E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

ইচ্ছাশক্তি এবং সাধনা এই দুই মিলে আসে সাফল্য : তাসনিম মিম

২০২১ মে ০৭ ১৪:৫৩:৫১
ইচ্ছাশক্তি এবং সাধনা এই দুই মিলে আসে সাফল্য : তাসনিম মিম

বিনোদন প্রতিবেদক : ইন্টারনেটে তাসনিম মিম সার্চ করলেই বেরিয়ে পড়বে অনেক গান। লাইকের সংখ্যায় সবাইকে একেবারেই তাক লাগিয়েছেন মিম। তাঁর গাওয়া গান এখন সবার মুখে মুখে। কীভাবে শুরু হল এই জার্নি? কতটাই বা নিজেকে মেলে ধরতে চান তাসনিম মিম। একান্ত সাক্ষাৎকারে উঠে এল সব কথা । সাক্ষাৎকারের কিছু অংশ পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো। সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন আমাদের বিনোদন প্রতিবেদক মারুফ সরকার।

করোনা কালীন সময় দিন কাল কেমন যাচ্ছে ?

মিমঃ আপাতত বাসায় আছি যেহেতু করোনার প্রকোপ বেড়েছে। ১৪ তারিখ লকডাউন এর আগে বেশ কিছু কাজ করেছি। বাসায় বসে নেক্সট কাজ নিয়ে পরিকল্পনা করছি।

গানের জগতে পা রাখা কিভাবে ?

মিমঃ আছি স্কুলে যাবার আগে থেকে গান করি। অনেক জায়গায় শিখেছি। গানে এ পর্যায়ে আসবো কখনো ভাবিনি। কারন আমার পরিবার কিংবা আশেপাশের কেউ মিডিয়াতে ছিলো না। ছোটবেলায় ইচ্ছা ছিলো অভিনেত্রী হবার। এরপর সময়ের সাথে সে ইচ্ছা চলে যায়। গানে পর্যায়ক্রমে ভালো করলাম। তখন থেকে ইচ্ছে ছিলো গানে থাকবো। স্টুডিও গিয়ে বসে থাকতাম। সব দেখতাম। মাঝে মাঝে কোচিং ফাঁকি দিয়ে স্টুডিও চলে যেতাম। অনেক সময় টাকা থাকতো না হেঁটেই চলে যেতাম। মানে ইচ্ছে শক্তি ছিলো প্রবল এরপর রেকর্ডিং করলাম। গান রিলিজ হলো। সবার ভালোবাসা পাচ্ছি।

পরিবার কি অনুপ্রেরণা যোগাচ্ছে ?

মিমঃ পরিবার কখনো তেমন অনুপ্রেরণা দেয়নি। আমার বাবা যেহেতু প্রকৌশলী তাই আমার মা চাইতেন আমিও তাই হবো এবং বলতেন ইঞ্জিনিয়ার না হলে কিংবা রেজাল্ট ভালো না করলে গান গাইতেই দিবো না। বাবা মায়ের ইচ্ছায় এস এস সি এবং এইচ এস সি তে খুব ভালো রেজাল্ট করেছি এরপর এখন ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ছি। বলতে গেলে গানের জন্য যুদ্ধ করতে হয়েছে। তবে আমিও ছিলাম নাছোড় বান্দা। আমার প্রবল ইচ্ছাশক্তির জন্যই কেউ আমাকে আটকাতে পারেনি।

সিনেমায় প্লেব্যাক; করার ইচ্ছে আছে কি ?

মিমঃ প্লে-ব্যাক করার ইচ্ছা আছে। অফারও পেয়েছি। তবে খুব চিন্তা ভাবনা করে সব মনের মত হলেই করবো। ভালো লাগার বিরুদ্ধে কিছু করতে চাইনা।

সোহাগ এর সাথে সম্প্রতি আপনার একটি গান রিলিজ হয়েছে এই সম্পর্কে একটু বলুন ?

মিমঃ হ্যাঁ, সোহাগের সাথে সম্প্রতি চুমু শিরোনামে একটি গান এসেছে। গানটির মিউজিকও করেছেন সোহাগ। গানটি আমার একক গান হবার কথা ছিলো। ভয়েস দেবার পর সোহাগ ভাই বললো, গানটি সুন্দর গেয়েছো। এটা তোমার আমার ডুয়েট করবো। এরপর হুট করে শুটিং ও করে ফেললাম। ভালো সাড়া পেয়েছি। সোহাগ ভাই এর মত গুনী মানুষের সাথে গান করা ভাগ্যের ব্যাপার। উনার সান্নিধ্যে পেয়ে ধন্য মনে করি। আমার জীবনে সোহাগ ভাই আমাকে সব থেকে বেশি সার্পোট দেন সংগীতে।

গান নিয়ে আপনার পরবর্তী পরিকল্পনা কি ?

মিমঃ আরো মিউজিক ভিডিও রিলিজ দিবো এবং নতুন যারা আসবে তাদের নিয়ে কাজ করতে চাই। আমি গান নিয়েই বেঁচে থাকতে চাই।

অবশেষে দর্শকদের জন্য কিছু বলুন ?

মিমঃ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, নিজে নিরাপদ থাকুন অপরকে নিরাপদ রাখুন সবাইকে অসংখ্য ধন্যবাদ এবং পাঠকদের উদ্দেশ্য বলবো বাংলা গানকে ভালোবেসে বাংলা গানের সাথেই থাকুন।

(এম/এসপি/মে ০৭, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

১৭ জুন ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test