E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

কুষ্টিয়ায় নিশান বাউলের আখড়া ভেঙে দেয়ার ঘটনায় জেএমবিএফ’র উদ্বেগ

২০২৪ জুন ১০ ১৬:১৮:২৫
কুষ্টিয়ায় নিশান বাউলের আখড়া ভেঙে দেয়ার ঘটনায় জেএমবিএফ’র উদ্বেগ

প্রবাস ডেস্ক : গত ৭ জুন (শুক্রবার) দিবাগত রাতে কুষ্টিয়ার মিরপুরে নিশান আলী বাউলের আখড়া ভেঙে দেয়ার ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ ও উদ্বেগ জানিয়েছে ফ্রান্স ভিত্তিক মানবাধিকার প্রতিষ্ঠান জাস্টিসমেকার্স বাংলাদেশ ইন ফ্রানস (জেএমবিএফ)। মানবাধিকার প্রতিষ্ঠানটি অবিলম্বে অভিযুক্তদের চিহ্নিতপূর্বক বিচারে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের আহবান জানিয়েছে। 

গতকাল রবিবার গণমাধ্যমে প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উদ্বেগ প্রকাশ করে জেএমবিএফ।

এতে বলা হয়, বাংলাদেশের বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত সাংবাদ থেকে জানা যায় যে, গত ৭ জুন রাতে কুষ্টিয়ার মিরপুর উপজেলার পোড়াদহ ইউনিয়নের আহমদপুর গ্রামে গঙ্গা-কপোতাক্ষ নদের পাড়ে অবস্থিত বাউল নিশান আলীর আখড়া দূর্বৃত্তরা ভেঙে ফেলে। শুক্রবার রাতের কোনও একসময় আখড়াটি ভেঙে মাটিতে মিশিয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। সরকারি খালের ওপর এটি গড়ে তোলা হয়েছিল। আখড়াটি গ্রাম থেকে অনেক দূরে হওয়ায় কখন ভাঙা হয়েছে, তা কেউ দেখেননি। ওখানে সন্ধ্যার পর গানের আসর বসাতেন বাউলরা। সরকারি জায়গা গঙ্গা-কপোতাক্ষ (জিকে) প্রকল্পের ক্যানালের ওপর চার পাশে পাটখড়ির বেড়া এবং ওপরে টিন দিয়ে আখড়াটি তৈরি করা হয়। সাধুরা রাতে আসর বসাতেন। রাতে তা আগুন ধরিয়ে পুড়িয়ে ফেলা হয়।

জেএমবিএফ’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অ্যাডভোকেট শাহানূর ইসলাম সৈকত বলেন, ‘কুষ্টিয়ার বাউল আখড়া ভাঙচুর ও পুড়িয়ে দেয়ার ঘটনা কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয় বরং মুক্তভাবে সংস্কৃতি চর্চাকে বাধাগ্রস্ত করার পরিকল্পিত অংশ।’

ক্ষতিগ্রস্ত নিশান আলী বাউলের পূনর্বাসনসহ দেশের বাউল সম্প্রদায়ের সকল সদস্য যেন নির্বিঘ্নে সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড পরিচালনা করতে পারে তা নিশ্চিত করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আহবান জানিয়েছে জেএমবিএফ।

(পিআর/এসপি/জুন ১০, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

১৫ জুন ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test