E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

‘এক সপ্তাহের মধ্যেই স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের টিকাদান’

২০২১ অক্টোবর ২৭ ২৩:২৭:১৪
‘এক সপ্তাহের মধ্যেই স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের টিকাদান’

স্টাফ রিপোর্টার : শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, এক সপ্তাহের মধ্যেই স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য করোনাভাইরাসের টিকাদান কার্যক্রম শুরু করা হবে।

আজ বুধবার (২৭ অক্টোবর) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) তৃতীয় গবেষণা দিবস ২০২১ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

তিনি বলেন, দেশকে এগিয়ে নিতে গবেষণার সংস্কৃতি গড়ে তুলতে হবে। চিকিৎসা বিজ্ঞানে প্রতিনিয়ত নতুন করে শিখতে হয়। ফলে চিকিৎসা বিজ্ঞানে আরও বেশি করে গবেষণার প্রয়োজন রয়েছে। সব চিকিৎসককেই গবেষণার চর্চায় মনোযোগী হতে হবে। গবেষণায় দেওয়া অর্থ যাতে ফেরত না যায় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

বৈজ্ঞানিক অধিবেশন ও অ্যাওয়ার্ড প্রদানসহ নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিএসএমএমইউ তৃতীয় গবেষণা দিবস পালিত হয়। এ বছর দিবসের প্রতিপাদ্য ‘মুজিব বর্ষের আহ্বান, গবেষণায় উত্তরণ’।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ ডা. মিল্টন হলে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি শুভ উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিএসএমএমইউ উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউজিসির চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. কাজী শহীদুল্লাহ, বিএমএ’র সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডা. একেএম মোশাররফ হোসেন, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. ছয়েফ উদ্দিন আহমেদ, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান। স্বাগত বক্তব্য দেন উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. জাহিদ হোসেন।

অনুষ্ঠানে বিভিন্ন অনুষদের ১৫ জন শিক্ষক, চিকিৎসককে গবেষণার জন্য রিসার্চ অ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়। এছাড়া চার শিক্ষক চিকিৎসককে ভাইস-চ্যান্সেলর অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়েছে।

সভাপতির বক্তব্যে বিএসএমএমইউ উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন রোগ ও চিকিৎসা বিষয়ে গবেষণা কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। গবেষণা করার জন্য ২০২০-২০২১ সালে ৭ শতাধিক শিক্ষক, চিকিৎসক ও ছাত্রছাত্রীদের গবেষণা কর্ম অনুমোদন দেওয়াসহ অনেককে গবেষণা মঞ্জুরি, থিসিস গ্রান্ট প্রদান করা হয়েছে। অনেক গুরুত্বপূর্ণ গবেষণাকর্ম এরই মধ্যে সম্পন্ন হয়েছে।

তিনি বলেন, গবেষণা কার্যক্রম জোরদার করতে আলাদাভাবে রিসার্চ সেন্টারসহ একাডেমিক ভবন গড়ে তোলা হবে। উন্নত চিকিৎসা সেবা প্রদান উন্নত চিকিৎসা শিক্ষা ও গবেষণায় আন্তর্জাতিক নেটওয়ার্ক সংযুক্তির মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় আন্তর্জাতিক মানের বিশ্ববিদ্যালয় হিসেবে বিশ্বের বুকে মাথা তুলে দাঁড়াবে এই প্রত্যাশা সবার।

বিএসএমএমইউ উপাচার্য আরও বলেন, সাধারণ রোগীদের দীর্ঘদিনের দাবি হলো জেনারেল ইমারজেন্সি অর্থাৎ সাধারণ জরুরি বিভাগ চালু করা। এ বিষয়ে একটি সুখবর দিচ্ছি। আগামী ১ নভেম্বর (সোমবার) থেকেই সাধারণ জরুরি বিভাগ চালু করা হবে।

(ওএস/এএস/অক্টোবর ২৭, ২০২১)


পাঠকের মতামত:

০৮ ডিসেম্বর ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test