E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

বৃহস্পতিবার থেকে বাপা ফুডপ্রো ইন্টারন্যাশনাল এক্সপো

২০২৩ সেপ্টেম্বর ২৬ ১৩:৩৭:৩২
বৃহস্পতিবার থেকে বাপা ফুডপ্রো ইন্টারন্যাশনাল এক্সপো

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশ এগ্রো প্রসেসরস অ্যাসোসিয়েশন (বাপা) ও রেইনবো এক্সিবিশন অ্যান্ড ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট সার্ভিসেস (রিমন)-এর উদ্যোগে বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হতে যাচ্ছে ৯ম বাপা ফুডপ্রো ইন্টারন্যাশনাল এক্সপো ২০২৩।


আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র বসুন্ধরায় তিনদিনের এ মেলা চলবে শনিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) পর্যন্ত।

মঙ্গলবার রাজধানীর পল্টনে ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরামের মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, এ মেলা উদ্বোধন করবেন শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন। মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টায় শুরু হয়ে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

এ মেলায় প্রদর্শনী ছাড়াও কারিগরি সেশনে দেশি-বিদেশি বিশেষজ্ঞরা উপস্থিত থাকবেন। বাংলাদেশের পাশাপাশি ভারত, থাইল্যান্ড, দক্ষিণ কোরিয়া, তাইওয়ান, চীন, জার্মানি, সিঙ্গাপুর, জাপান, নেদারল্যান্ডস, তুরস্ক, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, বেলজিয়াম, সুইজারল্যান্ড, ইতালি, কানাডা, ফ্রান্স, ডেনমার্ক, পোল্যান্ড এবং শ্রীলঙ্কাসহ ২০টির বেশি দেশ থেকে দুই শতাধিক প্রতিষ্ঠান নিজেদের পণ্য এবং সেবা প্রদর্শন করবেন।

এ মেলার সঙ্গে ১১তম এগ্রো বাংলাদেশ এক্সপো ২০২৩ এবং ইনডিয়েন্ট এক্সপো ২০২৩ নামে আরও দুটি মেলা অনুষ্ঠিত হবে। ২০১৫ সাল থেকে এসব মেলার আয়োজন করে আসছে বাপা।

সংবাদ সম্মেলনে মেলা কমিটির চেয়ারপারসন, প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের চেয়ারম্যান ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান খান চৌধুরী বলেন, আমাদের দেশের কৃষি প্রক্রিয়াজাত খাত অত্যন্ত ভালো করছে। এ খাত দেশে খাদ্য নিরাপত্তা নিয়ে যেমন কাজ করছে, তেমন বিদেশে পণ্য রপ্তানি করে প্রচুর বৈদেশিক মুদ্রাও অর্জন করছে। যা এ দেশের অর্থনীতিকে সমৃদ্ধ করেছে। এ আয়োজনের মাধ্যমে কৃষি প্রক্রিয়াজাত খাত আমাদের সক্ষমতাকে বিশ্বের সামনে তুলে ধরতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

তিনি বলেন, এ দেশের গার্মেন্টস সেক্টরে দুই শতাধিক বিদেশি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। তাদের প্রতিনিধিরা আমাদের এসব প্রদর্শনীতে আসবেন। আমরা চাই বিদেশি প্রতিষ্ঠানগুলো খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ খাতে তাদের বিনিয়োগ বৃদ্ধি করুক। বাংলাদেশে প্রক্রিয়াজাত খাদ্য বিশ্বের ১৪০টিরও বেশি দেশে রপ্তানি হচ্ছে। ২০২৫ সালের মধ্যে এ রপ্তানির পরিমাণ ২ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে উন্নীত করতে আমরা কাজ করছি।

বাপার সাধারণ সম্পাদক মো. ইকতাদুল হক বলেন, বাপা শুরু থেকেই ফুড প্রসেসিং খাতের উন্নয়নের স্বার্থে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। বাপার মূল লক্ষ্যই হলো এ খাতের ক্রমবর্ধমান বিকাশ নিশ্চিত করা এবং আন্তর্জাতিক পর্যায়ে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাওয়া। ফুড প্রসেসিং খাত এবং এরসঙ্গে জড়িত সব প্রতিষ্ঠানের বিকাশ ও সার্বিক সমন্বয় নিশ্চিত করার মাধ্যমে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন আরও বেগবান হবে।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের খাদ্য প্রক্রিয়াজাত খাতকে আন্তর্জাতিক মানে নিয়ে যেতে এ ধরনের মেলা সক্রিয় ভূমিকা পালন করবে বলে বাপা আশাবাদী।

সংবাদ সম্মেলনে বাপার কার্যনির্বাহী কমিটির সহ-সভাপতি আব্দুল মাজেদ, সদস্য নাজমুল হক, রেইনবো এক্সিবিশন অ্যান্ড ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট সার্ভিসেস লিমিটেড-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক চানমোহন সাহাসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

(ওএস/এএস/সেপ্টেম্বর ২৬, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

২১ জুলাই ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test