E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা

২০২১ অক্টোবর ২১ ১৮:৩০:১৮
সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা

নওগাঁ প্রতিনিধি : আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ এমপি বলেছেন, দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে, দেশে যখন সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি স্থিতি রয়েছে, তখন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ও সরকারকে বেকায়দায় ফেলার জন্য আজকে প্রতিবেশী দেশের সাথে আমাদের যে সম্পর্ক সেটিকে কালিমা লেপনের হীন উদ্দেশ্যে সারাদেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা করা হয়েছে। আমাদের সরকার দৃঢ়হাতে সেটি দমন করেছে। আওয়ামীলীগ সারাদেশে হিন্দু সম্প্রদায়ের পাশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষার জন্য অতন্ত্র প্রহরীর মতো কাজ করছে। তবে তাদের উদ্দেশ্য আরও এ ধরণের গন্ডগোল পাকানোর। তাই আওয়ামী নেতাকর্মীদের অনুরোধ জানাবো, দৃষ্কৃতকারীরা আপাতত নিবৃত হয়েছে মনে হলেও আমাদের সর্তক দৃষ্টি রাখতে হবে। কারণ তারা দেশে হানাহানির চেষ্টা চালিয়েছে, কিছুটা সফলও হয়েছে। আরও হানাহানির সৃষ্টি করার অপচেষ্টা চালাবে। তাই দলীয় নেতাকর্মীদেরকে হিন্দুু ও বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের পাশে থাকার জন্য আহবান জানান তিনি। তিনি বলেন,বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের প্রাণ হলো তৃণমুলের সংগঠন। আওয়ামীলীগকে যখন কেউ খোঁচা দেয় তখন আওয়ামীলীগ জ্বলে ওঠে। 

মন্ত্রী বলেন, দল পর পর তিন বার রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায়। এ কারণে এখন সবাই আওয়ামীলীগ হতে চায়। কিন্তু সবাই আওয়ামীলীগ হবার প্রয়োজন নাই। যারা অতীতে আমাদের বিরুদ্ধাচারণ করেছে এবং সমাজে যারা দৃষ্কৃতকারী হিসেবে পরিচিত তারা পিট বাঁচানো জন্য আওয়ামীলীগ করতে চায়। তারা তাদের সম্পদ রক্ষার জন্য আওয়ামীলীগ করতে চায়। তাদেরকে আওয়ামীলীগে যোগদানে প্রয়োজন নাই। যারা আওয়ামীলীগের দুঃসময়ে পার্শে ছিল তাদেরকে নেতৃত্বে নিয়ে আসতে হবে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলায় সরকারী এম এম কলেজ মাঠে উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে তথ্যমন্ত্রী ভার্চ্যয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথি হিসেবে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সরকারের খাদ্যমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা সাধন চন্দ্র মজুমদার এমপি। খাদ্যমন্ত্রী বলেন, গ্রামের নেতাকর্মীদের কারণে আওয়ামীলীগ টিকে রয়েছে। শেখ হাসিনার আমলে আওয়ামীলীগ, বিএনপি, জামায়াত, জাতীয়পার্টিসহ সকল দল উপকৃত হয়েছে। সম্প্রীতির বাংলাদেশ নিয়ে আমরা বেঁচে থাকতে চাই। আমাদের বেঁচে থাকার জন্য শেখ হাসিনাকে বেঁচে থাকতে হবে। বিকৃত ইতিহাস থেকে নতুন প্রজন্মকে সঠিক ইতিহাস শেখাতে হবে।

উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মো.দেলদার হোসেন সম্মেলনে সভাপ্রধান ছিলেন। উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শহীদুল ইসলামের সঞ্চলনায় সম্মেলনে বিশেষ অতিতি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক এসএম কামাল হোসেন, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক, মো.শহীদুজ্জামান সরকার বাবলু এমপি, ব্যারিষ্টার নিজাম উদ্দিন জলিল জন এমপি, আনোয়ার হোসেন হেলাল এমপি, কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সদস্য বরেন্দ্র বহুমুখী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আকতার জাহান, জয়পুরহাট জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান রকেট প্রমুখ।

সম্মেলনে উপজেলা আওয়ামীলীগের বর্তমান সভাপতি আলহাজ্ব দেলদার হোসেন ও বর্তমান সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শহীদুল ইসলামকে পুনরায় সভাপতি ও সম্পাদক হিসেবে ঘোষনা করা হয়।

(বিএস/এসপি/অক্টোবর ২১, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

২৯ নভেম্বর ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test