E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

দ্বন্দ্ব নিরসনে ‘ফলপ্রসূ’ আলোচনায় চীন-যুক্তরাষ্ট্র

২০২৩ জুন ০৭ ০০:৪৫:২৬
দ্বন্দ্ব নিরসনে ‘ফলপ্রসূ’ আলোচনায় চীন-যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন বিষয়ে চলমান দ্বন্দ্ব নিরসনে বৈঠক করেছে চীন-যুক্তরাষ্ট্র। সোমবার (৫ জুন) চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে দুই দেশের শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের মধ্যে গঠনমূলক ও ফলপ্রসূ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

জার্মান সংবাদমাধ্যম ডয়েচে ভেলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আলোচনায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দেশটির এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলবিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড্যানিয়েল ক্রিটেনব্রিঙ্ক ও চীনের প্রতিনিধি হিসেবে যোগ দেন দেশটির উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী মা ঝাওজু।

উভয়পক্ষ জানিয়েছে, আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে। এমনকি, তারা যেকোনো বিষয়ে পরস্পরের সঙ্গে যোগাযোগ বজায় রাখার অঙ্গীকারও করেছে। দুই দেশের শীর্ষ কর্মকর্তাদের পাশাপাশি বিশ্লেষকরা আশা প্রকাশ করেছেন, দুই দেশের এ যোগাযোগ বজায় রাখার অঙ্গীকার বিদ্যমান উত্তেজনা কমিয়ে শান্তি আনার ক্ষেত্রে অত্যন্ত ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।

চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাদের মধ্যে আলোচনা একটি আশাবাদ সৃষ্টি করেছে। তারা আরও বলেছে, দুই পক্ষই নিজেদের মধ্যে সম্পর্ক বাড়ানোর পাশাপাশি বিদ্যমান মতানৈক্য কমানো ও যেকোনো সমস্যা সমাধানের বিষয়ে অকপট, গঠনমূলক ও ফলপ্রসূ আলোচনা করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র বিভাগ থেকে প্রকাশিত এক বিবৃতিতেও আলোচনাকে ফলপ্রসূ ও স্বতঃস্ফূর্ত বলে আখ্যা দেয়া হয়েছে। তারা বলছে, উভয়পক্ষের মধ্যে সরাসরি আলোচনার জন্য উন্মুক্ত যোগাযোগের সুযোগ বজায় রাখার কথা দুই দেশের মধ্যে উচ্চ পর্যায়ের কূটনৈতিক সম্পর্ক গড়ে তোলার ইঙ্গিত দেয়।

বিবৃতিতে মার্কিন পররাষ্ট্র বিভাগ তাইওয়ান প্রণালিতে বিদ্যমান সংকটকে নির্দেশ করে বলে, উভয়পক্ষ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক, আন্তঃপ্রণালী সমস্যা, যোগাযোগ বজায় রাখা ও অন্যান্য বিষয়ে মতবিনিময় করেছে। তবে মার্কিন কর্মকর্তারা এটিও পরিষ্কার করেছেন যে, নিজেদের জাতীয় স্বার্থ ও মূল্যবোধের প্রয়োজনে যুক্তরাষ্ট্র সবসময়ই নিজের শক্তি দেখাবে।

আরও পড়ুন: বাঁধ উড়িয়ে ইউক্রেনের দক্ষিণাংশ তলিয়ে দিতে চান পুতিন?

বৈঠক শেষে ক্রিটেনব্রিঙ্ক বেইজিংয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে নিজেদের সামর্থ্য অনুসারে সম্পর্ক এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার বিষয়ে দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন। একই আশাবাদ প্রকাশে করেন চীনের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী মা ঝাওজু।

তথ্যসূত্র : ডয়েচে ভেলে

(ওএস/এএস/জুন ০৭, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

১৩ জুন ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test