E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

পদ্মা সেতু নিয়ে যা বললেন তারকারা

২০২২ জুন ২৫ ১৫:৫৩:০১
পদ্মা সেতু নিয়ে যা বললেন তারকারা

বিনোদন ডেস্ক : পদ্মা সেতু নিয়ে বাংলাদেশীদের আবেগের অন্ত নেই। দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর শনিবার (২৫ জুন) দুপুর ১২টায় পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর উদ্বোধন উপলক্ষে তারকাদের ভাবনা নিয়ে আজকের আয়োজন ।

অন্য সবার মতোই পদ্মা সেতু নিয়ে উচ্ছ্বসিত অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী নায়িকা শাবনূর। দেশের এত বড় অর্জনে নিজের উচ্ছ্বাস ধরে রাখতে পারছেন না তিনি। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি পোস্ট করে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন এ নায়িকা।

শাবনূর লেখেন, ‘স্বপ্নের পদ্মা সেতু। এটি বাংলাদেশের দীর্ঘতম সেতু, স্থাপত্য শিল্পের এক শ্রেষ্ঠ স্থাপনা এবং ঐতিহাসিক নিদর্শন।’

তিনি আরও লিখেছেন, ‘আমাদের গর্বের এই সেতু উদ্বোধন হওয়াতে আমিও আজ সবার সঙ্গে মহাসুখে উচ্ছ্বসিত, উদ্বেলিত ও আনন্দিত।’

চিত্রনায়িকা নিপুল বলেন, ‘পদ্মা সেতু আমাদের আত্মমর্যাদা, আমাদের অহংকার। শতবাঁধা, ষড়যন্ত্র অতিক্রম করে পদ্মা সেতু আজক দৃশ্যমান। এটি শুধুমাত্র প্রধানমন্ত্রীর জন্যই সম্ভব হয়েছে। ধন্যবাদ প্রধানমন্ত্রী আপনাকে।’

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সহ-সাধারণ সম্পাদক সাইমন সাদিক বলেন, ‘পদ্মা সেতু সারা বাংলাদেশের মানুষকে এক করেছে। আমরা বিশ্বাস করি, বাঙালি জাতি চাইলে অনেক করতে পারে। আমরা আবারও প্রমাণ করেছি। নিজেদের অর্থায়নে পদ্মা সেতু। শুভ কামনা।’

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে ফেসবুক স্ট্যাটাসে চিত্রনায়ক ওমর সানী লিখেছেন, ‘আমার বাড়ি বরিশাল গৌরনদী। জন্ম- কালিগঞ্জ জিনজিরা, ঢাকা। শ্বশুরবাড়ি সাতক্ষীরা, খুলনা। আলহামদুলিল্লাহ পদ্মা সেতু আমার লাগবে, আপনার লাগবে। আমাদের গর্বের পদ্মা সেতু। আমাদের প্রথম অর্জন স্বাধীনতা, আর দ্বিতীয় অর্জন পদ্মা সেতু। সমালোচনা নয়, আসুন আমরা এক মুখে বলি, আমাদের পদ্মা সেতু।’

চলচ্চিত্র নায়িকা শাহনূর বলেন, পদ্মা সেতু আমাদের বাংলাদেশের গর্ব। বাংলাদেশের গৌরবের প্রতীক হচ্ছে পদ্মা সেতু। আমি তো ভীষণ এক্সাইটেড। কারণ, আমাদের বাড়ি নড়াইল, ঢাকা থেকে মাত্র আড়াই ঘণ্টা লাগবে আমাদের বাড়িতে যেতে। সেতু চালু হওয়ার পরেরদিনই আমি নড়াইল যাব ইনশাল্লাহ। সবার কাছে অনুরোধ থাকবে এই সেতুটি যেন সবসময় সুন্দর এবং পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকে। সেতুটি রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব কিন্তু আমাদের, বাংলাদেশের সব নাগরিকের।

জনপ্রিয় অভিনেত্রী, নির্মাতা ও গায়িকা মেহের আফরোজ শাওন গণমাধ্যমকে জানান, ‘আমি মুক্তিযুদ্ধ দেখিনি, কিন্তু পদ্মা সেতুর উদ্বোধন দেখেছি। আমরা এই প্রজন্ম পদ্মা সেতুর উদ্বোধন স্বচক্ষে দেখতে পাচ্ছি। যারা সামনাসামনি দেখছি, টেলিভিশনের পর্দায় দেখছি, বিশ্বের যেকোনো জায়গা থেকেই দেখছি, এটা অসাধারণ অনুভূতি।’

স্বপ্নের পদ্মা সেতু নিয়ে দুই বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান বলেন, “পদ্মা যেন প্রায় সমুদ্র। ছোটবেলায় তো আর সমুদ্র দেখিনি। গোপালগঞ্জে দাদার বাড়ি যাওয়ার সময় পাড়ি দিতে হত পদ্মা নদী। পাড়ি দিয়ে চলে যেতাম, কিন্তু মনের মধ্যে প্রবল হয়ে জেগে থাকত তার অক্ষয় রূপ। কারণ, গ্রামের বাড়ি যাওয়ার পথে পদ্মা পার হওয়াটাই যেন আসল ঘটনা। স্মৃতি থেকে অন্য সব কিছু মুছে গেলেও পদ্মাকে মুছে দেয় সাধ্য কার! তার সে কী বিশালতা! এ পারে দাঁড়ালে ও পার দেখা যায় না। ওই যে গানে শুনেছি ‘কূল নাই, কিনার নাই, নাই সে দরিয়ার পাড়ি’, তার সঙ্গে পদ্মার স্মৃতিই যেন একাকার হয়ে আছে। এ যেন সেই দরিয়া, সেই অপার সমুদ্র।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন চিত্রনায়িকা ইয়ামিন হক ববি। তিনি বলেন, ‘খুব ভালো লাগছে। এত বছরের একটা অপেক্ষা শেষ হয়েছে। খুবই সুন্দর একটি জিনিস প্রধানমন্ত্রী বাস্তবে রূপায়িত করেছেন। আমরা তার কাছে কৃতজ্ঞ।’

পদ্মা সেতু নিয়ে ভিডিও বার্তা পাঠিয়েছেন এ প্রজন্মের সংগীতশিল্পী ঐশী। বলেন, ‘স্বপ্নের পদ্মা সেতু। সে স্বপ্নের বাস্তবায়ন হয়ে গেছে। ব্যাপারটি আমাদের জন্য যতটা আনন্দের, ঠিক ততটাই আবেগের। দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের সঙ্গে অন্যরকম সংযোগ স্থাপন হয়েছে। এতে করে দেশের অর্থনীতির অনেক উন্নতি সাধন হতে যাচ্ছে।’

(এম/এসপি/জুন ২৫, ২০২২)

পাঠকের মতামত:

১৭ আগস্ট ২০২২

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test