Occasion Banner
E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

স্বাক্ষী লেক

২০২১ জুলাই ০৭ ১৮:৪৮:০৮
স্বাক্ষী লেক








 

পারভীন আক্তার

নীলে নীলে আকাশ ছেয়ে আছে,সবুজ শ্যামলে চারিপাশ, লেকের জল গুলো আলোতে কি সুন্দর দেখাচ্ছে তাই না নীলা?
আকাশ - নীলা চলো আজ দু জনে হারিয়ে যাই,যেই দিকে চোখ যায়? আমাদের ভালোবাসা মনে হয় এই দুনিয়ার মানুষ ভালো চোখে দেখবে না।

নীলা- পালিয়ে যাবে টা কই? বাঁঁচতে তো হবেই এই সমাজেই,এই দেশে।তোমার বা আমার এতো টাকা নেই যা দিয়ে আমরা অন্য দেশে চলে যাবো,আজ না হোক কাল আমাদের পরিবার খুঁজে বের করবেই, পরিনামে কিন্তু মৃত্যু অনিবার্য।

আকাশ - আমি মানুষ এর চেয়ে বড় কি আর আছে?
ভালো জব করি,তোমাকে খাওয়াতে পরাতে কোন কষ্ট হবে না। চলো পালিয়ে বিয়ে করি।

নীলা- আমি বাসায় বলি শেষ চেষ্টা করি দেখি কি হয়? তারপর না হয় পালিয়ে যাবো।

আকাশ- আমি সব ঠিক করছি,তুমি যা বলবে তাই করবো। আমি অপেক্ষায় থাকবো।

নীল- একটি কথা শোন? আমি কল না করলে কল করবে না,বাসায় অন্য কেউ ধরলে প্রবলেম আছে।

আগামী কাল বিকেল ৫ টায় আমি এই লেকের পাশেই আসবো,তুমি অপেক্ষা করো।

আকাশ, নীলার হাত দুটি ছুঁয়ে দেয়। আর বলে আমি কিন্তু তোমার অপেক্ষায় থাকবো নীলা...

১০ বছর পর

আকাশ লেকের পাশে বসে ভাবছে এতো সুন্দর পৃতিবীতে
এতো নোংরা মনের মানুষ বসবাস করে কি করে?

পাশ থেকেই বাবা,বাবা,বলে পিচ্চি একটা কিউট বেবি এগিয়ে আসে ৩ বছর বয়সী। সাথে তার মা হাত ধরে নিয়ে আসছে,আকাশ বলে আসছো মা, মনি,

পাশ থেকেই এই আকাশ, আকাশ বলেই এই একজন চিৎকার করছে, আকাশ পিছন ফিরেই অবাক হয়ে দেখলো, কাকে দেখছে সে?

এতো নীলা, সে এক বাচ্চা ছেলের পিছনে দৌড়াচ্ছে,
কিন্তু এই নীলা তো অন্য রকম লাগছে,কপালে লাল টিপ,মাথায় সিঁদুর,হাতে শাখা,পলা,।

নীলা ছুটতে ছুটতে আকাশের সামনে এসে দাঁড়ালো,
আকাশ তুমি এখানে?

- কেন এখানেই তো থাকতে বলেছিলে,তো তুমি তো আসার কথা না,তুমি এখানে?

আকাশ আর নীলার কথা শুনে বর্ষা সরে যাচ্ছিলো, আকাশ ডাক দিয়ে বলে তুমি কোথাও যাবে না। এখানে থাকো,পরিচয় করিয়ে দেই
এই সেই নীলা যার নামে আমার মেয়ের নাম।
আদাব নীলা আপু.
নীলা - মাথা ঝাঁকায় । পিছনে নীলার স্বামী তাকে পরিচয় করিয়ে দেয় আকাশের সামনে,রুদ্র এই সেই আকাশ যার নামে আমাদের ছেলের নাম।

আকাশ এর কাছে গিয়ে হাত বাড়ালো রুদ্র, আকাশ উঠতে যাবে তখন বর্ষা বেঞ্চের কাছে রাখা হাতের
ওয়াকিং স্টিকটা হাত বাড়িয়ে দিলো।নীলা বলো এ কি আকাশ তোমার এই অবস্থা?

আকাশ - এটা ভালোবাসার উপহার ১০ বছর আগের যা তোমার বড় ভাই দিয়েছিলো। যার কারনে সেদিন ৫ টায় পৌছাতে পারি নাই। আর তুমি তো বলেছিলে কল না দিতে।
তুমি তো পারতে খোঁজ নিতে?দিব্বি তো ভালো আছো।

আকাশ - ভালো তো সবাই বাসে,কার ভালোবাসা সত্যি তা কি বুঝা যায়?তাই না? দেবর্ষি চক্রবর্তী নীলা।

নীলা- ঠিক তাই মোঃ আশরাফুল হোসেন আবির।

মেয়ে হলে বুঝতে কত কিছু যে ত্যাগ করে হাসি মুখে বলতে হয় হ্যাঁ ভালো আছি...

পাঠকের মতামত:

৩১ জুলাই ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test