E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

তারুণ্যের ঈদ ভাবনা

২০২২ মে ০১ ০০:০৭:০৬
তারুণ্যের ঈদ ভাবনা

রমজানে একমাস সিয়াম সাধনার পর আসে ঈদ-উল-ফিতর। দীর্ঘ সিয়াম সাধনার পর যে উৎসব তাকে ঘিরে স্বাভাবিকভাবেই আগ্রহ বেশি। আর যেহেতু এই ঈদ-উল-ফিতর আমাদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব, তাই তারুণ্যের উৎসাহ-উদ্দীপনাও বেশি। যার প্রভাব পড়ে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের ঈদ আনন্দেও। করোনা ঝুঁকিকে পেছনে ফেলে এবার বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া শিক্ষার্থীদের মনে জন্ম নিয়েছে ঈদ আনন্দের অনুভূতি। করোনাকালীন ঈদকে পেছনে ফেলে আবারও ঈদের আগে দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে বাস, ট্রেনের টিকিট সংগ্রহ করে বাড়ি ফিরেছে শিক্ষার্থীরা। প্রতিবছর ঈদকে ঘিরে তারুণ্যের মাঝে থাকে নানা আয়োজন, পরিকল্পনা। দীর্ঘ ছুটি পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এবার নানাভাবে এই করোনা পরবর্তী ঈদ উদযাপন করবে। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত কয়েকজন শিক্ষার্থী ও জগন্নাথ ইউনিভার্সিটি ফিচার, কলাম অ্যান্ড কন্টেন্ট রাইটার্স এর সদস্যদের করোনা পরবর্তী ঈদ উদযাপন নিয়ে ভাবনা তুলে ধরেছেন একই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও ক্যাম্পাস সাংবাদিক মেহেরাবুল ইসলাম সৌদিপ

আনন্দমুখর হয়ে উঠুক ঈদ আনন্দ

মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের একটি প্রধান উৎসব হচ্ছে ঈদুল ফিতর। কিছুদিন পর আসছে মুসলিমদের উৎসব ঈদুল ফিতর৷ করোনাকালীন ঈদ কাটিয়ে আবারও সকলে প্রাণোচ্ছল আনন্দের অপেক্ষায় রয়েছে। এবারের ঈদে গত দুই বছরের মতো শঙ্কা কাটিয়ে অনেকটা স্বস্তির ঈদুল ফিতরের উদযাপনের আশা করছেন সবাই। এবারের ঈদের সময়গুলো সুন্দরভাবে কাটাতে পারবো। আবারও জমজমাট হয়ে উঠবে ঈদ আনন্দ। সবাই একসাথে পরিবারের সাথে সুন্দর সময় কাটানোর সুযোগ পাব। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহার করে আত্নীয়স্বজনের সাথে আমরা আমাদের এবারের ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিবে অনেকেই। সবকিছু মিলিয়ে আবারো আনন্দমুখোর হয়ে উঠবে সকলের ঈদ আনন্দ।

রুকাইয়া মিজান মিমি
শিক্ষার্থী, সমাজবিজ্ঞান বিভাগ


ঈদের খুশি ভাগাভাগির মাঝেই প্রকৃত আনন্দ

ঈদ মানে হলো আনন্দ, খুশির দিন। এক মাস সিয়াম সাধন এর পর মুসলমানের আনন্দ, খুশির দিন নিয়ে আসে ঈদুল ফিতর। সারা বছরে মুসলমানরা অপেক্ষায় থাকে তাদের প্রাণের উৎসব ঈদুল ফিতর আর ঈদুল-আযহার। এক মাস সিয়াম সাধনার পর যখন ঈদুল ফিতর আসে তা যেন আনন্দের বন্যা নিয়ে আসে। সকলের সাথে এই আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে দূর-দূরান্ত থেকে সকলেই শিখরের টানে চলে আসে তাদের নিজ নিজ বাড়িতে। সমস্ত ব্যস্ততা, ক্লান্তি আর বাকি দিনগুলোর কষ্টের কথা ভুলিয়ে দিতেই যেন উদয় হয় ঈদের দিন। তাইতো সকলের বাড়িতে চলে আসা সমস্ত আনন্দকে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ভাগাভাগি করে নেয়ার জন্য। একটা ভালো সময় কাটানোর ইচ্ছে সকলের সঙ্গে। সুন্দর ভাবে আত্মীয়-স্বজনদের সঙ্গে খুশিটা ভাগাভাগি করে নিতে চাই সকলেই। আর এই আনন্দের মুহুর্ত গুলোর মতো যেন আমাদের বাকি দিনগুলোও আনন্দের হয়ে ওঠে এই প্রত্যাশা থাকবে।

কানিজ ফাতেমা
শিক্ষার্থী, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগ


ঈদের আনন্দ হোক সবার

ঈদ মানেই দীর্ঘ এক মাসের সংযমের পর আনন্দ আর খুশী। আনন্দের সংজ্ঞা যদি ও একেক জনের কাছে একেক রকমের। অন্যের জন্য কিছু করার মাঝে যে সুখ আছে তা এই ঈদুল ফিতর এ সবচেয়ে বেশী উপলব্ধি করা যায়! আত্মীয়-স্বজন পাড়া প্রতিবেশী সবার মাঝে একটা উৎসব উৎসব ভাব দেখা যায়। সবচেয়ে বেশী আমেজ দেখা যায় ছোটো ছেলে মেয়ে আর কিশোর কিশোরীদের মাঝে। সবার নতুন জামা আর হাসি হাসি মুখ যেনো জানান দেয় দীর্ঘ অপেক্ষার পর উৎসবের উপস্থিতিটুকু। দিনশেষে সবার জীবনে ঈদ খুশী আনন্দ বয়ে নিয়ে আসুক, আমাদের এবং আমাদের পরবর্তী প্রজন্মকে পরোপকারী হওয়ার শিক্ষা দিক সেই কামনাই থাকবে।

ফাইরুজ অবন্তিকা
শিক্ষার্থী, আইন বিভাগ


মায়ের কোলে ঈদের আনন্দ

রোজা শুরু হওয়ার পূর্ব থেকেই শুরু হয় আমাদের বাড়ী আসার প্রস্তুতি। তারপর সেই শুভ দিন এর আগমন ঘটে, ভার্সিটি বন্ধ হয় তারপর বাড়ি আসা। বাড়ি এসেই এক অন্য রকম অনুভূতি। ঈদ এগিয়ে আসতে থাকে আর ঈদের আনন্দ যেন আমাদের মাঝে বাড়তে থাকে। পরিবার, বন্ধু, আত্মীয়স্বজনদের সাথে ঈদ কাটানো এ যেন এক অন্য রকম অনুভূতি যা ভাষায় প্রকাশ করার মত নয়। ঈদ নিয়ে আমরা নানা পরিকল্পনা শুরু করি। ঈদে কেনাকাটা করা, ঘুরাঘুরি এবং কিছু অসহায় মানুষদের সাথে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করার জন্য আমরা কিছু পরিকল্পনা গ্রহণ করি, তাদের জন্য ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণের ব্যবস্থা করি। ঈদের দিন বিকেলে বন্ধুদের সাথে ঘুরাঘুরি করি। সব কিছুর মাঝে সব থেকে সুন্দর অনূভুতি মা এর সাথে ঈদ কাটানো। মা ছাড়া কোন উৎসব কল্পনা করা যায়না, ঈদ তো কখনোই না। তাই মায়ের সাথে ঈদ কাটানো এক অন্য রকম অনুভূতি।

আবু হুরায়রা হামিম
শিক্ষার্থী, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগ


সীমাহীন হোক ঈদ আনন্দ

আসছে বহু আকাঙ্ক্ষিত ঈদ-উল-ফিতর। করোনাকালীন ঈদ শেষে এই ঈদে সকলেরই পরিকল্পনা ছিলো নানান রঙের। ঈদের শপিং, বন্ধু-বান্ধবদের সাথে ঈদের দিন সিনেমায় যাওয়া, বহুদিনের স্বপ্নপুরী সাজেক ভ্যালিতে পরিবারের সাথে ঈদ ছুটি কাটানো সহ অনেক ছোট ছোট পরিকল্পনা রয়েছে অনেকের মনেই। বহুদিন পর সুন্দর একটি ঈদ অপেক্ষায় সবাই। অনেকেই আত্নীয়-স্বজনের মাঝে ঈদের আনন্দ ভাগাভাগি করে নিবে। কেউবা ঘরে বসেই টিভিতে পরিবারের সাথে ঈদ অনুষ্ঠান উপভোগ করবে, বন্ধুদের সাথে ভিডিও চ্যাটিং এ আড্ডা জমাবে অনেকে। ঈদে মামার হাতের ফুচকা খাবো, চায়ের কাপে ঝড় উঠাবো! বন্ধুদের নিয়ে আড্ডা দেবো, হাসিগুলো ছড়িয়ে দেবো! রং বেরঙের ঘুড়ি ওড়াবো, নৌকা হবো মুক্ত পালের। এভাবেই সকলের মাঝে ঈদ আনন্দ ভাগাভাগি করে নিবো।

মো. মেহেদী হাসান
শিক্ষার্থী, গণিত বিভাগ


জীবনের সাথে পাল্টায় ঈদ আনন্দ

রমজানুল কারীমের অবসানে, দীর্ঘ একমাস প্রতীক্ষার পর অনেক আশা ও স্বপ্নের ফসল হয়ে বহুল আকাঙ্খিত ইদের দিনটি আসে আনন্দ, ভ্রাতৃত্ব ও সম্প্রীতির পয়গাম নিয়ে। ঈদ অর্থ আনন্দ, খুশি। তবে এই খুশি এবং আনন্দ যেন পাল্টে যায় সময়ের ব্যবধানে। ছোটবেলায় পহেলা রমজান থেকেই যেন প্ল্যানিং শুরু করে দিতাম-এই ইদে কি রঙের জামা নেব, কোথায় ঘুরতে যাবো, কত টাকা সালামি উঠবে, কয়টা ইদকার্ড কিনবো ইত্যাদি ইত্যাদি। সময়ের ব্যবধানে এখন যেন ইদের আনন্দটা অনেকটাই পাল্টে গিয়েছে। এখন যেন টিউশনির টাকা জমিয়ে পরিবারের সদস্যদের জন্য কেনাকাটা করে, তাদের মুখে হাসি ফুটিয়েই খুঁজে পাই ইদের প্রকৃত আনন্দ। তাছাড়াও সকলে মিলে একসঙ্গে ইদের নামাজ পড়া, মহান আল্লাহ রব্বুল আলামিনের শুকরিয়া আদায় করা, খানাপিনা এবং পরিবার ও বন্ধুদের সাথে আড্ডার মধ্য দিয়েই দারুণভাবে কেটে যায় ঈদের দিনটা।

মো. রাশেদুজ্জামান লিমন
শিক্ষার্থী, শিক্ষা ও গবেষণা ইন্সটিটিউট


সাম্যের উৎসবে বৈষম্য না হোক

বছর ঘুরে আবার এসেছে ইদুল ফিতর। ঈদ মানেই আনন্দ উল্লাস। দীর্ঘ এক মাস সিয়াম সাধনার পর ইদ আমাদের মাঝে সৌহার্দ্য-সংহতির বার্তা বয়ে আনে। রমজানের শেষ দিনে আকাশে চাঁদ দেখা দিলে, সবাই সমস্বরে গেয়ে ওঠি "রমজানের ঐ রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ"। দীর্ঘ দুই বছর অদৃশ্য মরণঘাতী করোনা মহামারির সংকটাপন্ন অবস্থার পর এবারের ঈদ সকলের মাঝে আনন্দ-আহ্লাদ বয়ে আনুক। ঈদ ধনী-গরীবের মাঝে বৈষম্য দূর করে সাম্যের কথা বলে। ঈদে শুধুই দামি পোশাকে বিলাসীতা না করে জাতি-ধর্ম-বর্ণ, শ্রেনী-পেশা দলমত নির্বিশেষে আর্তমানবতার পাশে দাঁড়াই। হিংসা-বিদ্বেষ ভুলে সাম্য, মৈত্রী, সহমর্মিতা, সম্প্রীতি ও ভ্রাতৃত্বের বন্ধনে আবদ্ধ হই। পরিবার, আত্মীয়-স্বজন এবং গরীব-দুঃখীদের সাথে আনন্দ ভাগাভাগি করে আশা করি ইদের দিনটি ভালো কাটবে।

আফরোজা আক্তার
শিক্ষার্থী, ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগ


ঈদের আনন্দ হোক সকলের প্রাণে

ঈদ অর্থই খুশি, আনন্দ, উৎসবের আয়োজন। মুসলমান সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় অনুষ্ঠান ঈদ-উল-ফিতর এবং ঈদ-উল-আযহা। এই দুইটি বড় উৎসব ধর্মীয় ভাব-গাম্ভির্য ও ত্যাগের মহিমার মাধ্যমে পালন করে। সেই ধারাবাহিকতায় একমাস মাহে রমজান শেষে সকলের মনে পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর আসে খুশির আমেজ নিয়ে। এই ঈদ আনন্দ মুসলমানদের প্রাণে আনে খুশির রেশ। করোনা প্রকোপ কমে যাওয়ায় এ বছর সমাজের অভাব-দুস্থ মানুষগুলো একটু বেশিই খুশির আমেজে ঈদ করবে। পাশাপাশি সমাজের বিত্তবানদের সাহায্য সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে হবে। নতুন কোন সম্ভাবনার আশায় এই বছর ঈদে এই তীক্ততা। নতুন সূর্য উঠবে, ঈদ আসবে, নামাজ হবে, ঈদ চলে যাবে এমনই প্রকৃতির নিয়ম। প্রকৃতির এই নিয়মের সাথে আমাদেরও নিয়ম মেনে চলতে হবে, থাকতে হবে নিরাপদে। জাতি-ধর্ম-বর্ণ করোনা নির্বিশেষ সকলের জীবনে এই ঈদ বয়ে আনুক সুখ-সমৃদ্ধি ও খুশির জোয়ার। সকলের প্রাণে দেওয়া উচিত খুশির জোয়ার, সাথে মনের আনন্দ ভাগাভাগি করা উচিত। ঈদ হোক দেশ-জাতির কল্যাণের এবং আত্মশুদ্ধি, সংযম, সৌহার্দ্য ও ভালাবাসার। এই শুভ প্রত্যাশায় সকলকে ঈদের মোবারকবাদ।

সিদরাতুল মুনতাহা
শিক্ষার্থী, সমাজবিজ্ঞান বিভাগ

(এস/এসপি/মে ০১, ২০২২)

পাঠকের মতামত:

২৪ মে ২০২২

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test