E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

১৩ ডিসেম্বর নীলফামারী হানাদার মুক্ত দিবস

২০২৩ ডিসেম্বর ১৩ ১৪:১৫:৩০
১৩ ডিসেম্বর নীলফামারী হানাদার মুক্ত দিবস

ওয়াজেদুর রহমান কনক, নীলফামারী : ১৩ ডিসেম্বর নীলফামারী হানাদারমুক্ত দিবস। দীর্ঘ ৯ মাসের মুক্তিযুদ্ধে ত্রিশ লাখ বাঙালির আত্মত্যাগের বিনিময়ে জেলা শহর এই দিনে পাকিস্তানি হানাদারমুক্ত হয়। দিবসটি পালন উপলক্ষে জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তানরা দিনব্যাপী নানা কর্মসূচির আয়োজন করেছে। নীলফামারী হানাদার মুক্ত দিবস উদযাপন কমিটি গঠন করা হয়েছে।

গত রবিাবার দুপুরে জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমপ্লেক্স মিলনায়তনে প্রস্তুতি সভায় এই উদযাপন কমিটি গঠন করা হয়েছে। বীর মুক্তিযোদ্ধা আমিনুল হক (সাবেক উপসচিব) এর সভাপতিত্বে হানাদার মুক্ত দিবসের প্রস্তুতি সভায় উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা কান্তি ভুষণ কুন্ডু, বীর মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা বাবু বঙ্কু বিহারী রায়সহ অন্যান্য নেতৃত্বস্থানীয় বীর মুক্তিযোদ্ধা ও বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা এই সভায় উপস্থিত ছিলেন। সভায় ১৩ ডিসেম্বর হানাদার মুক্ত দিবস উদযাপন কমিটি গঠন করা হয়েছে। উদযাপন কমিটির আহবায়ক হয়েছেন হাফিজুর রশীদ মঞ্জু, সদস্য সচিব হয়েছেন কামরুজ্জামান কামরুল, যুগ্ন আহবায়ক হয়েছেন কাজী মাহাবুবুল হক দোদুল, গুলশান আরা মোনা, জাহাঙ্গীর আলম, দিপঙ্কর ঘোষ লিটু। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন আব্দুল খালেক, সাংবাদিক ওয়াজেদুর রহমান কনক, রাশেদুজ্জামান রাশেদ, রফিকুল ইসলাম, জান হোসেন, আমিনুর রহমান, হামিদুজ্জামান পুলক, নাঈম শাহরিয়ার পিউ, কৌশিক শুভ, প্রান্ত।

১৩ ডিসেম্বর হানাদার মুক্ত দিবসের গৃহীত কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে। সূর্যদয়ের সাথে সাথে জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমপ্লেক্সে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন, সকাল ১০টায় জমায়েত, ১০টা কুড়ি মিনিটে জাতির জনকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, সাড়ে দশটায় আনন্দ শোভাযাত্রা শহর প্রদক্ষিণ শেষে আলোচনা সভা।

জেলা পুলিশ সুপার গোলাম সবুর, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মমতাজুল হক, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শাহিদ মাহমুদসহ শীর্ষ নেতৃবৃন্দ এই আনুষ্ঠানিকতায় উপস্থিত থাকবেন।

(ওআরকে/এএস/ডিসেম্বর ১৩, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

২৩ জুলাই ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test