E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

‘প্রায় আট হাজার ভুয়া মুক্তিযোদ্ধার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার’

২০২৪ জুন ১৯ ২২:৫৮:৪৬
‘প্রায় আট হাজার ভুয়া মুক্তিযোদ্ধার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার’

রিয়াজুল রিয়াজ, বিশেষ প্রতিনিধি : প্রতারণার মাধ্যমে সরকারি ভাতা নেওয়া ভুয়া মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা প্রায় আট হাজার বলে জানা গেছে। ওই সব ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের বিরুদ্ধে আগামী রবিবার থেকে ব্যবস্থা নেওয়া শুরু করবে সরকার মর্মে একটি গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন মন্ত্রী।

ওই গণমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, জালিয়াতি, প্রতারণা ও অসত্য তথ্য দিয়ে মুক্তিযোদ্ধা পরিচয়ে যাঁরা সরকারি ভাতা নিয়েছেন, তাঁদের সেই ভাতা সুদে-আসলে ফেরত নেবে সরকার। সেই সাথে তাঁদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। প্রতারণার মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধা ভাতা যাঁরা নিয়েছেন বা নিচ্ছেন, তাঁদের সংখ্যা এখন পর্যন্ত প্রায় আট হাজার বলে জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সূত্রে জানা গেছে, এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে আগামী সপ্তাহ (২৩ জুন বরিবার) থেকেই দেশের সব জেলা প্রশাসককে চিঠি দেওয়া হবে। এবং ওসব ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের নিকট থেকে রাষ্ট্রীয় সম্মানি ভাতা ফেরত নিয়ে সরকারি কোষাগারে জমা রাখার ব্যবস্থা করা হবে। এ বিষয়ে ‘সরকারি পাওনা আদায় আইন, ১৯১৩’ মোতাবেক ব্যবস্থা নেবে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রণালয়।

মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক ওই গণমাধ্যমকে জানান, সরকারি ভাতা সুদে-আসলে ফেরত নেওয়ার পরামর্শ, সুপারিশ ও সিদ্ধান্ত এসেছে ১২ জুন সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক থেকে। আগামি রবিবার থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর শুরু হবে জানিয়ে মন্ত্রী আরও জানান, ‘প্রতারণার মাধ্যমে সংগ্রহ করা আট হাজার 'মুক্তিযোদ্ধা সনদ' আমরা বাতিল করেছি। আমরা জানি, ভাতা আদায়ের বিষয়টি অত্যন্ত কঠিন। আমরা প্রত্যেকের জন্য একটি করে ফাইল খুলব। একেকজন একেক সময়ে ভাতা নিয়েছেন, কে কত টাকা নিয়েছেন সেটি যেমন খুঁজে বের করতে হবে, একইভাবে কার সুপারিশে তাঁরা মুক্তিযোদ্ধা সনদ নিয়েছিলেন, সেটাও আমরা অনুসন্ধান করব। এ বিষয়ে মামলা হতে পারে, রিট হতে পারে; কিন্তু আমরা সরকারি টাকা আদায় করে ছাড়ব।’

উল্লেখ্য, ভুয়া মুক্তিযোদ্ধাদের নিয়ে অনেক লেখালেখি হলেও এই প্রথম সরাসরি এসব বিষয়ে বড় কোন শক্ত পদক্ষেপ নিতে যাচ্ছে সরকার। কিন্তু যে সব ভুয়া মুক্তিযোদ্ধার সন্তানেরা তার বাবার ভুয়া সনদে সরকারের বিভিন্ন পর্যায়ের চাকরি ও অন্যান্য সুবিধা ভোগ করেছেন বা করে চলেছেন, তাদের বিষয়ে কোন পদক্ষেপ নেয়া হবে কিনা সেসব বিষয়ে স্পষ্ট কিছুই জানা যায়নি।

(আরআর/এসপি/জুন ১৯, ২০২৪)

পাঠকের মতামত:

২২ জুলাই ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test