E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ কি ন্যায় বিচার পাবে? 

২০২১ সেপ্টেম্বর ০৫ ২৩:০২:৫৬
সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ কি ন্যায় বিচার পাবে? 

স্টাফ রিপোর্টার : রাজবাড়ী পাংশা থেকে সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ সন্ত্রাসীদের কু-কর্মের সংবাদ একের পর এক প্রকাশ করায় গত (২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮) তারিখে শারিরীক নির্যাতনের শিকার হন। 

দীর্ঘ প্রায় এক মাস জাতীয় অর্থোপেডিক হসপিটাল ও পুনঃর্বাসন প্রতিষ্ঠান, শেরে-বাংলা নগর, ঢাকায় চিকিৎসা ধীন থেকে কিছুটা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেও হুমকি চলতে থাকে সাংবাদিকের উপর। এখনো শারিরীক যন্ত্রণা নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছে তিনি।

হামলা কারি মিজানুর রহমান মজনু, মোঃ মনোয়ার হোসেন জনি, মোঃ মিজানুর রহমান রিপন, মোঃসাহেদ আলী, মোঃ শফিকুল ইসলাম, মোঃ আঃ রাজ্জাক (রাজা), মোঃ নয়ন ইত্তেখার, মোঃ আরাফাত হোসন রঙ্কীন, মোঃ নাজমুল, মোঃ সবুজ শেখ, মোঃ জবেদ শেখ গন স্থানীয় সংসদ সদস্য জিল্লুল হাকিমের অস্ত্রধারী ক্যাডার হওয়ায় তাৎখনিক সাংবাদিক মামলা করতে থানায় গেলেও তা নেননি থানা।

পরে সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ কোটের দারস্থ হয়ে উক্ত আসামীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। তবে এর পরেও মামলা দায়ের করার কারণে বিভিন্ন সময় হত্যার হুমকি দিয়েই চলছে আসামী গন।

তবে প্রাথমিক তদন্তে উক্ত ঘটনার সত্যতা প্রকাশ পায়। ঘটনা স্থলের আশেপাশে থাকা কয়েক জন ব্যবসায়ী বক্তব্যে এটাই প্রমাণ করে যে সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ কে মেরে ফেলাই ছিলো আসামীদের উদ্দেশ্য।

ঘটনার দিন সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ কে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ থেকে সংবাদ সংগ্রহ করে ভ্যানে ফেরার পথে ১০/১২ টা মোটরসাইকেলের একটি বহর সংসদ সদস্য জিল্লুল হাকিম এর পিএস মিজানুর রহমান মজনুর নেতৃত্বে হামলা করে। প্রত্যক্ষ দর্শীদের মাধ্যমে জানাযায় সাংবাদিক কে লোহার রড, দেশীয় অস্ত্র দিয়ে এত পরিমাণ আঘাত করে যে সাংবাদিক মৃত মানুষের মত রাস্তার উপর পরে ছিলো। তারা যাবার সময় সাংবাদিক কে লাথি দিয়ে নিশ্চিত হয়েছিল যে সে মারা গেছে। তবে তারা চলে গেলে আমার সাংবাদিক এর কাছে গিয়ে বুঝতে পারি সে বেচে আছে,তখন আমরা তাকে পাংশা উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে ভর্তি করি।

দীর্ঘদিন পর আজ সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ কে পঙ্গু করা মামলার শুনানি। রাজবাড়ী জেলার সাংবাদিক তথা শুশিল সমাজ এই ঘটনার সাথে জড়িতদের দিষ্টান্ত শাস্তির দাবি জানিয়েছে।

সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ বলেন, আমি একাধিক সংবাদ প্রকাশ করি উক্ত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে এখনো হত্যার হুমকি দিচ্ছে৷ তিনি আমার এই মামলায় যদি সন্ত্রাসীরা জামিন পেয়ে যায় তবে বুঝবো আইনের শাসন নাই।

উক্ত আসামীদের বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক, খুন সহ একাধিক মামলা রয়েছে দেশের বিভিন্ন থানায়।

(একে/এসপি/সেপ্টেম্বর ০৫, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test