহতাবস্থায় কয়েকজনকে হাসপাতালে আনা হয়েছে। তাদের মধ্যে দুইজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

(এসএএম/এএস/জুন ১২, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

২২ জুলাই ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test