E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

২৯২টি আসনে পুনর্গননা হলে ক্ষতি কি? 

২০২১ মে ০৪ ১২:৪১:৩৯
২৯২টি আসনে পুনর্গননা হলে ক্ষতি কি? 

শীতাংশু গুহ


মমতা ব্যানার্জীকে অভিনন্দন। তাঁর দল টিএমসি বিজয়ী। আরো আনন্দের যে, নির্বাচনে জয়ী হবার সাথে সাথে তাঁর ভাঙ্গা পা ভালো হয়ে গেছে। মুখ্যমন্ত্রীর ‘ভাঙ্গা-পা’ নাটক ভোটার পছন্দ করেছেন, তাঁকে ভোট দিয়েছেন এবং নিজেদের কোমড় ভেঙ্গেছেন। ভারত প্রজাতন্ত্রে পশ্চিমবঙ্গ অন্যতম দরিদ্র রাজ্য। শিল্প নাই, চাকুরী নাই। আপাতত: আরো পাঁচ বছর এ অবস্থা চলবে। বিজেপি-কে অভিনন্দন, ৩ থেকে একলাফে ৮২টি আসন মন্দ নয়! তৃণমূল ২৫০ থেকে কমে ২০৫? মমতা হেরেছেন। শুভেন্দু অধিকারী কথা রেখেছেন। মমতা ব্যানার্জীর পরাজয় ইঙ্গিত দেয় টিএমসি-কে হারানো সম্ভব। বিধানসভায় ভূমিকা রেখে ভবিষ্যতে হয়তো বিজেপি জনগণের কাছে পৌঁছতে পারবেন।

মুখ্যমন্ত্রী নন্দীগ্রামে ভোট পুন্:গণনার দাবি জানিয়েছেন। ৫টি আসনে পুন্:গণনায় বিজেপি’র আসন বেড়েছে। বিজেপি কর্মীরা । আমরাপুনর্গননাচাই দাবি তুলছেন। ২৯২টি আসনে পুনর্গননা হলে ক্ষতি কি? বিজেপি প্রার্থীরা প্রায় ৯২টি আসনে খুব কম সংখ্যক ভোটে হেরেছেন। আমেরিকায় নিয়ম আছে, ভোটের ব্যবধান সামান্য হলে অটোমেটিক পুন্:গণনা হয়। বিশ্বের বৃহত্তম গণতন্ত্রে এমন কোন নিয়ম নেই? দিদি নন্দীগ্রামের ফলাফল মানতে চাইছেন না, বিজেপি যদি পুরো নির্বাচনের ফলাফল না মানে? স্বাধীনতার পর এই প্রথম পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় কংগ্রেস ও বাম-দের কেউ থাকবেন না! তবে তাদের জোটের ‘সেক্যুলার!’ পীরজাদা আব্বাসের ভাই থাকবেন।

পশ্চিমবাংলার জনগণ এবার একটি ঐতিহাসিক ভুল করেছেন, এর খেসারত দিতে হবে। ডিজে খান নামে একজন লিখেছেন, “আমরা মুসলমানরা দেখিয়ে দিলাম আমাদের শক্তি কত, পশ্চিমবাংলায় ইসলামী শাসন আসছে, ইনশাল্লাহ”। ৩০% ঐক্যবদ্ধ মুসলিম ভোট ৭০% বহুধা বিভক্ত হিন্দু ভোটকে সর্বদা পরাজিত করতে সক্ষম। এই নির্বাচন প্রমান করেছে, ‘মাইনরিটি ভোট ম্যাটারস’। ১৯৪৭ সালে মুসলমানরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে বিভক্ত হিন্দুদের থেকে পাকিস্তান ছিনিয়ে নিয়েছিলো, এতদিন পরে তাঁরা আবার বুঝিয়ে দিলো প্রয়োজনে দল-মতের ঊর্ধে উঠে তাঁরা ঐক্যবদ্ধভাবে ৭০%-কে ঠেকিয়ে দিতে সক্ষম। এই সংখ্যাটি ৪০-৫০% হলে ‘মজাটা’ টের পাবেন। আত্মঘাতী বাঙ্গালী নিজের ভালোটা পর্যন্ত বুঝে না?

মিডিয়ায় এসেছে, মমতার বিজয়ে স্বস্তি ও উল্লাস বাংলাদেশে। শুধু বাংলাদেশ কেন, মমতার বিজয়ে বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তানের ইসলামী মৌলবাদী শক্তি উল্লসিত। চীন খুশি। মোদী হারেননি, হেরেছে ‘বাঙ্গালী হিন্দু’। ৫ রুপিতে ডাল-ভাত, কন্যাশ্রী, সাইকেলশ্রী’র ভিক্ষার কাছে বাঙ্গালী মাথা নিচু করে ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে বিপদের মুখে ঠেলে দিয়েছেন। মিডিয়া জানাচ্ছে, মমতার ‘দুধেল গাই’রা’ বাংলাদেশ ষ্টাইলে হিন্দুদের ওপর আক্রমণ চালাচ্ছে। আপনি ভাবছেন, ওঁরা বিজেপি কর্মীদের মারছে তাতে আপনার কি? সময় এলে ওঁরা আপনি বা মমতা ব্যানার্জিকে ছুড়ে ফেলতে একটুও দ্বিধা করবে না? সেই পর্যন্ত ভালো থাকুন!!

লেখক : আমেরিকা প্রবাসী।

পাঠকের মতামত:

১২ মে ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test