E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

সাতক্ষীরার শ্যামনগরে বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু, আহত ২

২০২৪ জুন ২০ ১৮:৪০:০৯
সাতক্ষীরার শ্যামনগরে বজ্রপাতে দুইজনের মৃত্যু, আহত ২

রঘুনাথ খাঁ, সাতক্ষীরা : বজ্রপাতে এক শিশুসহ দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এসময় আহত হয়েছে আরো দুইজন। আজ বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার নেবুবুনিয়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য বজলুর রহমানের  মৎস্য ঘেরের বাসায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- খুলনা জেলার কয়রা উপজেলার দক্ষিণ বেদকাশি ইউনিয়নের মাটিয়াভাঙা গ্রামের মোহাম্মদ আলী মাঝির ছেলে এনায়েত আলী (৪২) ও একই ইউনিয়নের ঘড়িলাল গ্রামের আল আমিন গাজীর ছেলে নাজমুল হোসেন (০৯)।

আহতরা হলেন- খুলনা জেলার কয়রা উপজেলার দক্ষিণ বেদকাশি ইউনিয়নের ঘড়িলাল গ্রামের মুসা গাজী(৬৫) ও মাটিয়াভাঙা গ্রামের মোস্তফা কামালের ছেলে মঈনুল গাজী (১৩)।

গাবুরা ইউপি সদস্য মশিউর রহমান ও দক্ষিণ বেদকাশি ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য দিদারুল ইসলাম জানান, বৃহষ্পতিবার সকালে নাজমুল হোসেন তার দাদা মুসা গাজীর সাথে সাতক্ষীরার শ্যামনগরের গাবুরা ইউনিয়নের পারশেমারী তার এক আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বৃষ্টি ও বজ্রপাত শুরু হলে তারা কপোতাক্ষ নদের তীরে গাবুরার নেবুবুনিয়ায় সাবেক ইউপি সদস্য বজলুর রহমানের মৎস্য ঘেরের বাসায় আশ্রয় নেয়। একইভাবে বৃহস্পতিবার সকালে এনায়েত আলী একই গ্রামের মঈনুলকে নিয়ে গাবুরার পারশেমারিতে তাদের এক আত্মীয়ের বাড়িতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বের হন। পথিমধ্যে দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বৃষ্টি ও বজ্রপাতের কারণে তারা নেববুনিয়ার সাবেক ইউপি সদস্য বজলুর রহমানের মৎস্য ঘেরের বাসায় আশ্রয় নেন। এ সময় হঠাৎ বজ্রপাতে ঘেরের বাসায় অবস্থান নেওয়া নাজমুল ও এনায়েত আলী মারা যান। আহত হন মুসা গাজী ও মঈনুল। আহতদের উদ্ধার করে স্থানীয় গ্রাম ডাক্তারের কাছে নেওয়া হয়।

শ্যামনগর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আবুল কালাম আজাদ জানান, গাবুরায় বজ্রপাতে দুইজন মারা যাওয়ার কথা তিনি শুনেছেন। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

(আরকে/এসপি/জুন ২০, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

১৪ জুলাই ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test