E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

ট্রাম্প আপিল করেছেন, বাইডেন রেগে গেছেন 

২০২৪ ফেব্রুয়ারি ১৫ ১৬:৩৮:৫১
ট্রাম্প আপিল করেছেন, বাইডেন রেগে গেছেন 

শিতাংশু গুহ


নিন্ম আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে (আপিল বিভাগ) ট্রাম্প সোমবার ১২ই ফেব্রুয়ারি ২০২৪ সুপ্রিমকোর্টে আপিল করেছেন। তার আর্জি ৬ই জানুয়ারি (২০২০) মামলা স্থগিত রাখা হোক, কারণ তাঁর পুনঃনির্বাচনের জন্যে এটি মারাত্মক বিঘ্ন সৃষ্টি করছে। তার আইনজীবী বলছেন, প্রেসিডেন্ট থাকাকালীন কর্মকান্ডের জন্যে যদি ফৌজদারি মামলা চলে তাহলে আমরা এখন যে প্রেসিডেন্সি দেখছি তা আর থাকবে না। কারণ প্রেসিডেন্টরা অফিস ছাড়ার পর মামলার ভয়ে থাকবেন। উল্লেখ্য, আপিল বিভাগ ইতোপূর্বে রায়ে বলেছে, সাবেক প্রেসিডেন্ট বিচারের উর্দ্ধে নন, তার বিচার চলতে পারে। একই দিন ট্রাম্প ফ্লোরিডায় ক্লাসিফাইড ডক্যুমেন্ট সংক্রান্ত অপর একটি ফৌজদারি মামলায় হাজিরা দেন।  

প্রেসিডেন্ট বাইডেন ভীষণ রেগে গেছেন। ক্লাসিফাইড ডক্যুমেন্ট অযত্নে-অবহেলায় রাখার বিষয়ে তদন্তকারী স্পেশাল কৌঁসুলি রবার্ট হুড় প্রেসিডেন্ট বাইডেনের বিরুদ্ধে ফৌজদারি মামলার সুপারিশ না করার কারণ হিসাবে বলেছেন যে, স্মৃতিশক্তি কমে যাওয়া ৮১ বছরের একজন বৃদ্ধকে কাঠগড়ায় দাঁড় করানোটা ঠিক হবেনা। ব্যস, বাইডেন রেগে আগুন। প্রেসিডেন্ট এটি প্রত্যাখ্যান করেন এবং তার স্মৃতিশক্তি যে লোপ পাচ্ছেনা, সেটি প্রমানে সচেষ্ট হ’ন। সমস্যা হচ্ছে, এর অব্যবহতি পরেই এক ভাষণে তিনি মিশরের প্রেসিডেন্ট আব্দেল ফাত্তাহ আল-শিশি-কে মেক্সিকো’র প্রেসিডেন্ট বলে উল্লেখ করেন।

কৌঁসুলি রবার্ট হুড় অক্টবর ২০২৩-এ হোয়াইট হাউসে প্রেসিডেন্ট বাইডেনের সাথে কথা বলেন, সবাই এটিকে সাধারণ একটি বৈঠক হিসাবেই ধরে নিয়েছেন। সেই বৈঠকের সূত্র ধরেই কৌঁসুলি রবার্ট হুড়’র মন্তব্যে এখন বাইডেন শিবির উৎকণ্ঠিত। প্রশ্ন হচ্ছে, ডেমক্রেটরা কি চাইলে বাইডেন-কে বাদ দিয়ে অন্য কাউকে মনোনয়ন দিতে পারে? উত্তর হচ্ছে, সেটি একরকম অসম্ভব। বাইডেনের ক্যাম্পেইন মুখপাত্র ড্যানিয়েল ওয়েসেল এনবিসিকে বলেছেন, ডেমক্রেট দল বাইডেনের পেছনে ঐক্যবদ্ধ। বাইডেনই দলীয় প্রার্থী হবেন এবং নভেম্বরে ট্রাম্পকে দ্বিতীয়বারের মত হারাবেন।

বাইডেনের বয়স ছাড়াও ডেমক্রেটরা থার্ড পার্টি প্রার্থী রবার্ট এফ কেনেডি, কর্নেল ওয়েষ্ট ও জিল ষ্টেন-কে নিয়ে চিন্তিত, কারণ মূলতঃ এঁরা ডেমক্রেট হিসাবে পরিচিত, এবং বাইডেনের ভোটে ভাগ বসাবেন। বাইডেন-ট্রাম্প সরাসরি ফাইটে ট্রাম্প প্রায় সকল জরিপে বাইডেন থেকে সামান্য ব্যবধানে এগিয়ে, নির্দলীয় ও থার্ডপার্টি প্রার্থী থাকলে ট্রাম্প সহজে জিতবেন। ট্রাম্পের জন্যে ভালো সংবাদ হচ্ছে সুপ্রিমকোর্ট ইঙ্গিত দিয়েছে যে, কলোরাডো সুপ্রিমকোর্টের রায় টিকছে না, এবং ট্রাম্প ব্যালটে থাকবেন। চূড়ান্ত রায়ের পর এটি প্রায় সবক’টি রাজ্যে প্রযোজ্য হবে।

বৃহস্পতিবার ৮ই ফেব্রুয়ারি ২০২৪, নেভাদা ককাসে ট্রাম্প ৯৯.১% ভোটে জয়ী হয়েছেন, এবং সবগুলো (২৬) ডেলিগেট পেয়েছেন। তাঁর প্রতিদ্ধন্ধী রায়ান বিঙ্কলি পেয়েছে ০.৯% ভোট। নিকি হেলি এখানে প্রার্থী ছিলেন না। যুক্তরাষ্ট্রে মূলত: প্রধান দুইটি দল ডেমোক্রেটিক পার্টি এবং রিপাবলিকান পার্টি থেকে কেউ একজন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়ে থাকেন। প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হ’ন চার বছরের জন্যে। জনগণের সরাসরি ভোটে মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হ’ন না? তিনি নির্বাচিত হ’ন, ইলেকটোরাল ভোটে। ৫৩৮টি ইলেকটোরাল ভোট আছে, এরমধ্যে যিনি ২৭০টি ভোট পান, তিনি নির্বাচিত হন। এজন্যে ২৭০-কে ম্যাজিক নাম্বার বলা হয়!

জনসংখ্যা অনুযায়ী প্রতিটি ষ্টেটের কিছু ইলেকটোরাল ভোট থাকে। যেই প্রার্থী যেই ষ্টেটে জয়ী হ’ন তিনি সেই ষ্টেটের সবগুলো ইলেকটোরাল পান। তবে মেইন ও নেব্রাস্কায় ইলেকটোরাল ভোট ভাগাভাগি হয়ে থাকে। মেইনে ৪টি এবং নেব্রাস্কায় ৫টি ইলেকটোরাল ভোট রয়েছে। ইলেকটোরাল ভোট-ব্যবস্থার কারণে সাম্প্রতিক সময়ে আল গোর এবং হিলারী ক্লিন্টন পপুলার ভোটে জিতেও প্রেসিডেন্ট হতে পারেননি। অর্থাৎ নির্বাচনটি জাতীয় পর্যায়ে হলেও সিদ্ধান্ত হয় ষ্টেট পর্যায়ে। ছোট-বড় সকল ষ্টেটের সমান গুরুত্ব বহাল রাখতে মার্কিন রাষ্টের প্রতিষ্ঠাতারা এ ব্যবস্থাটি করে গেছেন। একই ভাবে এবং একই কারণে প্রতি ষ্টেট থেকে ২জন সিনেটর নির্বাচিত হয়ে থাকেন।

১০/১২টি ষ্টেট ব্যাতিত প্রায় সকল ষ্টেট মূলত: ডেমক্রেট বা রিপাবলিকান শিবিরভুক্ত। ঐ ১০/১২টি ষ্টেটকে ‘ব্যাটলগ্রাউন্ড ষ্টেট’ বলা হয়ে থাকে এবং প্রার্থীরা ঐসব ষ্টেটে প্রচার নিয়ে ব্যস্ত থাকেন। এবারো এটি ব্যতিক্রম নয়? ১৮ বছরের মার্কিন নাগরিক ভোটার হতে পারেন। ভোট দিতে বৈধ পরিচয়পত্র লাগে। প্রেসিডেন্ট নির্বাচন ছাড়াও এবার কংগ্রেসের পুরো ৪৩৫টি আসন, ৩৩টি সিনেট, ক’টি গভর্নর পদে লড়াই হচ্ছে। বর্তমানে হাউস বা কংগ্রেস রিপাবলিকানদের দখলে, ডেমোক্রেট ২১২, রিপাবলিকান ২১৯, ৪টি আসন খালি। সিনেট ডেমক্রেটদের দখলে ৫১ (ডেমোক্রেট ৪৮, স্বতন্ত্র ৩), রিপাবলিকান ৪৮। হোয়াইট হাউস ডেমক্রেটদের।

লেখক : আমেরিকা প্রবাসী।

পাঠকের মতামত:

২৪ এপ্রিল ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test