E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

‘বিএনপি কোথায় জনসমাবেশ করবে, এটা বিএনপির সিদ্ধান্ত’

২০২২ নভেম্বর ৩০ ১৯:৪০:৪৩
‘বিএনপি কোথায় জনসমাবেশ করবে, এটা বিএনপির সিদ্ধান্ত’

স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, সরকার আগুন সন্ত্রাসের কথা বলে নতুন করে ফাঁদ পাতছে। সরকারের এই ফাঁদে বিএনপি আর পা দেবে না। যতক্ষণ পর্যন্ত না এ সরকারের পতন হচ্ছে ততক্ষণ পর্যন্ত আন্দোলন চলবে।

বুধবার (৩০ নভেম্বর) বিকেলে সিলেট নগরের রেজিস্ট্রারি মাঠে মহানগর বিএনপি আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

পুলিশের মিথ্যা মামলা, গায়েবি হামলা, পুলিশি নির্যাতন ও গ্রেফতারের প্রতিবাদে অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সিলেট মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুল কাইয়ুম জালালী পংকী।

আমীর খসরু বলেন, ‘জনরোষের ভয়ে সরকার রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে টিকে থাকতে চায়। এজন্য হত্যা, নির্যাতন, হামলা, মামলার পথ বেঁচে নিয়েছে। চলমান আন্দোলনে আমাদের ১১ জন নেতাকর্মীকে হত্যা করা হয়েছে। সরকার আগুন সন্ত্রাসের হুমকি দিচ্ছে, যাতে কিনা আওয়ামী লীগ অভ্যস্ত। আমরা বলতে চাই বিএনপির নেতৃত্বে জনগণ আজ মাঠে নেমে এসেছে। এই আওয়ামী লীগের সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে জনগণই আমাদের অস্ত্র।’

১০ ডিসেম্বর নয়াপল্টনে সমাবেশের অনুমতি না পাওয়ার প্রসঙ্গ উল্লেখ করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, ‘বিএনপি কোথায় জনসমাবেশ করবে, এটা বিএনপির সিদ্ধান্ত; এতে কারও অনুমতির প্রয়োজন নেই। কোনো বাধা বা অবরোধ দিয়ে সমাবেশ ঠেকানো যাবে না।’

তিনি বলেন, ‘এবার কোনো বাধাই কাজে আসবে না। বিএনপির পক্ষে গণজোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। গণজোয়ারের ভয়ে সরকার ভীত হয়ে পড়েছে।’

মহানগর বিএনপির সদস্যসচিব মিফতাহ সিদ্দিকীর সঞ্চালনায় সমাবেশে প্রধান বক্তার বক্তব্য দেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা খন্দকার আব্দুল মুক্তাদির।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ড. এনামুল হক চৌধুরী, বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. সাখওয়াত হোসেন জীবন, বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য হাদিয়া চৌধুরী মুন্নী, জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক এমরান আহমদ চৌধুরী।

পরে একটি বিক্ষোভ মিছিলে অংশ নেন বিএনপি নেতাকর্মীরা।

(ওএস/এএস/নভেম্বর ৩০, ২০২২)

পাঠকের মতামত:

৩১ জানুয়ারি ২০২৩

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test