E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

আরিফুল ইসলাম’র দুটি কবিতা 

২০২০ জুলাই ৩১ ১৭:১৩:০১
আরিফুল ইসলাম’র দুটি কবিতা 







 

জাগ্রত হুংকার

রাজপথে আপনাকে বেমানান বেমানান।
যেখানে রাজ্য আপনাকে দিচ্ছে ডাক,
সেখানে রাজপথ আবার নিপাক যাক।

৭১ নয়, এবার চাই ঐক্যবদ্ধতার
চাই না ঘুষখোর আমলা লম্পট ডাক্তার
চাই না চোর আর রাজাকারে সরকার
চাই এবার মোদের নবাব সিরাজের বাংলার

চাইনা ১০হাজারে বালিশ কিনা
চাইনা ২.৫কোটিতে সাইট বানানা
চাইনা ডুপ্লক্সে আর বিলাসিতার
চাইনা গাড়ি বহরে সন্ত্রাসে আর

অনেক হলতো মারামারি আর খুনাখুন
চলুন আবার মিলে দেই সেই সাম্যর ডাক
চলুন এবার ডাকি ভাই ভাই
দেই আবার অসম্প্রদায়িক ও মানবতার হংহকার

দরকার নেই ভারত-পাকিস্কান-যুক্তরাষ্ট্য-যুক্তরাজ্য সরকারের দান
মোদের কি নেই সেই মুজিব সেই নবাব সিরাজের অহংকার
শুধু কি আছে মিরজাফর মোস্তাক খন্দকার
যদি থাকে মুজিব ভাষানি আর সূর্য সেনের অহংকার
তাহলে দেখাও আবার বাংলার সেই জাগ্রত হুংকার

দরকার এবার গরিব বান্ধন সরকার
আর রাজস হউক জনগণের দরকার
মৌলিক অধিকার পাঠ্য বিষয় নয়, রুপ হউক তার বাস্তবতার
গরিব-ধনী হিন্দু-মুসলিন নর-নারী নেই বেধাবেদ আর
কারণ এবার বাঙালির জাগা দরকার

বুঝিনা কে সরকার কে আমলা কে নেতা
তাকে আমাদের দরকার
কারণ বাঙালির এবার জাগরণ দরকার
কৃষি কারিগরি স্বাস্থ্য উন্নয়ন দরকার
কারণ উৎপাদনমুখী হওয়া জনগণের দরকার

জমিদারের ছেলে নেতার ছেলে নেতা
নেই আর দরকার
এবার হউক জাগরণ বাঙালির আবার
নেই দন্ধ হিন্দু মুসলিমে নেই দন্ধ ধণি গরিবে
সবার মন খুলে দেখ এবার, বিরাজমান মুহাম্মদ কৃনষ জিসু সাই বৌদ সবার

কোরআনে আছে জমিনে নেই, গিতায় আছে অনুসরণে নেই, পোরানে আছে আমলে নেই
সকল ধর্ম গ্রন্থে আছে মোদের বাস্তবায়নে নেই
হা নেই...কিছুতেই নেই...
নেই ঐক্যবদ্ধতা...নেই মানবতা...নেই শান্তির কায়েম, নেই বাচার মত বাচার চেষ্টা।
আজ চিৎকার করে বলতে ইচ্ছে করে পৃথিবীতে যেন সকলে জেন্ত লাশ, হা জেন্ত লাশ

না মানিলে এই জাগ্রত হুংকার
সবিতো বেমানান বেমানান।

বাস্তবতার চোয়া

বাস্তবতার চোয়া দিয়ে,
বলছি গল্প একে একে
রাগ যদি ভাই করস হেসে
করবি ত মাফ বন্ধু সেজে

ভালবাসা ভালবেসে
তরুণী গেল অন্ধ দেশে
মরছে শিশু, মারছে কে
হচ্ছে ধর্ষণ, করছে কে
মরছে মানুষ, গরুর ভেশে
বাচাও গরু, মানুষ মেরে
আজ গেল হেরে মানবতা
জিতে ধর্ম-কর্ম রাজপথে

মাদক মুক্ত দেশ গড়ে
লাভ হবে কি তুর বেশ করে
ওরে পাগল যা মরে
শান্তির পথ ত আর নেই রে
ধর্ম যখন ব্যবসা করে
মানুষ তখন লাশঘরে

শহিদি বাবরি মসজিদ
মায়ানমারে মুসলিম
পাকিস্তানে হিন্দু মরে
চীনে বাজায় দিয়ে বিষ
শান্তি যখন বাংলাদেশে
পাগল তুর কেন মন কান্দে

বেকার যুবকে মাতাল হয়ে
দেখা হবে কি রাজপথে
উগ্রবাদে মিচিল দরে
শান্তি নিবো মেরে কেরে
আদম শিশু মরলো পরে
হাবিল কাবিল যুদ্ধ লেগে

ইয়াজিদি সেনা মারলো কারো?
মুসলমানের লেবাস বেশে
অনন্তকাল থাকবে তারা
মুহাম্মদের উন্মত সেজে।
ব্যর্থ তারা যুদ্ধে জিতে,
তান্ডব তাদের মন করে

মরছে মানুষ যা দেখে,
গল্প গুজবে সব পেশে
শান্তি ক্লান্তি সব শেষে,
হাসছস কি তুই মানব ভেশে
আসলে যে তুই রাক্ষসে,
আমার তুলি তাই আখে

যুদ্ধ যদি লাগে শেষে
সিন্ধু হিন্দু একাকারে
করিয়ে দেই মনে তুরে
পান্ডব আর কৃষ্ণ ভেশে
কারবালা না হয় মানিস নারে
ভেবে দেখিস জিতছে কেরে
ইতিহাসের পাতা ছিড়ে
বলছি তুরে অনুরোধে

পাঠকের মতামত:

০৮ আগস্ট ২০২০

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test