E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

নারীকে ধর্ষণের দায়ে ইউপি চেয়ারম্যানের যাবজ্জীবন

২০২৪ মে ২৮ ১৮:৩৯:৪৬
নারীকে ধর্ষণের দায়ে ইউপি চেয়ারম্যানের যাবজ্জীবন

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ : ঝিনাইদহ সদর উপজেলায় এক নারীকে ধর্ষণের দায়ে খন্দকার ফারুকুজ্জামান ফরিদ নামে এক ইউপি চেয়ারম্যানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৫ লাখ টাকা অর্থদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৮ মে) দুপুরে ঝিনাইদহের নারী-শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. মিজানুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পিপি অ্যাডভাকট মো. বজলুর রহমান।

সাজাপ্রাপ্ত খন্দকার ফারুকুজ্জামান ফরিদ সদর উপজেলার হরিশংকরপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও নরহরিদ্রা গ্রামের খোন্দকার আমিরুজ্জামানের ছেলে।

আদালত ও মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০২২ সালের ১৫ এপ্রিল বিকালে চেয়ারম্যান ফরিদের নরহরিদ্রা গ্রামের বাড়িতে একটি ঘটনার বিচার চাইতে যায় ওই নারী। সেসময় ফাঁকা বাড়িতে ৩ সন্তানের জননী ওই নারীকে জোরপূূর্বক নেশা জাতীয় দ্রব্য সেবন করিয়ে ধর্ষণ করে চেয়ারম্যান ফরিদ। পরেরদিন ওই নারী সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়। এরপর চেয়ারম্যান ফরিদ ও ধর্ষণে সহযোগিতার জন্য তার খালাতো ভাই নজরুল ইসলামকে আসামী করে ওই নারী সদর থানায় মামলা দায়ের করেন।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পিপি অ্যাডভাকট মো. বজলুর রহমান জানান, বিজ্ঞ আদালত সাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ২০০০ এর ৯(১) ধারায় অভিযোগ সন্দেহাতীত ভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তাকে দোষী সাব্যস্ত করে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও পাঁচ লাখ টাকা জরিামনা অনাদায়ে আরো ৬ মাসের সশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেছে। এ মামলায় নজরুল ইসলামের বিরুদ্ধে দোষ প্রমাণিত না হওয়ায় তাকে বেকসুর খালাস প্রদান করেছে।

(একে/এসপি/মে ২৮, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

১৭ জুন ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test