E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

বিএনপি কর্মীদের ওপর মামলা বনাম অপরাধীর বিরুদ্ধে মামলা

২০২৪ এপ্রিল ২২ ১৫:৪৯:৩৯
বিএনপি কর্মীদের ওপর মামলা বনাম অপরাধীর বিরুদ্ধে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার : যখনই বিএনপির কোনো সংবাদ সম্মেলন হয় সেখানে হাজার থেকে লক্ষ কর্মীর বিরুদ্ধে মামলার হিসেব দিয়ে থাকেন নেতারা। যদিও তাদের বিরুদ্ধে মামলা পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, এসবই কোনো না কোনো অপরাধের কারণে হওয়া মামলা, এগুলোকে রাজনৈতিক মামলা দাবি করা যুক্তিসঙ্গত নয়।

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা বাংলাদেশ কৃষক লীগের ৫২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে বলেছেন, বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়ের কোনো মামলাই রাজনৈতিক নয়। অগ্নিসংযোগ, গ্রেনেড হামলা, আগ্নেয়াস্ত্র চোরাচালান ও দুর্নীতির মতো সুনির্দিষ্ট ফৌজদারি মামলায় অভিযুক্তরাই এ সংক্রান্ত মামলার আসামি হয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আজকে তারা (বিএনপি) সব জায়গায় কান্নাকাটি করে বলছে তাদের বিরুদ্ধে মামলা। তাদের জিজ্ঞেস করতে হবে মামলাগুলো কিসের মামলা? অগ্নিসন্ত্রাস, অস্ত্রপাচার, গ্রেনেড হামলাসহ বিভিন্ন অপরাধের মামলা। তারা অপরাধ করেছে, তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সেটাই তো বাস্তবতা।’

বিএনপির পক্ষ থেকে বারবার বলা হয়, ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর এ পর্যন্ত ১ লাখ ১২ হাজারের মতো মামলা হয়েছে। এতে আসামি প্রায় ৪০ লাখ। বেশিরভাগ মামলার চার্জশিট জমা দেওয়া হয়েছে। এরসঙ্গে সচল হচ্ছে ওয়ান-ইলেভেন ও পরবর্তী সময়ে সিনিয়র নেতাদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত দুর্নীতির পুরোনো মামলা।

এর আগে, ‘এ সরকারের আমলে বিএনপি’র ৮০ ভাগ নেতাকর্মী নিগৃহীত হয়েছে’- বিএনপি মহাসচিবের এমন বক্তব্যের কড়া প্রতিবাদ জানিয়ে গত ২৯শে মার্চ আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের কাছে বিএনপি’র নিগৃহীত নেতাকর্মীদের তালিকা চান।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপির কোনও নেতা কিংবা কর্মীর বিরুদ্ধে কোনও রাজনৈতিক মামলা দেওয়া হয় না। তাদের বিরুদ্ধে যে মামলাগুলো হয়েছে, সেগুলো গাড়ি পোড়ানোর মামলা, পুলিশের এবং মানুষের উপর হামলার মামলা এবং সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের মামলা। এই সমস্ত মামলায় তারা গ্রেফতার হয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা বিচারাধীন আছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে প্রতিদিন কয়েক হাজার মানুষ চুরি-ডাকাতি-ছিনতাই, রাহাজানিসহ অন্যান্য সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের অপরাধে গ্রেফতার হয়। বিএনপি নেতা মির্জা ফখরুল ও রিজভী সাহেবরা গ্রেফতারের যে হিসাব দিচ্ছেন, তাতে মনে হচ্ছে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডেযুক্ত যারা প্রতিদিন গ্রেফতার হচ্ছে, পুলিশের খাতায় যারা অপরাধী, তাদেরকে বিএনপির কর্মী বলে দাবি করছে।

রাজনৈতিক বিশ্লেষক সুভাষ সিংহ রায় মনে করেন বিএনপির নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের সংখ্যা নিয়ে বারবার যা বলা হয় তা চ্যালেঞ্জ করার সময় এসেছে। যেকোন রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে যখন হামলা, অরাজকতা চালানো হয় তখন যাদের গ্রেফতার করা হয় তারা ওই অপরাধের কারণে গ্রেফতার হন, কোন দলের নেতাকর্মী বলে গ্রেফতার করা হয় এমন অযৌক্তিক কথার কোন মানে হয় না।

(ওএস/এসপি/এপ্রিল ২২, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

২০ মে ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test