E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

‘ভারত বাংলাদেশের সঙ্গে অত্যাধুনিক প্রতিরক্ষা প্রযুক্তি ভাগ করে নিতে চায়’

২০২৪ ফেব্রুয়ারি ২১ ১৪:৩৯:৩১
‘ভারত বাংলাদেশের সঙ্গে অত্যাধুনিক প্রতিরক্ষা প্রযুক্তি ভাগ করে নিতে চায়’

স্টাফ রিপোর্টার : ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার প্রণয় ভার্মা বলেছেন, ভারত বাংলাদেশের সঙ্গে প্রতিরক্ষা উৎপাদনের সক্ষমতার বিস্তৃত দিকগুলো ভাগ করে নিতে আগ্রহী, যার মধ্যে রয়েছে সবচেয়ে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি। 

তিনি প্রতিরক্ষা উৎপাদন খাতে যৌথ উদ্যোগ গড়ে তোলার মাধ্যমে দ্বিপাক্ষিক প্রতিরক্ষা সহযোগিতাকে পরবর্তী স্তরে উন্নীত করার প্রস্তাবও দেন।

মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) ঢাকায় ভারতীয় হাইকমিশন আয়োজিত ইন্ডিয়ান ডিফেন্স ইকুইপমেন্ট (এসআইডিই) ২০২৪ - বিষয়ক সেমিনারে দেওয়া বক্তব্যে ভার্মা এ প্রস্তাব দেন।

ভারত-বাংলাদেশ প্রতিরক্ষা শিল্প সহযোগিতার উন্নয়নে ভারতীয় হাইকমিশন আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভারতীয় হাইকমিশনার প্রণয় ভার্মা ও বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসার লেফটেন্যান্ট জেনারেল এম আর শামীম বক্তব্য দেন।

সেমিনারে ভারতীয় হাইকমিশনার দেশটির প্রধানমন্ত্রী মোদির ‘মেইক ইন ইন্ডিয়া’ ও ‘মেইক ফর দ্য ওয়ার্ল্ড’ এর দর্শনে গত এক দশক ধরে পরিচালিত ভারতীয় প্রতিরক্ষা শিল্পের অগ্রগতি তুলে ধরেন, যা ভারতীয় প্রতিরক্ষা উৎপাদন খাতে অভূতপূর্ব বিনিয়োগকে উৎসাহিত করেছে এবং ক্রমবর্ধমান ভারতীয় প্রতিরক্ষা রপ্তানির ক্ষেত্রে নেতৃত্ব দিয়েছে।

ভারতীয় হাইকমিশনার এসআইডিই ২০২৪-কে বাংলাদেশের সঙ্গে অংশীদারত্বে ভারতীয় প্রতিরক্ষা শিল্পের আগ্রহের প্রতিফলন এবং ভারত-বাংলাদেশ প্রতিরক্ষা সহযোগিতাকে পরবর্তী স্তরে নিয়ে যাওয়ার একটি নিদর্শন হিসেবে বর্ণনা করেন, যার মধ্যে ভারত সরকারের বাংলাদেশ সরকারকে দেওয়া ৫০০ মিলিয়ন ডলারের লাইন অব ক্রেডিটের ব্যবহার অন্তর্ভুক্ত।

ভারতের সরকারি ও বেসরকারি উভয় ক্ষেত্রেরই বেশ কয়েকটি অগ্রগণ্য প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম উৎপাদনকারী সংস্থা এ আয়োজনে অংশ নেয়। এতে ‘মেড ইন ইন্ডিয়া’ প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম, প্রযুক্তি ও প্ল্যাটফর্মের একটি প্রদর্শনও করা হয়। সেমিনারে বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর পাশাপাশি আধাসামরিক ও পুলিশ বাহিনীর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

(ওএস/এএস/ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

১৭ এপ্রিল ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test