E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

অনেক প্রতিভার অধিকারী এমআররাজ এক সময়ের চলচ্চিত্র অভিনেতা

২০২৪ জুলাই ১০ ১৮:৪৭:৪১
অনেক প্রতিভার অধিকারী এমআররাজ এক সময়ের চলচ্চিত্র অভিনেতা

বিশ্বজিৎ সিংহ রায়, মহম্মদপুর : মাগুরার শালিখা উপজেলার এক পাখি ডাকা ছায়া ঘেরা মনোরম পরিবেশে নবগঙ্গা নদীর তীরে অবস্থিত গঙ্গারামপুর গ্রামের কৃতি সন্তান রাজ কুমার ভট্টাচার্য্য নাম থেকে চলচ্চিত্রে যার নাম এম আর রাজ। অনেক প্রতিভার অধিকারী। তাঁর পিতার নাম অজিত কুমার ভট্টাচার্য্য। এম আর রাজ তিনি কখনো অভিনয়, কখনো নিজের লেখা স্বরচিত কবিতা আবৃত্তি, এছাড়া এই গুণী মানুষটির ভুলিনি তোমায় নামের একটি গানের এ্যালবাম-২০১১ সনে বাজারে বের হয়। এ্যালবামটির সুর ও সঙ্গীত এম আর রাজ নিজেই। এই এ্যালবামে রয়েছে-১০ টি গান, যার প্রোপাইটার অজিত হালদার। 

এ বিষয়ে রাজ কুমার ভট্টাচার্য্য তিনি (এম আর রাজ) জানান, আমি কি ভাবে চলচ্চিত্র প্রবেশ করলাম।ছোট বেলায় আমাদের পার্শ্ববর্তী জেলা নড়াইল জেলায় চিত্রা সিনেমা হলে হঠাৎ করে "দোস্ত এন্ড দোস্ত" নামের একটি ছবিতে জসিমের অভিনয় দেখে এবং এই ছবির একটি গান চুমকি চলেছে একা পথে সঙ্গী হলে দোষ কি, গানটি শুনে আমি অভিনয়ের দিকে ঝুঁকে পড়ি। এলাকায় বিভিন্ন স্টেজ প্রোগ্রামে অভিনয় করলে প্রথমেই তার নাম উঠে আসে। পর্যায়ে ঢাকায় ১৯৯৮ সনে তৎকালীন সময়ে অগ্রণী ব্যাংকের সিনিয়ার ব্যাংক কর্মকর্তা মোঃ আলাউদ্দিন মিয়া, বাংলাদেশের জনপ্রিয় পরিচালক এফ আই মানিকের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন। এবং বিভিন্ন ছবিতে কখনো পুলিশ সার্জেন্ট, ফাইটিং গ্রুপে ভিলেনের সহযোগী চরিত্রে অভিনয় করেন। রোমিও ২০১৩ ছবিতে পরিচালক রাজু চৌধুরী এই ছবিতে এম আর রাজ পুলিশ সার্জেন্ট চরিত্রে অভিনয় করেছেন।

এম রাজ আরো জানান,,তাকে চলচ্চিত্রের বিভিন্ন ছবির পরিচালকদের সাথে পরিচয় করে দিয়েছিলেন তার চলচ্চিত্রের গুরু গরিব খায়ের সাহেব। বাংলাদেশ চলচ্চিত্রে সকল মোটরসাইকেল তিনি দেন। এবং বিভিন্ন সিন গুলো করান। চলচ্চিত্রের পাশাপাশি বাংলা একাডেমিতে তিনি "প্রথম জীবন" কবিতাটি আবৃত্তি করে প্রথম স্থান লাভ করেন। ২০১৭ সাল পর্যন্ত এফডিসির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। পরে মাগুরা শালিখা উপজেলার গঙ্গারামপুর নিজ গ্রামে ফিরে এসে বাড়ির সামনে রাজু মটরস নামের একটি ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করছেন।

এখনো তার সেই নেশা গান, কবিতা আবৃত্তি ও অভিনয় করতে দেখা যায় বিভিন্ন স্টেজ প্রোগ্রামে।প্রতিভার বিকাশ ঘটবেই তার এক অনন্য দৃষ্টান্ত এম আর রাজ। ৬ ভাই, ১ বোন, বাবা-মা ও স্ত্রী ও এক কন্যার জনক রাজ কুমার ভট্টাচার্য্য, ওরফে (এম আর রাজ)। তিনি বাকি জীবন বিনোদনের মধ্যেই কাটাতে চান এমনটা প্রত্যাশা তার।

(বিএস/এসপি/জুলাই ১০, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

২৫ জুলাই ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test